kalerkantho

শনিবার । ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৯ রবিউস সানি ১৪৪১     

তেতো

তেতোয় শুরু আহার

ভাতের পাতের শুরুতে তেতো খেলে গরমে পেট খুব একটা গোলমেলে আচরণ করবে না। তিনটি তেতো খাবারের রেসিপি দিয়েছেন ফাহা হোসাইন

৬ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



তেতোয় শুরু আহার

উচ্ছে চিংড়ি ভাজি

উপকরণ

তিতা করলা ২৫০ গ্রাম, চিংড়ি ৪টি (মাঝারি), পেঁয়াজ কুচি ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ৩টি, হলুদ গুঁড়া এক চিমটি, মরিচ গুঁড়া এক চিমটি, লবণ পরিমাণমতো, তেল ১ টেবিল চামচ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১. প্রথমে উচ্ছে বা তিতা করলা খুব মিহি পাতলা করে ভাজির জন্য কেটে নিন।

২. প্যানে তেল গরম করে চিংড়িগুলো ছেড়ে দিয়ে এপিঠ-ওপিঠ লালচে করে নিন।

৩. এতে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে হালকা ভেজে হলুদ গুঁড়া, মরিচ গুঁড়া, লবণ ও কাঁচা মরিচ ফালি দিয়ে একটু কষিয়ে নিন। এতে তিতা করলাগুলো দিয়ে পুরো মসলার সঙ্গে মিশিয়ে ভাজিটা একটু পর পর নেড়ে দিন।

৪. উচ্ছে সিদ্ধ হয়ে কিছুটা ভাজা ভাজা হয়ে গেলে গরম গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন মজার উচ্ছে চিংড়ি ভাজি।

 

আচারি ডালে শজনে

উপকরণ

শজনে ডাঁটা ২৫০ গ্রাম, চিংড়ি মাছ ৪-৫টি, মসুর ডাল আধা কাপ, আমের আচার ২ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ, মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, কাঁচা মরিচ ফালি ৩টি, পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল  চামচ, রসুন কুচি ১ চা চামচ, লবণ আধা চা চামচ, সানফ্লাওয়ার তেল ১ টেবিল চামচ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১. তেল গরম করে তাতে রসুন কুচি, পেঁয়াজ কুচি দিয়ে হালকা ভাজুন। এতে চিংড়ি দিয়ে এপিঠ-ওপিঠ লাল   করে নিন।

২. এতে একে একে হলুদ গুঁড়া, মরিচ গুঁড়া ও লবণ দিয়ে হালকা কষিয়ে নিন।

৩. তাতে মসুর ডাল ও শজনে ডাঁটা দিয়ে আরেকটু কষিয়ে নিন। বেশ কিছুটা পানি দিয়ে ঢেকে রান্না করতে হবে, যতক্ষণ না ডাল সিদ্ধ হয়ে যায়।

৪. শজনে ডাঁটাগুলো টসটসে হয়ে উঠলে এবার নামানোর আগে এতে আমের আচার দিয়ে নামিয়ে গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

 

কিমার পুর ভরা করলা

উপকরণ

মুরগির কিমা আধা কাপ, বড় করলা ২টি, পেঁয়াজ কুচি ১ টেবিল চামচ, আদা বাটা এক চিমটি, রসুন বাটা এক চিমটি, কাঁচা মরিচ কুচি ১ চা চামচ, মাংসের মসলা আধা চা চামচ, লবণ এক চা চামচের তিন ভাগের এক ভাগ, ডিম ১টি, ময়দা আধা কাপ, তেল ১ কাপ।

 

যেভাবে তৈরি করবেন

১. বড় করলা আধা ইঞ্চি পুরু করে গোল গোল করে স্লাইস করে নিন। মাঝখানের বিচিগুলো ফেলে দিন।

২. এবার কিমার পুর বানাতে হবে। প্রথমে তেল গরম করে তাতে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভেজে নিন। আদা বাটা, রসুন বাটা ও মাংসের মসলা কষিয়ে নিন।

৩. কষানো হয়ে এলে কিমাগুলো দিয়ে খুব ঘন ঘন নেড়ে নিন। এতে এবার যোগ করুন কাঁচা মরিচ কুচি। ১০ মিনিটের মতো রান্না করুন।

৪. এখন করলার মাঝখানের অংশে কিমার পুর দিয়ে চেপে চেপে ফাঁকা অংশ ভরে পুরো করলা ময়দায় গড়িয়ে নিন। এবার তেল গরম করে ময়দায় গড়িয়ে নেওয়া পুর ভরা করলা ফেটানো ডিমে চুবিয়ে গরম তেলে ভেজে নিন। বাদামি রং হলে গরম গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন মজাদার কিমার পুর ভরা করলা।

মন্তব্য