kalerkantho

শুক্রবার। ৩১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ মে ২০২১। ০২ শাওয়াল ১৪৪২

বইমেলায় এসেছে রাজু আহমেদ-এর ‘একান্ত আলাপে সৈয়দ আবুল মকসুদ’

অনলাইন ডেস্ক   

৯ এপ্রিল, ২০২১ ২১:০৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বইমেলায় এসেছে রাজু আহমেদ-এর ‘একান্ত আলাপে সৈয়দ আবুল মকসুদ’

অমর একুশে গ্রন্থমেলায় প্রকাশিত হয়েছে সাংবাদিক রাজু আহমেদের বই ‘একান্ত আলাপে সৈয়দ আবুল মকসুদ’। সদ্য প্রয়াত সাংবাদিক, গবেষক, প্রাবন্ধিক সৈয়দ আবুল মকসুদের সাক্ষাৎকারভিত্তিক বইটি প্রকাশ করেছে পালক পাবলিশার্স (স্টল নম্বর ২৮৪-২৮৬)।

২০০৪ সালে প্রথাবিরোধী লেখক অধ্যাপক হুমায়ুন আজাদের উপর নৃশংস হামলার পর সৈয়দ আবুল মকসুদ একটি প্রতিবাদী কলাম লিখে তৎকালীন সরকারের রোষানলে পড়েন। তাঁর কর্মস্থল বাসসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাঁকে ডেকে লেখাটি প্রত্যাহার করে দুঃখ প্রকাশ এবং পরবর্তীতে এ ধরনের লেখা থেকে বিরত থাকতে বলেন।  আপত্তিকর এই নির্দেশ না মেনে স্বাধীন মত প্রকাশের স্বার্থে তিনি বাসসের চাকরি ছেড়ে দেন। অন্যায়ের কাছে মাথা নত না করে চাকরিকে তুচ্ছ করার এমন নজির বাংলাদেশের সাংবাদিকতায় বিরল।
সেই প্রেক্ষাপটে সাপ্তাহিক একতার জন্য সৈয়দ আবুল মকসুদের দীর্ঘ সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন সাংবাদিক রাজু আহমেদ। একান্ত আলাপচারিতায় উঠে আসে তাঁর সামগ্রিক জীবন-দর্শন, আর্থ-সামাজিক-রাজনৈতিক ভাবনা, লেখালেখিসহ পরবর্তী কর্মপরিকল্পনা। 
২০০৪ সালে সাক্ষাৎকারটি নেয়া হলেও বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায়ও সৈয়দ আবুল মকসুদের আলোচনার প্রায় সবটাই বর্তমান বাস্তবতায় অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক।
‘একান্ত আলাপে সৈয়দ আবুল মকসুদ’ বইটির মূল্য ১২৫ টাকা। একুশে গ্রন্থামেলায় সোহরাওয়র্দাী উদ্যানে পালক পাবলিশার্সের ২৮৪, ২৮৫ ও ২৮৬ নম্বর স্টলের পাশাপাশি বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গনে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির স্টলেও বইটি পাওয়া যাবে। রকমারিডটকমের মাধ্যমেও বইটি সংগ্রহ করা যাবে।
বইটির লেখক রাজু আহমেদ বর্তমানে বেসরকারী টেলিভিশন চ্যানেল জিটিভিতে বার্তা সম্পাদক হিসেবে কর্মরত। বিভিন্ন সময়ে কাজ করেছেন সাপ্তাহিক একতা, খবরের কাগজ, সাপ্তাহিক ২০০০, পাক্ষিক ক্রীড়াজগত, দৈনিক আজকের কাগজ, বৈশাখী টিভি, দৈনিক সংবাদপত্র, শেয়ারবিজ, ভোরের ডাক এবং দৈনিক জনকণ্ঠে। সাংবাদিকতার পাশাপাশি আর্থ-সামাজিক বিভিন্ন বিষয়ে লেখালেখি করছেন। সাংবাদিকতায় প্যানোস সাউথ এশিয়া ফেলোশিপ ২০০৬, জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিল (ইউএনএফপিএ) অ্যাওয়ার্ড ২০০৭, এফপিএবি সাংবাদিকতা পুরস্কার ২০০৮, ইআরএফ অ্যাওয়ার্ড ২০১১, ২০১৮ ও ২০২০, পরিবার পরিকল্পনা রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড ২০১১, ২০১৯ ও ২০২০, সিএসএফ-ফ্রেড হলোস ফাউন্ডেশন ফেলোশিপ অ্যাওয়ার্ড ২০১৩, ডিআরইউ-গ্রামীনফোন বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড ২০১৪ এবং ইন্টারন্যাশনাল এইডস সোসাইটি (আইএএস) স্কলারশিপ ২০১৮ লাভ করেন।
রাজু আহমেদ পেশাগত কাজের পাশাপাশি সংগঠক হিসেবে সাংবাদিকদের কল্যাণে ভূমিকা রাখার চেষ্টা করছেন। তিনি ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করেন।



সাতদিনের সেরা