kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৪ রবিউস সানি     

গৃহকর্মী নির্যাতন মামলায় ক্রিকেটার শাহাদাত ও স্ত্রীর বিচার শুরু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১২:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গৃহকর্মী নির্যাতন মামলায় ক্রিকেটার শাহাদাত ও স্ত্রীর বিচার শুরু

শিশু গৃহকর্মী মাহফুজা আক্তার হ্যাপীকে (১১) নির্যাতনের মামলায় জাতীয় দলের ক্রিকেটার শাহাদাত হোসেন ও তার স্ত্রী নিত্য শাহাদাতের বিরুদ্ধে অভিযোগ (চার্জ) গঠন করেছেন ট্রাইব্যুনাল। আজ সোমবার অভিযোগ গঠন করেন ঢাকার পঞ্চম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক তানজিনা ইসমাইল। জামিনে থাকা মামলার দুই আসামি শাহাদাত হোসেন ও তার স্ত্রী নিত্য শাহাদাত আদালতে হাজির ছিলেন। দোষী না নির্দোষ জিজ্ঞাসা করা হলে নিজেদেরকে নির্দোষ বলে দাবি করেন তারা। নির্যাতিত গৃহকর্মী হ্যাপি তার পরিবারের সদস্যরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

গত বছরের ৬ সেপ্টেম্বর রাত ৮টার দিকে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে কালশী থেকে নির্যাতনে মারাত্মক আহত অবস্থায় মাহফুজা আক্তার হ্যাপী (১১) নামের ওই গৃহকর্মীকে উদ্ধার করে পল্লবী থানা পুলিশ। তবে ওই দিন বিকেলে শাহাদাত মিরপুর থানায় তার বাসার গৃহকর্মী হারিয়েছে বলে একটি সাধারণ ডায়েরি করেছিলেন। রাতে সাংবাদিক খন্দকার মোজাম্মেল হক বাদী হয়ে ক্রিকেটার শাহাদাত ও তার স্ত্রী নিত্যকে আসামি করে মিরপুর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

মারাত্মক আহত গৃহকর্মী হ্যাপীকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) চিকিৎসা দেওয়া হয়। গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর ঢাকার সিএমএম আদালতে শাহাদাত ও নিত্যকে আসামি করে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মিরপুর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শফিক আহমেদ। গত ৪ ফেব্রুয়ারি চার্জশিট আমলে নেন ট্রাইব্যুনাল।

গত বছরের ৩ অক্টোবর দিনগত গভীর রাত সাড়ে ৩টায় মালিবাগের পাবনা গলিতে তার বাবার বাড়ি থেকে নিত্যকে গ্রেপ্তার করে মিরপুর মডেল থানা পুলিশ। পরে ১ ডিসেম্বর নিত্যকে জামিন দেন ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল্লার আদালত। অন্যদিকে শাহাদাত গত বছরের ৫ অক্টোবর সকালে ঢাকার সিএমএম আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন জানান। এ আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠিয়ে দেন আদালত। পরে ৮ ডিসেম্বর শাহাদাতকে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত জামিন দেন হাইকোর্ট।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা