kalerkantho

মঙ্গলবার । ২২ অক্টোবর ২০১৯। ৬ কাতির্ক ১৪২৬। ২২ সফর ১৪৪১              

পায়রা বিদ্যুৎকেন্দ্রে ইন্দোনেশিয়া থেকে এসেছে প্রথম কয়লাবোঝাই জাহাজ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৩:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পায়রা বিদ্যুৎকেন্দ্রে ইন্দোনেশিয়া থেকে এসেছে প্রথম কয়লাবোঝাই জাহাজ

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় নির্মিত হচ্ছে কয়লাভিত্তিক ১৩২০ মেগাওয়াট পায়রা বিদ্যুৎকেন্দ্র। এতে বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু করার জন্য ২০ হাজার মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে প্রথমবারের মতো একটি জাহাজ এসেছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে হংকংয়ের পতাকাবাহী এমভি জিন হাই টং-৮ নোঙর করে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিজস্ব জেটিতে। ইন্দোনেশিয়ার বালিকপানান বন্দর থেকে কয়লা নিয়ে রওনা দিয়ে এক সপ্তাহ পর পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জেটিতে প্রথম জাহাজ হিসেবে নোঙর করে জাহাজটি।

এ কয়লা দিয়ে কয়েকদিনের মধ্যেই বিদ্যুৎকেন্দ্রে পরীক্ষামূলকভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু করা হবে। এরপর ডিসেম্বরের প্রথম দিকে পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৬৬০ মেগাওয়াটের প্রথম ইউনিট থেকে থেকে উৎপাদিত বিদ্যুৎ বাণিজ্যিকভাবে জাতীয় গ্রিডে যুক্ত করা সম্ভব হবে বলে বিদ্যুৎকেন্দ্র কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

আনুষ্ঠানিকতা শেষে বিকেলেই জাহাজ থেকে কয়লা জেটির স্বয়ংক্রিয় বেল্টের মাধ্যমে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের অভ্যন্তরে নেওয়া শুরু হয়।

জার্মানির ওল্ডেন ড্রাফট কেরিয়ার্স লিমিটেডের মাধ্যমে বাংলাদেশের বেনকন সেটারনস লিমিটেড পোর্ট এজেন্ট হিসেবে এ কয়লা আমদানি করেছে।

পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য বাংলাদেশ-চায়না পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি (বিসিপিসিএল) বছরে প্রায় ৪০ লাখ মেট্রিক টন কয়লা আমদানি করবে।

জানা গেছে, বিসিপিসিএল জেটিতে অক্টোবর মাসে কয়লা নিয়ে চারটি জাহাজ আসবে। ডিসেম্বর মাসে ৮টি জাহাজ আসবে। মাসে সর্বোচ্চ ২০- ২২টি জাহাজবোঝাই কয়লা আনা সম্ভব এ কেন্দ্রের জেটিতে।

পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে উৎপাদিত বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে সঞ্চালন করার জন্য গোপালগঞ্জ থেকে পায়রা বিদ্যুৎ কেন্দ্র পর্যন্ত ১৬০ কি. মি. দীর্ঘ বিদ্যুৎ লাইন টানা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা