kalerkantho

বুধবার । ১৭ জুলাই ২০১৯। ২ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৩ জিলকদ ১৪৪০

এই মেয়েটা কায়া

১০ বছর ধরে ধীরে ধীরে এগিয়েছেন। এখন একের পর এক নানা ধরনের সিনেমায় সুযোগ পাচ্ছেন কায়া স্কডালারিও। ‘স্ক্রল’ মুক্তি উপলক্ষে অভিনেত্রীকে নিয়ে লিখেছেন লতিফুল হক

১১ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এই মেয়েটা কায়া

ব্রিটিশ টিন কমেডি ড্রামা ‘স্কিনস’ দিয়ে পরিচিতি পাওয়া। জনপ্রিয় এই সিরিজে ইফি স্টোনোম চরিত্র করেছিলেন কায়া স্কডালারিও। ওই সময় তরুণদের  মধ্যে অন্যতম পছন্দের চরিত্র ছিল এটি। তবে এ চরিত্র করার পরও খুব বেশি ভালো কাজ পাননি। ‘ক্লাশ অব টাইটানস’, ‘নাউ ইজ গুড’, ‘স্পাইক আইল্যান্ড’-এ ছোটখাটো চরিত্র পেয়েছেন। করেছেন কয়েকটি টিভি সিরিজও। তবে কোনোটাই ‘স্কিনস’-এর ধারেকাছে যেতে পারেনি। কায়া কাঙ্ক্ষিত ব্রেকথ্রু পান ‘মেজ রানার’ সিরিজ দিয়ে। এখানে তেরেসা চরিত্র তাঁর ভাগ্য পুরোপুরি বদলে দেয়। “আরো ১০ বছর পর যখন আমার ক্যারিয়ার মূল্যায়ন করতে বসব ‘মেজ রানার’-এ সুযোগ পাওয়ার জন্য কৃতজ্ঞ থাকব। শক্তিশালী নারী চরিত্রের প্রতি শুরু থেকেই আগ্রহ ছিল, এই ছবিতে তেমন কিছু পেয়ে নিজেকে উজাড় করে দিয়েছিলাম। চরিত্রটি করতে নিজেই এত আনন্দ পেয়েছি বলার নয়”— জানান কায়া। ‘মেজ রানার’ করার পর থেকেই অনেক প্রস্তাব পাচ্ছেন। এরই মধ্যে শুরু করেছেন ‘স্পিনি আউট’ সিরিজের কাজও। পাচ্ছেন একের পর এক সিনেমার প্রস্তাবও। একটি ‘স্ক্রল’ মুক্তি পাবে আগামীকাল। ‘ডিজাস্টার হরর’ ছবিটির পরিচালক আলেকসঁর আজা। আগে যিনি ‘দ্য হিলস হ্যাভ আইজ’-এর মতো ছবি করেছেন। এই ছবিতে প্রধান চরিত্র হেইলি কেলার করেছেন কায়া। ফ্লোরিডায় পাঁচ মাত্রার হারিকেনের ছবির প্রেক্ষাপট। দেখা যাবে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের মধ্যে বাবা-মেয়ে যখন ঘরে আটকা পড়ে, সেখানে হাজির হয় এক ভয়ংকর প্রাণী। বাবা-মেয়ে কিভাবে বাঁচবে, এই নিয়ে গল্প। প্রধান চরিত্রে সুযোগ পেয়ে দারুণ উত্তেজিত কায়া। মনে করছেন, এই ছবি তাঁর ক্যারিয়ারকে আরো এক ধাপ ওপরে নিয়ে যাবে। অভিনেত্রী বলেন, ‘ছবিতে খুব কম চরিত্র, পুরোটা সময় আমার দিকেই দৃষ্টি থাকবে দর্শকের। এটা বিরাট একটা চ্যালেঞ্জ। শুটিংয়ের সময় এতটা উত্তেজিত ছিলাম, জানি না কেমন করেছি। তবে এ চরিত্র পাওয়ার জন্য নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি। পর্দায় শুধু প্রেমিকা হিসেবেই নিজেকে দেখতে চাই না। এ ছবির মুক্তির পর আশা করি আরো বৈচিত্র্যময় চরিত্র পাব।’

 

মন্তব্য