kalerkantho

সোমবার। ১৭ জুন ২০১৯। ৩ আষাঢ় ১৪২৬। ১৩ শাওয়াল ১৪৪০

হুয়াওয়ের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদ করছে এআরএম

বাণিজ্য ডেস্ক    

২৩ মে, ২০১৯ ০২:৩৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হুয়াওয়ের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদ করছে এআরএম

যুক্তরাষ্ট্রের কালো তালিকাভুক্ত হওয়ার পর থেকেই চীনা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের পাশ থেকে একে একে সরে যাওয়ার ঘোষণা দিচ্ছে বৃহৎ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো। ইন্টারনেট জায়ান্ট গুগলের পর গতকাল বুধবার হুয়াওয়ের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদের ঘোষণা দিল ব্রিটিশ প্রতিষ্ঠান এআরএম। এর পাশাপাশি জাপান ও ব্রিটেনের চারটি বৃহত্ কম্পানি জানিয়েছে, তারা হুয়াওয়ের তৈরি নতুন ৫জি হ্যান্ডসেট বাজারে ছাড়তে বিলম্ব করবে। প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে—টেলিকম জায়ান্ট ইই, ভোদাফোন, কেডিডিআই এবং সফটব্যাংক করপোরেশন।

এআরএম নিজেদের কর্মীদের জানিয়েছে, মার্কিন নিষেধাজ্ঞা মেনে হুয়াওয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করবে তারা। ফলে চিপের নকশা নিয়েও বিপদে পড়তে যাচ্ছে হুয়াওয়ে।

বার্তা সংস্থা বিবিসি জানায়, এআরএম তাদের কর্মীদের এ বিষয়ে জানিয়েছে; যদিও হুয়াওয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি এআরএম। এক বিবৃতিতে কম্পানিটি জানায়, তাদের নকশায় যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়। তাই যুক্তরাষ্ট্র সরকারের সাম্প্রতিক সিদ্ধান্ত ও এসংক্রান্ত সব বিধি-নিষেধ তারা মেনে চলবে। অবশ্য হুয়াওয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি প্রতিষ্ঠানটি।

বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান সিসিএস ইনসাইটের কর্মকর্তা জিওফ ব্লেবার বিবিসিকে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র সরকার যদি দীর্ঘ মেয়াদের জন্য এই নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখে, তাহলে হুয়াওয়ের ব্যাবসায়িক কার্যক্রমে ‘অপূরণীয়’ ক্ষতি হবে। হুয়াওয়ের বেশির ভাগ চিপ এআরএমের প্রযুক্তি ব্যবহার করে নকশা করা হয়। নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকলে নিজস্ব চিপ তৈরি করতে বেকায়দায় পড়বে হুয়াওয়ে।

এআরএমের এমন সিদ্ধান্তের পর হুয়াওয়ে বলেছে, ‘আমরা আমাদের অংশীদারদের সঙ্গে বিদ্যমান সুসম্পর্কের কদর করি। কিন্তু আমরা এটাও বুঝতে পারছি, তাদের মধ্যে কেউ কেউ রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের কারণে বর্তমানে বেশ চাপের মুখে রয়েছে। আমরা আত্মবিশ্বাসী যে শিগগিরই এই পরিস্থিতির নিরসন হবে।’

গত ১৫ মে এক আদেশে ডোনাল্ড ট্রাম্প চীনা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে টেকনোলজিস ও প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত ৭০ প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্ত করেন। এতে কার্যত যুক্তরাষ্ট্রের কোনো প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে পণ্য বা সেবা ক্রয়-বিক্রয় বা আদান-প্রদান করতে পারবে না হুয়াওয়ে। এর পরই গত ১৯ মে ইন্টারনেট জায়ান্ট গুগল জানিয়ে দেয়, তারাও হুয়াওয়ের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদের প্রক্রিয়া শুরু করেছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞায় দেশটির বেশ কিছু কম্পানি সাময়িকভাবে সংকটে পড়ায় হুয়াওয়ের সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক রক্ষায় ৯০ দিনের অবকাশ দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা