kalerkantho

মঙ্গলবার। ২০ আগস্ট ২০১৯। ৫ ভাদ্র ১৪২৬। ১৮ জিলহজ ১৪৪০

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

নওফেলের জন্য ভোট চাইলেন বিএসসি

ডা. শাহাদাতের পক্ষে নোমান-খসরু মাঠে

বিভিন্ন স্থানে জমজমাট নির্বাচনী প্রচার

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম    

১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৩:১০ | পড়া যাবে ৬ মিনিটে



ডা. শাহাদাতের পক্ষে নোমান-খসরু মাঠে

আওয়ামী লীগ প্রার্থী আফসারুল আমীনের গণসংযোগ (বাঁয়ে) এবং বিএনপি প্রার্থী ডা. শাহাদাতের পক্ষে আমীর খসরু-নোমানের প্রচার। ছবি : কালের কণ্ঠ

আনুষ্ঠানিক নির্বাচনী প্রচারের চতুর্থ দিনে বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগ-বিএনপিসহ বিভিন্ন দলীয় ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ব্যস্ত সময় কাটিয়েছেন। কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে গণসংযোগ চালান জোরেশোরে। বিস্তারিত নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে :

চট্টগ্রাম-৯ : কোতোয়ালী-বাকলিয়া আসনে বিএনপি প্রার্থী কারাবন্দী ডা. শাহাদাত হোসেনের নির্বাচনী প্রচারে অংশ নেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান ও স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

এ সময় আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘দেশের মানুষের গণতন্ত্র, স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব বিনষ্ট করে আওয়ামী সরকার এক দলীয় স্বৈরচারী সরকারে পরিণত হয়েছে।’

বিকেল ৪টায় কাজির দেউরি কাঁচাবাজার চত্বর থেকে শুরু করে লাভ লেইন, ডিসি হিল, নন্দনকানন এলাকায় তাঁরা কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে ডা. শাহাদাতের পক্ষে প্রচার চালান।

এদিকে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সদ্যবিদায়ী মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি চট্টগ্রাম-৯ আসনে নৌকার প্রার্থী ব্যারিস্টার মহীবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের পক্ষে প্রচারে নেমেছেন।

বৃহস্পতিবার সকালে চকবাজারের মিসকিন শাহ মাজার এলাকা থেকে নওফেলকে সঙ্গে নিয়ে তিনি প্রচার শুরু করেন। গণসংযোগে যোগ দেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীসহ বিপুলসংখ্যক সমর্থক। এ সময় বিএসসি ভোটারদের সঙ্গে নওফেলকে পরিচয় করিয়ে দিয়ে ভোট প্রার্থনা করেন। মিসকিন শাহ মাজার হয়ে চকবাজার, গুলজার মোড়, তেলিপট্টি মোড়, কাপাসগোলা এলাকায় প্রচার চালান বিএসসি-নওফেল।

চট্টগ্রাম-১১ : তরুণ সমাজ বিএনপির পক্ষে আছে বলে দাবি করেছেন বিএনপির প্রার্থী আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১০টার দিকে নগরের চৌমুহনী ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে নির্বাচনী প্রচারে তিনি এ দাবি করেন।

পরে তিনি চৌমুহনী খানবাড়ির সামনে থেকে গণসংযোগ শুরু করেন। এ সময় ভোটারদের কাছে ধানের শীষ মার্কায় ভোট চান তিনি। তাঁর সঙ্গে ছিলেন বিএনপি নেতা শফিকুর রহমান স্বপন, নগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এইচ এম রাশেদ খান, ডবলমুরিং থানা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক জাহেদ, সাহাব উদ্দিন, জসিমসহ ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের অনেক নেতাকর্মী।

চট্টগ্রাম-১০ : নগরের সরাইপাড়া, পাহাড়তলী ও খুলশীর বিভিন্ন এলাকায় প্রচার চালিয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী ডা. আফসারুল আমীন। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে  সরাইপাড়া ওয়ার্ডে প্রচার শুরু করেন তিনি। সকালে সরাইপাড়া ও পাহাড়তলী এলাকার সিগন্যাল কলোনি, সিডিএ মার্কেট, কান্তাপুকুর পাড়, আশরাফ আলী রোড ও ডিটি রোড এবং বিকেলে টাইগারপাস, আমবাগান, ফ্লোরাপাস রোডে প্রচার চালান আফছারুল আমীন।

এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন পাহাড়তলী থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক অধ্যাপক মো. আসলাম, সরাইপাড়া ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক নুরুল আমিন, যুগ্ম আহ্বায়ক কাউন্সিলর সাবের আহমেদ, যুগ্ম আহ্বায়ক শওকত আলী, লুত্ফুল কবির খুশি প্রমুখ।

এদিকে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও এই আসনে দলীয় প্রার্থী আবদুল্লাহ আল নোমান বলেছেন, ‘সরকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবহার করে নির্বাচনকে প্রহসনে পরিণত করে ক্ষমতা কুক্ষিগত করার ষড়যন্ত্র করছে।’

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় শুলকবহর ওয়ার্ডে গণসংযোগ শুরুর প্রাক্কালে আবদুল হামিদ সড়কে সমবেত এলাকাবাসী ও বিএনপি নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি এ কথা বলেন।

সমাবেশ শেষে নোমান শুলকবহর ওয়ার্ডের আবদুল লতিফ সড়ক, মির্জাপুল, শেখ বাহারুল্লাহ লেন এলাকায় গণসংযোগ করেন।

চট্টগ্রাম-৮ : বিএনপি প্রার্থী আবু সুফিয়ান বলেছেন, ‘জনকল্যাণের জন্যই আমার রাজনীতি।’ তিনি বৃহস্পতিবার বিকেলে চান্দগাঁও ওয়ার্ড এলাকায় ধানের শীষের পক্ষে গণসংযোগকালে এ কথা বলেন। এ সময় তিনি ওয়ার্ডের শহীদবাড়ি, খতিববাড়ি, পাঠানীয়া গোদা, বরিশাল কলোনি, গাবতল, সিঅ্যান্ডবি এলাকায় গণসংযোগ করেন।

লংগদু (রাঙামাটি) : লংগদুতে নির্বাচনী প্রচারে ব্যস্ত সময় পার করছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী দীপংকর তালুকদার। বৃহস্পতিবার সকালে লংগদু উপজেলার ভাসান্যাদম ইউনিয়নে পথসভা করেন তিনি।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আমির হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার। এ সময় সঙ্গে ছিলেন সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি হাজি কামাল উদ্দিন ও সাংগঠনিক সম্পাদক জ্যোতিময় চাকমা প্রমুখ।

দীপংকর বলেন, ‘বিএনপির প্রার্থী ২০০১ সালের মতো জনগণকে মুলা দেখিয়ে ভোট চাওয়া শুরু করেছেন। আর জেএসএস প্রার্থী উন্নয়নের কথা বলে ভোট নিলেও গত ৫ বছরে রাঙামাটিতে একটি ইটও কোথাও দিতে পারেনি। পার্বত্য এলাকায় যা উন্নয়ন হয়েছে তা বর্তমান সরকারের সময়ে হয়েছে।’

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) : বিএনপি প্রার্থী মো. ইসহাক কাদের চৌধুরী প্রচার শুরু করেছেন। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় উপজেলার সলিমপুর কালুশাহ মাজার জেয়ারতের মাধ্যমে তিনি গণসংযোগ শুরু করেন। এ সময় তিনি ভোটারদের কাছে ধানের শীষে ভোট চেয়ে বলেন, ‘একমাত্র বিএনপির হাতেই দেশ নিরাপদ। বাংলাদেশকে সন্ত্রাস ও দুর্নীতিমুক্ত করতে এবং আধুনিক সীতাকুণ্ড গড়ে তুলতে বিএনপির বিকল্প নেই।’

এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক মো. তফাজ্জল হোসেন, সাবেক আহ্বায়ক মো. ইউনুস চৌধুরী, উত্তর জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন, বিএনপি নেতা বদিউল আলম হারুন, মো. কামাল উদ্দিন, এনামুল বারী, আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক ইরফানুল হাসান রকি, খোরশেদ আলম মেম্বার প্রমুখ।

ফটিকছড়ি : বিএনপির প্রার্থী কর্নেল (অব.) আজিম উল্লাহ বাহার মনে করেন, ধানের শীষের বিজয় নিশ্চিত। বৃহস্পতিবার ফটিকছড়ি উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ে উপজেলা বিএনপির সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক নেতা কাদের গণি চৌধুরী, ঐক্যফ্রন্ট নেতা সৈয়দ তারেকুল আনোয়ার, বিএনপি নেতা শহীদুল আজম, অ্যাডভোকেট আফসার উদ্দিন হেলাল, সাবেক চেয়ারম্যান এনামুল হক বাবু, ইয়াকুব আলী, আবু মুনছুর, মিজানুর রহমান প্রমুখ।

এদিকে আনুষ্ঠানিক প্রচার শুরু করেছেন ইসলামী ফ্রন্ট প্রার্থী শাহজাদা সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ মাইজভাণ্ডারী। বুধবার দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে তাঁর বাবা সৈয়দ মঈনুদ্দিন আহমদ মাইজভাণ্ডারী, সৈয়দ আহমদ উল্লাহ মাইজভাণ্ডারী, গোলামুর রহমান মাইজভাণ্ডারী এবং সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারীর মাজার জেয়ারতের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিক প্রচার শুরু করেন তিনি। পরে তিনি উপজেলার নানুপুরে হযরত ইছাপুরী শাহ (রহ.) ও  ফটিকছড়ির সাবেক সংসদ সদস্য রফিকুল আনোয়ারের কবর জেয়ারত করেন। জেয়ারত শেষে তিনি নানুপুর বাজার, বিনাজুরী, চাড়ালীয়াহাট, ইসলামিয়াহাট, নয়াহাট, কাঞ্চননগর, বিবিরহাট বাজারসহ বিভিন্নস্থানে ব্যাপক গণসংযোগ করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা