kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৭ জুন ২০১৯। ১৩ আষাঢ় ১৪২৬। ২৩ শাওয়াল ১৪৪০

রূপচর্চা

ভাবিয়া কাটিও চুল

চুলের কাট তো হতে হবে আপনার সঙ্গে মানানসই। না বুঝে কাট নিলে আপনি সুন্দরের বদলে হয়ে যেতে পারেন কিম্ভূত। ব্যক্তিত্ব ও চেহারার গড়ন বুঝে বেছে নিন চুলের কাট। রেড বিউটি স্যালনের আফরোজা পারভিনের পরামর্শ জানাচ্ছেন নাঈম সিনহা

৬ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ভাবিয়া কাটিও চুল

একটু ভাবুন

তারকা কিংবা বন্ধুর চুলের নতুন কাট পছন্দ হলেই হুট করে নিজেও সেভাবে চুল কাটার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন। কিন্তু সেটি আপনার সঙ্গে কতটা জুতসই হবে ভেবে দেখেছেন কি? চুলের কাটে পরিবর্তন এলে বদলে যায় পুরো লুকটাই। তাই চুল কাটার আগে নিজের সঙ্গে বেশ একটা বোঝাপড়া করে নেওয়া ভালো। ভুল কাটে নিজেকে আয়নার সামনে দেখার চেয়ে বড় বিড়ম্বনা আর কী হতে পারে। একেবারে নতুন কোনো হেয়ার স্টাইল চাইলে সবার আগে ভাবুন পরিবর্তনটি আপনার সঙ্গে কতটুকু মানাবে। তারপর সিদ্ধান্ত নিন। ব্যক্তিত্ব, পেশা, বয়স, চুলের গড়ন ইত্যাদি মাথায় রেখে তবেই লুক পরিবর্তন করা উচিত। অনেক বড় চুলে হুট করে খুব বেশি ছোট কাট না করে মাঝারি দৈর্ঘ্যের কাট বেছে নিন। সবচেয়ে ভালো হয় নতুন কোনো হেয়ার কাট দেওয়ার আগে একজন বিশেষজ্ঞের সঙ্গে পরামর্শ করে নিলে। তাতে বিপত্তির আশঙ্কা কম।

 

মুখের সঙ্গে মানিয়ে

যাদের লম্বাটে মুখ তারা কপাল পর্যন্ত ব্যাংস বা ফ্রিজ কাট করতে পারেন। চেহারার লম্বাটে ভাবটা কম বোঝা যাবে। চওড়া কপাল হলেও অনেকটাই ঢাকা পড়বে। বড় বা চওড়া কপালে পিক্সি কাটও ভালো দেখায়। সামনে ব্যাংস বা পিক্সি দিয়ে পেছনের চুলে ইউ, স্ট্রেইট বা লেয়ার কাট দিতে পারেন। গোলাকৃতির মুখে ব্যাংস বা ফ্রিজ কাট একেবারেই মানাবে না। তাদের কাটের ক্ষেত্রে চুলের ভলিউম লেয়ার বেছে নিতে পারেন। ডিম্বাকৃতির মুখে যেকোনো হেয়ার কাট ভালো মানায়। চৌকাকৃতির মুখের জন্য চেহারার গড়ন ঢেকে যায়—এমন কাট বেছে নিতে হবে, মুখের কোণগুলো যাতে চুল দিয়ে ঢাকা পড়ে। লং লেয়ার কাট এ ক্ষেত্রে ভালো মানাবে। ব্যাংস চাইলে চুল অবশ্যই চোয়ালের নিচ পর্যন্ত আসতে হবে। কপাল পর্যন্ত হলে চলবে না। মূলত চোয়াল থেকে লেয়ার শুরু হলেই ভালো দেখাবে। গলার উচ্চতা একটু কম হলে ছোট চুলের কাট ভালো দেখাবে। আর গলা লম্বা হলে বড় বা ছোট যেকোনো হেয়ার কাটেই দেখতে ভালো লাগবে।

 

ধরন বুঝে

নতুন লুকের নিরীক্ষায় চুলের ঘনত্ব ও গঠনও বেশ গুরুত্বপূর্ণ। কোঁকড়ানো চুলে লেয়ার কাট দিলে কাটের সৌন্দর্য বোঝা যাবে না। ঠিক একইভাবে যাদের চুল স্ট্রেট, তাদের নানা রকম লেয়ার কাটে ভালো দেখাবে। যাদের চুল হালকা ঢেউ খেলানো, তারা দিতে পারেন ভলিউম লেয়ার। লম্বা চুলের জন্য স্ট্রেইট, ইউ, ভি, লং লেয়ার, স্টেপ, ভলিউম লেয়ারের মতো কাটগুলো বেশি মানাবে। ছোট চুলের জন্য বেছে নিন ক্রু কাট ও ক্লাসিক কাট। চুল পাতলা, ঘনত্ব কম হলে ভলিউম লেয়ারে কেটে ফেলতে পারেন। চুল ভারী হলে অলওভার লেয়ার করা যায়।

 

রঙিন চুল চাইলে

নতুন হেয়ার কাটের সঙ্গে অনেকেই চুলে নতুন রং করাতে চান। এতে করে একেবারেই নতুন একটা লুক পাওয়া যায়। এ ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য। হেয়ার কাটের সঙ্গে চুলের রংও ব্যক্তিত্বের সঙ্গে মানানসই হওয়া চাই। নীল, সবুজ, লাল, ম্যাজেন্টা, বেগুনি ইত্যাদি চড়া রং এখন চুলের আগাতে লাগানোর ট্রেন্ড চলছে। এত চড়া রং না চাইলে চাইলে পুরো চুলেই মানানসই কোন রং করে নিন। অথবা গুচ্ছ গুচ্ছ চুল নিয়ে হাইলাইট করতে পারেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা