kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৩ মাঘ ১৪২৮। ২৭ জানুয়ারি ২০২২। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

বই আলোচনা

খসরু পারভেজের দুটি বই

কবি, কথাসাহিত্যিক, প্রাবন্ধিক ও সংগঠক হিসেবে খসরু পারভেজ স্বীকৃত। এ ছাড়া মাইকেল মধুসূদন গবেষণায় তিনি কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছেন। পেয়েছেন আইএফআইসি ব্যাংক সাহিত্য পুরস্কার। তাঁর দুটি বই নিয়ে আমাদের এই আয়োজন। হানযালা হান

৯ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



খসরু পারভেজের দুটি বই

আরো এক বিপন্ন বিস্ময়

‘২০২০ সালের দিকে সারা দুনিয়ায় নিউমোনিয়া ধরনের মারাত্মক এক অসুস্থতা ছড়িয়ে পড়বে, যা মানুষের আয়ত্তে থাকা সব চিকিৎসাকে হটিয়ে ফুসফুস ও শ্বাসনালিতে আক্রমণ করবে। ...এটা যেভাবে দ্রুত ছড়িয়ে পড়বে সেভাবেই দ্রুত চলে যাবে। ১০ বছর পর আবার ফিরে আসবে এবং চিরতরে এটি বিলীন হয়ে যাবে। ’ লিন্ডসে হ্যারিসন ও সিলভিয়া ব্রাউনি যৌথভাবে ‘এন্ড অব ডেস’ নামের বইয়ের ৩১২ পৃষ্ঠায় এসব কথা লিখে রেখেছেন।

বিজ্ঞাপন

বইটি ২০০৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রে প্রকাশিত হয়। করোনা মহামারি ছড়িয়ে পড়ার পর যেসব বই নিয়ে খুব বেশি আলোচনা হয়েছে, তার মধ্যে এটি একটি।

এসব বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করে ‘আরো এক বিপন্ন বিস্ময়’ বইয়ের সম্পাদক খসরু পারভেজ ভূমিকায় একটি প্রশ্ন তুলেছেন—মহামারি কি লেখালেখির জন্য উদ্দীপক, নাকি প্রতিবন্ধক? সম্পাদকের মতে, ‘কবিদের কলমে জোয়ার এনেছে করোনা। আবার এই ভয়াবহতার মধ্যে কেউ কেউ লিখতেই পারেননি। ’

এই বইটি মূলত আড়াই শতাধিক কবির কবিতার সংকলন। সঙ্গে রয়েছে ২০টি দেশের অনুবাদ কবিতা।

আরো এক বিপন্ন বিস্ময় : সম্পাদনা—খসরু পারভেজ। প্রচ্ছদ : আনিসুজ্জামান সোহেল। প্রকাশক : কথা প্রকাশ। মূল্য : ৬০০ টাকা।

 

সুবর্ণগ্রামে লকডাউন

কবিরা জীবন পুড়িয়ে কবিতা লেখেন কি না, তা নিয়ে আক্ষরিক অর্থে কেউ কেউ প্রশ্ন তুলতে পারেন। তবে কানাডিয়ান গায়ক-কবি-ঔপন্যাসিক লিওনার্ড কোহেনের ‘কবিতা হচ্ছে জীবনের সাক্ষ্য। যদি জীবন ভালোভাবে পোড়ে, কবিতা হয়ে উঠবে ছাই। ’ এই কথার সঙ্গে আমার মনে হয় না কেউ দ্বিমত পোষণ করবেন। কবি খসরু পারভেজের ‘সুবর্ণগ্রামে লকডাউন’ বইয়ের কবিতাগুলো পড়তে বসে কথাগুলো নতুন করে মাথায় এলো।

এপিটাফ লেখা কবিদের চিরকালের স্বভাব। অনেকে সচেতনে যেমন এপিটাফ লেখেন, অনেক কবি বা লেখক অচেতনেও লেখেন। মাইকেল মধুসূদন দত্ত থেকে শুরু করে কাজী নজরুল ইসলাম পর্যন্ত এ দেশের কবিদের কথা তো আমরা বলতেই পারি। আবার ইউরোপ-আমেরিকার কবি-সাহিত্যিকরাও এ ক্ষেত্রে প্রাতঃস্মরণীয়। ফরাসি কবি স্কারোঁর এপিটাফ তো আমরা প্রথম শুনে স্তব্ধ হয়েছি, ‘এখানে গোল কোরো না, কারণ এই প্রথম স্কারোঁ ঘুমাচ্ছেন। ’ তেমনি এপিটাফ লিখেছেন খসরু পারভেজ শেষের কবিতায়—‘জীবনে যখন ফুটতে পারো নি/ করুণ কবরে অনাদরে ফুটে থেকো/ পথিকের চোখে ছড়িয়ে দিও উচ্ছল আলো/ চিনিয়ে দিও আমার শেষ ঠিকানা। ’

সুবর্ণগ্রামে লকডাউন : খসরু পারভেজ। প্রচ্ছদ : মোস্তাফিজ কারিগর। প্রকাশক : কবি প্রকাশনী। মূল্য : ১৭৫ টাকা।