kalerkantho

প্রধানমন্ত্রী সম্মাননা তুলে দেবেন আজ

৬৬ প্রতিষ্ঠান পাচ্ছে রপ্তানি ট্রফি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৯:৩৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



৬৬ প্রতিষ্ঠান পাচ্ছে রপ্তানি ট্রফি

দেশের রপ্তানি বাণিজ্য উৎসাহিত করার পাশাপাশি সুষ্ঠু প্রতিযোগিতার পরিবেশ তৈরির লক্ষ্যে সরকার প্রতিবছর ব্যবসায়ীদের রপ্তানি ট্রফি দিয়ে থাকে। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে রপ্তানি বাণিজ্যে অবদানের জন্য সেরা ৬৬ রপ্তানিকারক এ বছর পাচ্ছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের এ সম্মান। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আজ রবিবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপস্থিত থেকে সেরা রপ্তানিকারকদের এ ট্রফি তুলে দেবেন। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও ইপিবি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

জাতীয় রপ্তানি ট্রফি ২০১৬-১৭ প্রদান অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশির সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি থাকবেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি তোফায়েল আহমেদ, মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. মফিজুল ইসলাম, বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম, রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) ভাইস চেয়ারম্যান বেগম ফাতিমা ইয়াসমিন।

জাতীয় রপ্তানি ট্রফি নীতিমালা অনুযায়ী এবার মোট ২৮টি ক্যাটাগরিতে এ পদক দেওয়া হবে। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে সবচেয়ে বেশি রপ্তানি করে সেরা প্রতিষ্ঠান হিসেবে স্বর্ণপদক পাচ্ছে তৈরি পোশাক খাতের প্রতিষ্ঠান জাবের অ্যান্ড জোবায়ের ফ্যাব্রিকস লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটি এর আগেও কয়েক অর্থবছর এ পদক অর্জন করে। অন্য প্রতিষ্ঠানের মধ্যে প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের পাঁচটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এ ছাড়া তৈরি পোশাক খাতের ওভেন খাতে স্বর্ণপদক পাচ্ছে হা-মীম গ্রুপের প্রতিষ্ঠান রিফাত গার্মেন্ট লিমিটেড, একই খাতে ব্রোঞ্জপদকও পাচ্ছে হা-মীম গ্রুপের দ্যাটস ইট স্পোর্টসওয়্যার লিমিটেড। এ খাতে রৌপ্যপদক পাচ্ছে একেএম নিটওয়্যার।

তৈরি পোশাক খাতের নিটওয়্যার খাতে স্বর্ণপদক পাচ্ছে স্কয়ার ফ্যাশনস, রৌপ্যপদক পাচ্ছে ফোর এইচ ফ্যাশনস এবং ডার্ড কম্পোজিট টেক্সটাইলস পাচ্ছে ব্রোঞ্জপদক। সব ধরনের সুতা রপ্তানিতে বাদশাহ টেক্সটাইল লিমিটেড পাচ্ছে স্বর্ণপদক, কামাল ট্রেডিং রৌপ্য এবং ম্যাকসন স্পিনিং মিলস লিমিটেড ব্রোঞ্জপদক পাচ্ছে। টেরিটাওয়েল খাতে নোমান টেরিটাওয়েল মিলস স্বর্ণপদক পাচ্ছে। এ খাতে অন্য কোনো পদক দেওয়া হয়নি।

ইপিজেডের শতভাগ বাংলাদেশি মালিকানাধীন তৈরি পোশাক রপ্তানিতে ইউনিভার্সাল জিন্স স্বর্ণ, প্যাসিফিক জিন্স রৌপ্য ও জিন্স ২০০০ ব্রোঞ্জপদক পাচ্ছে। ইপিজেডভুক্ত শতভাগ দেশি মালিকানার অন্যান্য পণ্য ও সেবা খাতে ফারদিন অ্যাকসেসরিজ স্বর্ণ, শাশা ডেনিমস রৌপ্য এবং আরএম ইন্টারলাইনিংস ব্রোঞ্জপদক পাচ্ছে।

ইএবির প্রথম সহসভাপতি মোহাম্মদ হাতেম কালের কণ্ঠকে বলেন, দেশের রপ্তানি বাণিজ্য উৎসাহিত করতে সরকারের এ উদ্যোগ প্রশংসনীয় হলেও ট্রফি প্রদানে আরো স্বচ্ছতার প্রয়োজন রয়েছে। কারণ কেউ রপ্তানিতে বেশি অবদান রাখার পরও স্বীকৃতি মিলছে না আবার কেউ কেউ প্রতিবছর রপ্তানি ট্রফি পাচ্ছে। তাই রপ্তানি ট্রফি দেওয়ার ক্ষেত্রে আরো বিচার-বিশ্লেষণ করা উচিত।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা