kalerkantho

শনিবার । ২০ আগস্ট ২০২২ । ৫ ভাদ্র ১৪২৯ । ২১ মহররম ১৪৪৪

পবিত্র কোরআনে চতুষ্পদ জন্তুর বর্ণনা

সাআদ তাশফিন   

২৯ মে, ২০২২ ১৪:০২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পবিত্র কোরআনে চতুষ্পদ জন্তুর বর্ণনা

মহান আল্লাহ এই পৃথিবীকে অসংখ্য অগণিত নিয়ামত দিয়ে সাজিয়েছেন সৃষ্টির সেরা জীব মানুষের জন্য। আর মানুষকে সৃষ্টি করেছেন তাঁর ইবাদতের জন্য। এবং প্রতিটি সৃষ্টির মধ্যে মহান আল্লাহ মানব জাতির জন্য অসংখ্য নিদর্শন, উপদেশ রেখে দিয়েছেন। মহান রবের এসব সুনিপুণ সৃষ্টি নিয়ে কেউ ভাবলে তার ঈমান আরো দৃঢ় ও মজবুত হবে।

বিজ্ঞাপন

যেমন—চতুষ্পদ জন্তুর কথাই ধরা যাক। মহান আল্লাহ পৃথিবীতে বহু রকমের চতুষ্পদ জন্তু সৃষ্টি করেছেন। এর মধ্যে কিছু জন্তুকে বানিয়েছেন মানুষের খাদ্য চাহিদা পূরণের জন্য, আবার কিছু জন্তু বাহন হিসেবে ব্যবহারের জন্য, কিছু জন্তু পাহারার কাজে নিয়োজিত থাকার জন্য, আবার কিছু জন্তু বিভিন্ন ওষুধ ইত্যাদির চাহিদা জোগানোর জন্য। এককথায় মহান আল্লাহর পৃথিবী সৃষ্টির কোনো না কোনো উপকারিতা ও কার্যকারিতা রয়েছে। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় তাদের অবদান রয়েছে।

মহান আল্লাহ ছোট-বড়, হিংস্র-শান্ত সব প্রাণীকেই মানুষের অনুগত হতে বাধ্য করেছেন। পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘আমি এগুলো তাদের বশীভূত করে দিয়েছি। এগুলোর কতক তাদের বাহন আর কতগুলো তারা আহার করে। ’ (সুরা ইয়াসিন, আয়াত : ৭২)

কিছু চতুষ্পদ জন্তুর দুধ মানুষের জন্য বেশ উপকারী। মানুষের পুষ্টির চাহিদা পূরণে এর ভূমিকা অপরিসীম। মহান আল্লাহ চতুষ্পদ জন্তুর পেটের মধ্য থেকে গোবর, রক্ত ইত্যাদি জিনিস থেকে আলাদা করে বিশুদ্ধ দুধ বের করে আনেন। এর মধ্যেও রয়েছে মহান আল্লাহর সৃষ্টির বিস্ময়কর নিদর্শন। পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘অবশ্যই গবাদি পশুর মধ্যে তোমাদের জন্য শিক্ষা রয়েছে। তাদের উদরস্থিত গোবর ও রক্তের মধ্য থেকে তোমাদের পান করাই বিশুদ্ধ দুধ, যা পানকারীর জন্য সুস্বাদু। ’ (সুরা নাহল : ৬৬)

সুবহানাল্লাহ! এ ছাড়া চতুষ্পদ জন্তুর চামড়া ও পশম থেকেও মানুষ বিভিন্নভাবে উপকৃত হয়। সে বিষয়ে আল্লাহ বলেন, ‘আল্লাহ তোমাদের জন্য পশুর চামড়ার তাঁবুর ব্যবস্থা করেন, তোমরা ভ্রমণকালে ও অবস্থানকালে তাকে সহজ মনে করো। আর তিনি তোমাদের জন্য ব্যবস্থা করেন এগুলোর পশম, লোম ও কেশ থেকে ক্ষণস্থায়ী গৃহসামগ্রী ও ব্যবহার্য উপকরণ। ’ (সুরা নাহল, আয়াত : ৮০)

আধুনিক যুগে পশুর চামড়া দিয়ে মানুষের জন্য অভিজাত পোশাক তৈরি হয়, পাদুকা, ব্যাগ, বেল্টসহ নানা নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস তৈরি হয়। এমনকি চতুষ্পদ জন্তুর দাঁত ও হাড় দিয়েও বিভিন্ন আসবাব তৈরি করা হয়। সুস্বাদু খাদ্য হিসেবে আমিষজাতীয় খাবারের জুড়ি নেই।

মরু কিংবা দুর্গম পাহাড়ি অঞ্চলে পরিবহনের জন্য এখনো চতুষ্পদ জন্তু ব্যবহার করা হয়। আল্লাহ বলেন, ‘আল্লাহই তোমাদের আরোহণ ও আহারের জন্য বহু পশু সৃষ্টি করেছেন। তোমরা তা আহার করে থাক এবং এগুলোর ওপর মালামাল বহন করিয়ে থাক। (সুরা মুমিন, আয়াত : ৭৯)

এভাবে মহান আল্লাহ তাঁর অসংখ্য অগণিত নিয়ামত দ্বারা আমাদের আচ্ছাদিত করে রেখেছেন। তাঁর সমগ্র সৃষ্টিকে মানুষের সেবায় নিয়োজিত করেছেন। আমাদের উচিত, আমরা আমাদের জীবনকে মহান আল্লাহর নির্দেশিত পথে পরিচালিত করে মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করা। আল্লাহ সবাইকে তাওফিক দান করুন। আমিন।



সাতদিনের সেরা