kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

কক্সবাজারে কালের কণ্ঠ পত্রিকার ১০ম জন্মদিনে বক্তারা

দেশের অগ্রযাত্রার সারথী হিসেবে কাজ করছে কালের কণ্ঠ

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার    

১০ জানুয়ারি, ২০১৯ ২৩:০৭ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



দেশের অগ্রযাত্রার সারথী হিসেবে কাজ করছে কালের কণ্ঠ

দেশের শীর্ষ দৈনিক ‘কালের কণ্ঠ’ পত্রিকার দশম জন্মদিন উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পত্রিকার উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেছেন, প্রিন্ট মিডিয়ার প্রতিযোগিতামূলক বাজারে কালের কণ্ঠ নিজ যোগ্যতায় বাংলাদেশের সংবাদ জগতে অনন্য স্থান দখল করে নিয়েছে। দেশের অগ্রগতি হচ্ছে দুর্বার গতিতে, এই অগ্রযাত্রার সারথী হিসেবে কাজ করছে কালের কণ্ঠ।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টায় কক্সবাজার প্রেসক্লাবের হলরুমে আয়োজিত দেশের শীর্ষ দৈনিক কালের কণ্ঠের দশম জন্মদিন উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। 'আংশিক নয়, পুরো সত্য' এই প্রতিপাদ্যে কালের কণ্ঠের শুভ সংঘ এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

জেলাপ্রশাসক মো. কামাল হোসেন আরো বলেন, দেশের অন্যান্য স্থানের তুলনায় কক্সবাজারে বাস্তবায়নাধীন মেগাপ্রকল্পের সংবাদ যথাযথভাবে প্রকাশ করে দৈনিক কালের কণ্ঠ পেশাদারত্বের পরিচয় দিয়েছে। এই ধারা অব্যাহত রেখে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়নে কালের কণ্ঠ জোরালো ভূমিকা রাখবে। সেই প্রত্যাশা করি।

কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও কক্সবাজার প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এ বি এম মাসুদ হোসেন, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কক্সবাজার পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার এ বি এম মাসুদ হোসেন দৈনিক কালের কণ্ঠে প্রকাশিত বিশিষ্ট কলামিস্ট আবদুল গাফ্ফার চৌধুরীর কলামের সূত্র ধরে বলেন, মানবতার কণ্ঠস্বর হোক দৈনিক কালের কণ্ঠ। তিনি বলেন, হাঁটি হাঁটি পা পা করে নয় বছর পাঠকের আস্থা নিয়ে কালের কণ্ঠ আগাচ্ছে দ্রুত গতিতে। অন্য পত্রিকাগুলোকে যেখানে চল্লিশ থেকে পঞ্চাশ বছর সময় লেগেছে পাঠকের আস্থা অর্জনে সেখানে মাত্র এক দশকেই কালের কণ্ঠ তা অর্জনে সক্ষম হয়েছে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা বলেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে দৈনিক কালের কণ্ঠের কক্সবাজার জেলার প্রতিবেদককে বলেছিলাম তিনি যেন মাদক বিশেষ করে ইয়াবার বিরুদ্ধে তাঁর ক্ষুরধার লেখনি বন্ধ না রাখেন। তিনি মাদকের বিরুদ্ধে কলম অব্যাহত রেখে বর্তমান সরকারের মাদকের প্রতি জিরো টলারেন্স নীতিকে সহায়তা করছেন। একজন রাজনৈতিক নেতা হিসেবে দৈনিক কালের কণ্ঠের প্রতি আমার সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান বলেন, সৎ, সাহসী সংবাদ পরিবেশনের কারণে দৈনিক কালের কণ্ঠ সর্বমহলে গ্রহণযোগ্যতা পেয়েছে। বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডকে জনসমক্ষে তুলে ধরার পাশাপাশি সমাজের অসঙ্গতি লেখনির মাধ্যমে তুলে ধরছে দৈনিক কালের কণ্ঠ।’ তিনি কালের কণ্ঠের উত্তরোত্তর সফলতা কামনা করেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন দৈনিক কালের কণ্ঠ কক্সবাজারের জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক তোফায়েল আহমদ। স্বাগত বক্তব্যে তিনি বলেন,  কক্সবাজার জেলার জনগুরুত্বপূর্ণ সমস্যা গুরুত্বসহকারে প্রকাশ করে চলেছে দৈনিক কালের কণ্ঠ। আমি একজন সংবাদকর্মী হিসেবে সেসব সমস্যাকে গুরুত্ব দিয়ে ভবিষ্যতের জন্য বাসযোগ্য কক্সবাজার গড়ে তুলার সংগ্রামে অবতীর্ণ। এই সংগ্রাম সফলতা করতে প্রয়োজন সবার আন্তরিক সহযোগিতা।

অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার প্রেস ক্লাবের সভাপতি মাহবুবুর রহমান, প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি বদিউল আলম, কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জাহেদ সরওয়ার সোহেল, প্রথম আলো কক্সবাজার অফিস প্রধান আব্দুল কুদ্দুস রানা, কক্সবাজার সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাম মোহন সেন, কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মো. নাসির উদ্দিন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাংবাদিক দীপক শর্মা দীপু। সবশেষে কেক কেটে পত্রিকাটির সমৃদ্ধি ও শুভ কামনা করেন অতিথিবৃন্দ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা