kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ইসলামপুরে কাস্টমস বন্ডের অভিযান

৮০ টন বন্ডেড চোরাই ফেব্রিকস আটক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ অক্টোবর, ২০১৯ ১৯:২৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৮০ টন বন্ডেড চোরাই ফেব্রিকস আটক

বন্ডেড চোরাই ফেব্রিকস এর সিন্ডিকেট ভেঙ্গে দিতে পুরাতন ঢাকার ইসলামপুর এলাকায় পরপর ৩য় বারের মত সাঁড়াশি অভিযান পরিচালনা করেছে ঢাকা কাস্টমস বন্ড কমিশনারেট। সোমবার বিকাল ৫টায় শুরু হওয়া বিশেষ অভিযানটি মঙ্গলবার ভোর বেলায় শেষ হয়। ঢাকা কাস্টমস বন্ড কশিমনার হুমায়ুন কবীর এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
 
সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন থেকে ইসলামপুর এলাকায় বন্ডেড অবৈধ ফেব্রিকস এর চোরাই বাজার গড়ে উঠেছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে এ অভিযোগ চালানো হয়। অভিযানে ৫ জন উপ কমিশনার ও সহকারী কমিশনারের নেতৃত্বে প্রায় ১০০ জন কাস্টমস বন্ড কর্মকর্তা-কর্মচারী অংশ নেয়। অভিযানে ডিএমপি সদর ও স্থানীয় থানা পুলিশের সশস্ত্র টিম এ অভিযানে অংশ নেয়। সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে পরিচালিত অভিযানে ইসলামপুর এলাকায় অবস্থিত গুলশান আরা মার্কেট এর ৫ম তলায় অবস্থিত ৫টি গোপণ গুদামে বিপুল পরিমাণ বন্ডেড চোরাই ফেব্রিকস মজুদ পাওয়া যায়। 

এসময় স্থানীয় চোরাকারবারী-সন্ত্রাসীরা সংগঠিত হয়ে কাস্টমস এর অভিযানে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে শুরু করে। তাঁরা মার্কেটের বাইরের রাস্তা ব্লক করে দেয়, মার্কেটের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয় এবং স্লোগান দিয়ে কাস্টমস কর্মকর্তাদের ‌ওপর হামলার চেষ্টা চালায়। 
এসময় ডিএমপি সদর এবং স্থানীয় কোতয়ালী থানা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ এনে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার মাধ্যমে অভিযান সম্পন্ন করা হয়। অভিযানশেষে মোট প্রায় ৮০ টন উন্নতমানের ডেনিম, শার্টিং, স্যুটিং, জর্জেট ফেব্রিকস জব্দ করে কাস্টমস গুদামে জমা প্রদান করা হয়েছে। এসব ফেব্রিকস এর বাজার মূল্য প্রায় ৫ কোটি টাকা। 

বিশেষ অনুসন্ধান ও মামলা দায়েরের মাধ্যমে অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এর আগে গত ২৫ সেপ্টেম্বর এবং ৫ অক্টোবর ইসলামপুর এলাকায় পরিচালিত পৃথক ২টি অভিযানে মোট ১৮৪ টন চোরাই বন্ডেড ফেব্রিকস আটক করা হয়েছিল।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা