kalerkantho

মঙ্গলবার । ২২ অক্টোবর ২০১৯। ৬ কাতির্ক ১৪২৬। ২২ সফর ১৪৪১            

বাংলাদেশে গাড়ি শিল্পে বিনিয়োগে আগ্রহী জাপান

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ মার্চ, ২০১৯ ১৪:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাংলাদেশে গাড়ি শিল্পে বিনিয়োগে আগ্রহী জাপান

ছবি অনলাইন

বাংলাদেশে যৌথ অংশীদারিত্বে গ্যাসোলিন ইঞ্জিন কার ম্যানুফ্যাকচারিং শিল্পে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছে জাপান। এছাড়া, ইলেক্ট্রনিক হোম অ্যাপ্লায়েন্স ( বৈদ্যুতিক গৃহস্থালী সরঞ্জাম) শিল্পেও এ দেশে বিনিয়োগের চমৎকার সম্ভাবনা রয়েছে।
বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত হিরোয়াসিও ইজুমি আজ শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনের সাথে বৈঠককালে এ আগ্রহ প্রকাশ করেন।

শিল্প মন্ত্রণালয়ে এ সাক্ষাতকালে শিল্পসচিব মো. আবদুল হালিম, অতিরিক্ত সচিব বেগম পরাগসহ শিল্প মন্ত্রণালয় ও জাপান দূতাবাসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে জাপান-বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা হয়। এ সময় বাংলাদেশের শিল্পখাতের জাপানি বিনিয়োগ, প্রযুক্তি স্থানান্তর, অটোমোবাইল শিল্পখাতে জাপানের কারিগরি সহায়তাসহ অন্যান্য বিষয়ে আলোচনায় স্থান পায়।

এদিকে বাংলাদেশের একটি মেগা ফার্নিচার ম্যানুফ্যাকচারিং ইন্ডাস্ট্রি গড়ে তুলতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে সৌদি আরবের বিখ্যাত উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইম্যানশন্স। এছাড়া, প্রতিষ্ঠানটি পেট্রো কেমিক্যাল, চিনিসহ অন্যান্য সম্ভাবনাময় শিল্পখাতেও বিনিয়োগ করবে।

সৌদি ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইম্যানশন্সের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ এন. হিজি-এর নেতৃত্বে সৌদি আরবের এক ব্যবসায়িক প্রতিনিধিদল শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনের সাথে বৈঠককালে এ কথা বলেন। শিল্প মন্ত্রণালয়ে আজ এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
এ সময় শিল্পসচিব মোঃ আবদুল হালিম, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বেগম পরাগ, বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশল কর্পোরেশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান মোঃ মিজানুর রহমান, বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশনের (বিসিআইসি) চেয়ারম্যান মোঃ হাইয়ুল কাইয়ুমসহ সৌদি প্রতিনিধিদলের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় শিল্পমন্ত্রী বলেন, মুসলিম ভ্রাতৃপ্রতীম রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশ সৌদি বিনিয়োগ প্রস্তাবের প্রতি আস্থাশীল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সৌদি বিনিয়োগের প্রতি খুবই আন্তরিক। এ জন্য সৌদি ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইম্যানশন্সের সাথে শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিএসইসি ও বিসিআইসি বিনিয়োগের চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে। এ প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে উদ্ভুত যে কোনো সমস্যা দ্রুততার সাথে সমাধান করা হবে। ভবিষ্যতে সৌদি বিনিয়োগ বাড়াতে শিল্প মন্ত্রণালয় সর্বোচ্চ আন্তরিকতা ও পেশাদারিত্বের সাথে কাজ করবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। সূত্র: বাসস।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা