kalerkantho

রবিবার । ২৬ মে ২০১৯। ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২০ রমজান ১৪৪০

পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক

সিনিয়র অফিসারের ৬৫ পদ খালি রাখার নির্দেশ হাইকোর্টের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ মার্চ, ২০১৯ ০৩:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিনিয়র অফিসারের ৬৫ পদ খালি রাখার নির্দেশ হাইকোর্টের

পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের ২৭৮টি সিনিয়র অফিসার পদের মধ্যে ৬৫টি পদ খালি রাখার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সরকারের ‘একটি বাড়ি একটি খামার’ প্রকল্পে কর্মরত উপজেলা সমন্বয়কারীদের জন্য এই পদ খালি রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর হাইকোর্ট বেঞ্চ গত সোমবার এই আদেশ দেন। অন্তর্বর্তীকালীন এই নির্দেশনার পাশাপাশি রুল জারি করেন আদালত। রুলে পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের ২৭৮টি সিনিয়র অফিসার পদে নিয়োগের জন্য জারি করা বিজ্ঞপ্তি কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চাওয়া হয়েছে। নির্দেশনায় রিট আবদেনকারীদের জন্য ৬৫টি পদ খালি রাখতে বলা হয়েছে।

পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের ২৭৮টি সিনিয়র অফিসার পদে নিয়োগের জন্য গত ৪ জানুয়ারি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। ওই বিজ্ঞপ্তি চ্যালেঞ্জ করে একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের ৬৫ জন উপজেলা সমন্বয়কারী রিট আবেদন করেন। রিট আবেদনকারীদের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু, এম কে রহমান ও মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্যাহ মিয়া। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আল আমিন সরকার।

আদেশের পর অ্যাডভোকেট ছিদ্দিক উল্যাহ মিয়া বলেন, পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের (কর্মকর্তা-কর্মচারী) চাকরি প্রবিধানমালা ২০১৬ অনুসারে একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পে কর্মরতদের সর্বপ্রথম নিয়োগের বিধান রয়েছে। উক্ত বিধান লংঘন করে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জারি করায় এই রিট আবেদন করা হয়।

সরকার ২০০৯ সালে ‘একটি বাড়ি একটি খামার’ প্রকল্প চালু করে। ২০১৬ সালে প্রকল্পের মাঠ সহকারীদের চাকরি পল্লী উন্নয়ন সঞ্চয় ব্যাংকে স্থানান্তর করে সরকার। এরপর ওই বছরের জুলাই থেকে বেতন দেওয়া শুরু করে ব্যাংকটি। কিন্তু সরকার ওই বছরের ৩১ অক্টোবর পৃথক প্রজ্ঞাপন দিয়ে বলে যে একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প অব্যাহত থাকবে। এরপর ব্যাংকটিতে কর্মরতদের পুনরায় ওই প্রকল্পে স্থানান্তর করা হয়।

মন্তব্য