kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

রিজভী বললেন

খালেদা জিয়াও সেই রাতে ঘুমাননি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০২:১৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



খালেদা জিয়াও সেই রাতে ঘুমাননি

রুহুল কবীর রিজভী। ফাইল ছবি

বিএনপির নেতা রুহুল কবীর রিজভী বলেছেন, ‘অগ্নিকাণ্ডের সারা রাত চারদিকে বিকট শব্দ, মানুষের আর্তচিৎকার, রাসায়নিক বিস্ফোরণের বিকট শব্দ গ্রাস করেছিল আশপাশের এলাকা। অল্প দূরত্বে ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তাঁর সারা রাত উত্কণ্ঠায় কেটেছে। সেই রাতে তিনি ঘুমাননি। আর আমরা উত্কণ্ঠা নিয়ে আল্লাহর কাছে তাঁর নিরাপত্তার জন্য দোয়া করেছি।’ গতকাল রবিবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এ কথা বলেন।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রিজভী বলেন, ‘দুর্ঘটনাস্থল থেকে দেশনেত্রীর কারা প্রকোষ্ঠের দূরত্ব মাত্র দেড় শত থেকে দুই শত মিটার। শুধু প্রতিহিংসার লেলিহান অনলে দগ্ধ শেখ হাসিনা অবৈধ ক্ষমতার জোরে এমন একটি কেমিক্যাল বিস্ফোরকবেষ্টিত ভয়ংকর বারুদের ডিপোর মাঝখানে দেশনেত্রীকে এক বছর বন্দি রেখেছেন।’ খালেদা জিয়াকে কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারের স্থানান্তর করা হতে পারে—সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে রিজভী বলেন, ‘আমাদের বক্তব্য হচ্ছে, এই মুহূর্তে দেশনেত্রীকে মুক্তি দিতে হবে। এ নিয়ে কোনো ধরনের ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত চলবে না।’

ওই দিন রাতে যানজটের কারণে ফায়ার ব্রিগেডের গাড়ি ঢুকতে বাধাগ্রস্ত হয় দাবি করে বিএনপির এই নেতা বলেন, সেদিন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শহীদ মিনারের কর্মসূচির কিছুটা পরিবর্তন করে প্রশাসনকে আগুন নেভানোর কাজে সর্বাত্মক চেষ্টার নির্দেশ দেওয়া উচিত ছিল।’ তিনি আরো বলেন, ‘সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের শুক্রবার ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে গিয়ে সাংবাদিকদের কাছে স্বীকার করেছেন সরকার চকবাজার ট্র্যাজেডির দায় এড়াতে পারে না। আমি সরকারকে বলব, এই ঘটনার দায় যেহেতু স্বীকার করেছেন, এখন পদত্যাগ করুন।’

চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার সঙ্গে বিএনপির সংশ্লিষ্টতা আছে কি না, খুঁজে দেখা হবে—তথ্যমন্ত্রীর এ রকম বক্তব্য দিয়েছেন উল্লেখ করে রিজভী বলেন, ‘এ রকম তথ্য যখন তাঁর (মন্ত্রী) কাছে থাকে তাঁকে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা-এনএসআইয়ের প্রধান করে দিন।’ 
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্য খণ্ডন করে শনিবার তথ্যমন্ত্রী হাসান মাহমুদের দেওয়া বক্তব্যের জবাবে রিজভী আরো বলেন, ‘চকবাজারে আগুনের সঙ্গে গণতন্ত্রের কী সম্পর্ক, তা আমি জানি না। তবে পেট্রলবোমার মতো এটির সঙ্গেও তাদের কোনো সংশ্লিষ্টতা আছে কি না, তা খতিয়ে দেখা প্রয়োজন।’

সংবাদ সম্মেলনে দলের নেতা আহমেদ আজম খান, শওকত মাহমুদ, আমিরুল ইসলাম খান আলিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা