kalerkantho

শুক্রবার ।  ২৭ মে ২০২২ । ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৫ শাওয়াল ১৪৪

বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধির হার হবে ৬ দশমিক ৯ : এডিবি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৭ এপ্রিল, ২০১৭ ১৮:২৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধির হার হবে ৬ দশমিক ৯ : এডিবি

চলতি বছর বাংলাদেশের অর্থনীতিতে প্রবৃদ্ধির হার হবে ৬ দশমিক ৯ শতাংশ, যা পরের বছরও অপরিবর্তিত থাকবে। এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (এডিবি) সর্বশেষ প্রতিবেদনে এ তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে।

এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট আউটলুকে (এডিও) বলা হয়েছে, দক্ষিণ এশিয়ার পোশাক শিল্পে নেতৃত্বদানকারী বাংলাদেশ পোশাক রফতানির ক্ষেত্রে মূল চালিকাশক্তি, যার ফলে ২০১৭ ও ২০১৮ সালে প্রবৃদ্ধি ৬ দশমিক ৯-এ দাঁড়াবে।

এডিবি’র প্রতিবেদনে উন্নত অর্থনীতির ইউরোপ ও অন্যত্র প্রবৃদ্ধি মন্থরগতি হলেও বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধিকে গুরুত্ব দিয়ে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ রফতানির বাজার পাওয়ায় ও রেমিট্যান্স প্রাপ্তির সূত্র থাকায় প্রবৃদ্ধি বাড়ছে।

বিজ্ঞাপন

প্রতিবেদনে বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি সম্পর্কে ব্যাপক আশাবাদ ব্যক্ত করে বলা হয়, এই স্থিতিশীল রাজনৈতিক পরিস্থিতি অব্যাহত থাকবে এবং তাহলে ক্রেতা ও বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আস্থা বৃদ্ধি পাবে।

প্রতিবেদনে একই সঙ্গে আশা প্রকাশ করা হয়, কেন্দ্রীয় ব্যাংক মুদ্রাস্ফীতি রোধে মনোযোগী হবে এবং অর্থনৈতিক কার্যক্রম বৃদ্ধির লক্ষ্যে বেসরকারি খাতকে উৎসাহিত করবে।

এডিবি ম্যাক্রো অর্থনৈতিক খাতকে অনেক ইতিবাচক হিসেবে উল্লেখ করে বলেছে, মজুরি বৃদ্ধি ও ঋণ প্রাপ্তি সুবিধা অব্যাহত থাকায় তা বেসরকারি খাতকে টেকসই করার ক্ষেত্রে সহায়তা করবে। তবে বেসরকারি খাতে বিনিয়োগ সামান্য মাত্র বৃদ্ধি পাবে, কিন্তু সরকারি বিনিয়োগ অনেক শক্তিশালী হবে।

রিপোর্টে বলা হয়, চলতি অর্থবছরে কৃষি ক্ষেত্রে প্রবৃদ্ধি ২ দশমিক ৪ শতাংশ ও আগামী অর্থবছরে ২ দশমিক ৩ হতে পারে। মূলত ক্ষেত্র সম্প্রসারণ ও উৎপাদন বৃদ্ধির সীমাবদ্ধতার কারণে এটি হবে।

চলতি অর্থবছরে শিল্প ক্ষেত্রে প্রবৃদ্ধি ১০ দশমিক ৬ এবং আগামী অর্থবছরে তা ১০ দশমিক ৭ শতাংশে উন্নীত হবে বলেও প্রতিবেদনে আশা প্রকাশ করা হয়।

এডিও বলেছে, গড়ে ৬ দশমিক ১ শতাংশ মুদ্রাস্ফীতি নিয়ে চলতি বছর শেষ হবে, যা ২০১৮ সালে বিশ্বে তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রেক্ষিতে এই মুদ্রাস্ফীতি ৬ দশমিক ৩-এ দাঁড়াতে পারে। নতুন বছরের শুরুতে নতুন মূল্য-সংযোজন কর যোগ হলে তারও প্রভাব এতে পড়তে পারে।
রিপোর্টে বলা হয়, চলতি বছরের দ্বিতীয়ার্ধে রফতানি ক্ষেত্রে প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধি পারেব এবং তা ২০১৮ সালে অব্যাহত থাকবে, যা শতকরা ৭ ভাগে উন্নীত হবে।

এডিবি তার রিপোর্টে বলেছে, বর্তমান অর্থবছরের প্রথম ৬ মাসে বাংলাদেশের শ্রমিকদের বিদেশে চাকরির ক্ষেত্র ২৩ দশমিক ৬ ভাগ বৃদ্ধি পাবে। তবে উপসাগরীয় সহযোগিতা পরিষদের অর্থনীতিতে অব্যাহত কড়াকড়ি এবং যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের প্রবাহ হ্রাস পাওয়ায় রেমিটেন্স কমে গেছে। এডিও এই রেমিটেন্স হ্রাসের ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছে।



সাতদিনের সেরা