kalerkantho

সোমবার। ১৯ আগস্ট ২০১৯। ৪ ভাদ্র ১৪২৬। ১৭ জিলহজ ১৪৪০

মোটরসাইকেলের চাকা দুটো ঠিক আছে তো?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ মার্চ, ২০১৭ ২০:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মোটরসাইকেলের চাকা দুটো ঠিক আছে তো?

আপনার মোটরসাইকেলে যে চাকা দুটো লাগানো রয়েছে তা যানটির পারফরমেন্সের ওপর সামঞ্জস্য করেই দেওয়া হয়েছে। এ বাহনের হ্যান্ডলিং, ব্রেকিং, স্থায়ীত্ব এবং আরামের কথা বিবেচনা করেই টায়ারের ডিজাইন করা হয়। নিরাপত্তার সঙ্গে মোটরসাইকেল চালাতে হলে দুটো চাকার আকার ও ধরন নির্মাতার নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যবহার করতে হবে। এগুলো ভালো অবস্থায় থাকতে হবে। এদের স্ফীতি এবং ঘনত্বও হবে যতটুকু প্রয়োজন ততটুকুই।

সঠিক স্ফীতির টায়ার নিখুঁত হ্যান্ডলিং, চাকার সহন ক্ষমতা ও আরামের সঙ্গে মোটরসাইকেল চালানোর বিষয়টি নিশ্চিত করে। চাকার স্ফীতি সঠিক না হলে এটা বাইক চালনাকে বাধাগ্রস্ত করে। নিয়ন্ত্রণ হারানোর সম্ভাবনা রয়েছে। এ ছাড়া এসব টায়ার হুইলকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। এই মোটরসাইকেল নিয়ে সামান্য এবড়ো-খেবড়ো রাস্তাতেও চলতে পারবেন না।

তাই টায়ারের অবস্থা ও এর এয়ার প্রেসার (বাসাতের চাপ) পরীক্ষা করতে হবে। সেই সঙ্গে দেখতে হবে টায়ারের ট্রেড এবং সাইড ওয়াল কী অবস্থায় রয়েছে। চাকার একেবারে কার্নিশের অবস্থা ভালো না হলেও কিন্তু বিপদ।

তাই প্রতিদিনই দেখে নিন-
১. চাকায় শক্ত কিছু দিয়ে জোরে আঘাত করুন। ট্রেড এবং কোণায় আঘাত করুন। যদি দেখেন, এই আঘাতে টায়ার বসে যাচ্ছে তবে তা বদলানো জরুরি।

২. দুই চাকায় একটা ব্লেড দিয়ে হালকা করে কেটে দেখুন। যদি এর ভেতরে সুতার মতো দেখা যায় তো চাকা বদলানোর সময় হয়ে গেছে।

৩. চাকায় অনেক বেশি সুতা দেখা গেলে সাবধান হয়ে যান। রাস্তায় চলার সময় শক্ত কিছুতে চাকা বড় ধরনের আঘাত পেলে বা কিছু ঢুকে গেলে সঙ্গে সঙ্গে মোটরসাইকেল থামিয়ে পরীক্ষা করুন। কিছু ঢুকে গেলে বের করে ফেলুন। দেখুন কতটা ক্ষতি হয়েছে।

৪. চাকা কতটা ক্ষয়ে গেছে তা বোঝার জন্য ওয়্যার ইন্ডিকেটর রয়েছে। যদি এটা দেখা যায় তবে চাকা খুব দ্রুত বদলাতে হবে। গাণিতিক হিসাবে নূন্যতম ট্রেড ডেপথ ১.০ হলেই বদলাতে হবে। সূত্র: হিরো মোটর কর্পোরেশন

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা