kalerkantho

শুক্রবার । ১৯ জুলাই ২০১৯। ৪ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৫ জিলকদ ১৪৪০

কোন অংশের কী কাজ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ নভেম্বর, ২০১৮ ১২:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কোন অংশের কী কাজ

ফ্রেম : স্টিল, অ্যালুমিনিয়াম বা সংকর ধাতুর ফ্রেম মোটরসাইকেলের ইঞ্জিন এবং গিয়ারবক্সের কঙ্কাল বা কাঠামো হিসেবে কাজ করে।

সাসপেনশন : স্প্রিংয়ের তৈরি খুব শক্তিশালী অংশটি মোটরসাইকেলের চাকাকে ভূমির সঙ্গে আটকে রাখে এবং আরোহীকে ঝাঁকুনি থেকে বাঁচায়।

ফর্ক : সামনের চাকা ফর্কের সঙ্গে আটকানো থাকে। এটি সাসপেনশনকে ঝাঁকুনির হাত থেকেও বাঁচায়।

ব্যাটারি : ব্যাটারি মোটরসাইকেলের ইঞ্জিনে এবং অন্যান্য অংশে বৈদ্যুতিক শক্তি জোগায়। অধিকাংশ মোটরসাইকেলে ব্যাটারি থাকে আরোহীর সিটের নিচে।

ইঞ্জিন : জ্বালানি ও বাতাসের দহনের মাধ্যমে মূলত ইঞ্জিন চলে। ইঞ্জিনের পিস্টন ওঠানামা করে বায়ু ও জ্বালানির মিশ্রণজনিত বিস্ফোরণের কারণে। এরপর পিস্টনের সেই গতিশক্তি ক্র্যাংক শ্যাফটে স্থানান্তরিত হয়।

ট্রান্সমিশন : ট্রান্সমিশন মোটরসাইকেলের পেছনের চাকা ঘোরায়। যার কারণে ক্র্যাংক শ্যাফটের গতি চাকায় স্থানান্তরিত হয়। গিয়ারের মাধ্যমে এটি নিয়ন্ত্রিত হয়। গতিবেগ কমানো-বাড়ানোর জন্য এখানে চার থেকে ছয় ধরনের গিয়ার থাকে।

চাকা : মোটরসাইকেলের চাকার মূল কাঠামো সাধারণত অ্যালুমিনিয়াম ও স্টিলরিমের তৈরি হয়। এর চারপাশের টায়ার মোটরসাইকেলকে ভূমি আঁকড়ে থাকতে সাহায্য করে।

ব্রেক : সামনের ও পেছনের চাকার জন্য মোট দুটি ব্রেক আছে। ডান হাতের গ্রিপ সামনের ব্রেক লিভার আর বাঁ হাতের গ্রিপ পেছনের ব্রেক লিভার নিয়ন্ত্রণ করে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা