kalerkantho

শুক্রবার । ২০ চৈত্র ১৪২৬। ৩ এপ্রিল ২০২০। ৮ শাবান ১৪৪১

ড. আবদুল কাবিল খানের লেখা ‘মোবাইল জার্নালিজম: সময়ের সাংবাদিকতা’

বইমেলায় মোবাইল জার্নালিজম নিয়ে বই

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৪:০৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বইমেলায় মোবাইল জার্নালিজম নিয়ে বই

সাংবাদিকতা পেশায় মোবাইল ফোন ব্যবহারে উপযুক্ত অ্যাপ এবং আনুষঙ্গিক উপকরণের সংখ্যা বাড়তে থাকায় মূল ধারার সাংবাদিকতার গতি প্রকৃতি বদলে গেছে। মোবাইল সাংবাদিকতার তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক প্রয়োগ- এই দুইয়ের সমন্বয়ে ‘মোবাইল জার্নালিজম: সময়ের সাংবাদিকতা’ বইটি লিখেছেন ড. আবদুল কাবিল খান।

লেখক জানিয়েছেন, একজন সাংবাদিক মোবাইল ফোন ব্যবহার করে কীভাবে হয়ে উঠতে পারেন মোবাইল সাংবাদিক, আর এ জন্য তাঁর করণীয়ই বা কী- এমন খুঁটিনাটি বিষয় জানার সহায়ক বই এটি।

মোবাইল সাংবাদিকতা শেখার জন্য বইটিতে ব্যবহারিক বিষয়গুলির ওপর বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। সাংবাদিকতার কাজে কোন মোবাইল অ্যাপ বেশি কার্যকরী, এর বৈশিষ্ট্য ও ফিচার, ভিডিও রেকর্ডের কৌশল, লাইভ ভিডিও সম্প্রচার, ছবি তোলা ও সম্পাদনা এসবের পাশাপাশি মোবাইল সাংবাদিকতার জন্য দরকারি সরঞ্জামেপ পরিচিতি সবিস্তারে তুলে ধরা হয়েছে বইটিতে। গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী, গণমাধ্যম কর্মী, ইউটিউবার, ব্লগার, নাগরিক সাংবাদিক, এনজিও কর্মীদের মোবাইল সাংবাদিকতা শিখতে সহায়ক ভুমিকা রাখবে।

লেখক আবদুল কাবিল খান বর্তমানে ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ (ইউল্যাব) এর মিডিয়া স্টাডিজ ও জার্নালিজম বিভাগের সহকারী অধ্যাপক। শিক্ষকতার পাশাপাশি সাংবাদিক ও গণমাধ্যম উন্নয়ন নিয়ে গবেষণার কাজে যুক্ত আছেন। ২০১৪ সাল থেকে ২০১৭ সালের জুন পর্যন্ত তিনি পিপলস ফ্রেন্ডশিপ ইউনিভার্সিটি অব রাশিয়ার গণযোগাযোগ বিভাগে শিক্ষক হিসাবে নিয়োজিত ছিলেন। ২০১৭ সালে তিনি দৈনিক প্রথম আলোর ডিজিটাল বিভাগে মোবাইল জার্নালিজম স্পেশালিষ্ট হিসেবে যোগ দেন। এরপর থেকে বিভিন্ন গণমাধ্যমের সংবাদকর্মী, বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক, শিক্ষার্থী এবং বিভিন্ন আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থার কর্মীদের হাতে-কলমে মোবাইল সাংবাদিকতার ওপর প্রশিক্ষণ দেন তিনি।

কাবিল খানের জন্ম ও বেড়ে ওঠা বরিশাল নগরীতে। গণমাধ্যমে পরিচিত জামিল খান নামে। উদয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এসএসসি এবং অমৃত লাল দে মহাবিদ্যালয় থেকে এইচএসসি পাস করেন। মস্কোর পিপলস ফ্রেন্ডশিপ ইউনিভার্সিটি অব রাশিয়া থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতক, মাস্টার্স ও পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন তিনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা