kalerkantho

সোমবার। ১৭ জুন ২০১৯। ৩ আষাঢ় ১৪২৬। ১৩ শাওয়াল ১৪৪০

তিন উপজেলায় হামলা-সংঘর্ষে আহত ১৬

বরগুনা, রাজবাড়ী ও ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি   

৩১ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তিন উপজেলায় হামলা-সংঘর্ষে আহত ১৬

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে প্রতিপক্ষের হামলায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর গাড়ি ভাঙচুরের প্রতিবাদে গতকাল সড়ক অবরোধ করে কর্মীরা। ছবি : কালের কণ্ঠ

বরগুনা আমতলী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে এক ইউপি চেয়ারম্যানসহ চারজন আহত হয়েছে। পরে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শনিবার সকাল ১১টার দিকে আমতলীর গুলিশাখালী ইউনিয়নের বাইনবুনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে গুলিশাখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলামকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আমতলী থানার ওসি আবুল বাশার জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দির চর আড়কান্দিতে প্রতিপক্ষের হামলায় পাঁচজন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় ১১ জনকে আসামি করে বালিয়াকান্দি থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। পুলিশ দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে। মামলার বাদী জাহাঙ্গীর শেখ জানান, বালিয়াকান্দি উপজেলা পরিষদের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে বাড়িতে প্রবেশ করে তাকেসহ তাঁর পরিবারের চার সদস্যকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে আসামিরা।

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষ প্রার্থীর গাড়ি ও সমর্থকদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। স্বতন্ত্র প্রার্থী এহসান আব্দুল্লাহ অভিযোগ করেন, আনারস প্রতীকের প্রার্থী আরিফ হোসেনের সমর্থকরা তাঁর গাড়ি বহরে হামলা চালিয়েছে। অন্যদিকে আনারস প্রতীকের প্রার্থী আরিফ হোসেন অভিযোগ করেন, শুক্র ও শনিবার দুই দিনে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শহিদুল ইসলাম লেবুর সমর্থকরা তাঁর নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর করেছে। এসব ঘটনায় অন্তত সাতজন আহত হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা