kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৪ অক্টোবর ২০১৯। ৮ কাতির্ক ১৪২৬। ২৪ সফর ১৪৪১       

বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সংবাদ সম্মেলন

ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠায় ১৮ ফেব্রুয়ারি বিক্ষোভ কর্মসূচী ঘোষণা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৮:০৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠায় ১৮ ফেব্রুয়ারি বিক্ষোভ কর্মসূচী ঘোষণা

বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ভোট জালিয়াতির পর নির্বাচন কমিশন ও নির্বাচনী ব্যবস্থার বিশ্বাসযোগ্যতা পুরোপুরি নষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনসহ স্থানীয় সরকারের নির্বাচনও জাতীয় নির্বাচনের মত অর্থহীন ও অকার্যকরি হয়ে পড়েছে। নির্বাচনের নামে এসব তামাশায় অর্থ ব্যয় ও সময় ব্যয় ছাড়া আর কিছু নয়।

আজ সোমবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি করে জনগণের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠায় ১৮ ফেব্রুয়ারি দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়েছে। কর্মসূচী ঘোষণা করেন পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক। এসময় উপস্থিত ছিলেন পার্টির রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য বহ্নিশিখা জামালী, আকবর খান, আবু হাসান টিপু, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোফাজ্জল হোসেন মোশতাক, সজীব সরকার রতন, কেন্দ্রীয় সংগঠক ইমরান হোসেন প্রমুখ। 

সংবাদ সম্মেলনে আসন্ন উপজেলা পরিষদ র্নিাচন প্রত্যাখান ও বর্জনের ঘোষণা দিয়ে সাইফুল হক বলেন, ৩০ ডিসেম্বরের অভূতপূর্ব জালিয়াতি আর ভোট ডাকাতির মধ্য দিয়ে রাষ্ট্রের ন্যূনতম রাজনৈতিক ভারসাম্য ধ্বংস করে এক নিরঙ্কুশ একদলীয় স্বৈরতান্ত্রিক ব্যবস্থার উত্থান ঘটেছে। শাসকশ্রেণীর মধ্যকার গত কয়েক দশকের দ্বি-দলীয় রাজনৈতিক ব্যবস্থারও অবসান ঘটানো হয়েছে। রাষ্ট্রীয় বাহিনী ও প্রতিষ্ঠানসমূহের পেশাদারি নিরপেক্ষতা নষ্ট করে সরকারি দল ও জোটের ভোট জালিয়াতি ও ভোট ডাকাতির সহযোগিতে পরিণত করা হয়েছে। অনাকাঙ্খিতভাবে শাসকদলের ক্ষমতায় টিকে থাকার সাথে এদের অস্তিত্ব ও ক্ষমতাকে যুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। ভোটের নামে এক ধরনের প্রশাসনিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়ে গোটা রাষ্ট্র ব্যবস্থাকে জনগণের মুখোমুখি দাঁড় করানো হয়েছে। এই অবস্থায় তিনি জনগণের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনের পাশাপাশি গণতান্ত্রিক ও ক্ষমতাসম্পন্ন স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন এগিয়ে নেবার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা