kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

আসছেন ঝাঁসির রানি

অনেক ঝামেলার পর অবশেষে মুক্তি পাচ্ছে ‘মনিকর্নিকা : দ্য কুইন অব ঝাঁসি’। রানি লক্ষ্মী বাইয়ের বায়োপিকে অভিনয়ের সঙ্গে পরিচালনাও করেছেন কঙ্গনা রানাওয়াত। ছবিটি নিয়ে লিখেছেন খালিদ জামিল

২৪ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আসছেন ঝাঁসির রানি

এই এক সিনেমা নিয়ে খবর হচ্ছে প্রায় চার বছর ধরে। ছবির পরিচালক ঠিক হন, তো অভিনেত্রী বাদ পড়েন। সব ঠিক হওয়ার পর আবার ঝামেলা হয় লক্ষ্মী বাইকে নিয়ে ছবি করার অনুমতি নিয়ে। সবশেষে বছর দুই আগে কঙ্গনা রানাওয়াত যখন ছবির সঙ্গে যুক্ত হন তখন ভাবা হয়েছিল ঝামেলা বুঝি মিটল। বাস্তব জীবনে ‘বিদ্রোহী’ বলে পরিচিত অভিনেত্রী যোদ্ধা লক্ষ্মী বাইয়ের চরিত্র করবেন বলে খুশিও হয়েছিল ভক্তরা। কিন্তু তখনো যে ঝামেলার শেষ হয়নি কে জানত। পরিচালক বদল, অন্যতম প্রধান অভিনেতার ছবি ছেড়ে চলে যাওয়া—গেল এক বছরে কত কিছুই না হয়েছে।

‘মনিকর্নিকা’র বেশির ভাগ শুটিং হয়েছে ভারতের রাজস্থানের যোধপুরে। লক্ষ্মী বাই হতে ঘোড়ায় চড়া শেখা, তলোয়ার চালানো শেখা থেকে অনেক কিছুই করতে হয়েছে কঙ্গনাকে। লক্ষ্মী বাই নিজের ভীষণ প্রিয় বলে কোনো কিছু করতেই পরোয়া করেননি অভিনেত্রী, ‘রানি লক্ষ্মী বাই জীবনে অনেক কিছুর মধ্য দিয়ে গেছেন। মাত্র ১৫ বছর বয়সে বিয়ে, দেশপ্রেম আর মানুষের জন্য নিজেকে উজাড় করে দেওয়া। সব মিলিয়ে এই চরিত্রে অভিনয় করাটা বেশ গর্বের।’ কঙ্গনাকে কাজ করতে হয়েছে বেশ ঝুঁকি নিয়ে। কারণ যুদ্ধের দৃশ্যগুলো শুটিংয়ের জন্য কোনো বডি ডাবল ব্যবহার করেননি তিনি। ঘটেছে দুর্ঘটনাও। নিহার পাণ্ডের সঙ্গে এক তলোয়ার লড়াই চলাকালে টাইমিংয়ে কিছুটা গড়বড় হয়। আঘাত লাগে কঙ্গনার কপালের মাঝখানে। হাসপাতালে গিয়ে ১৫টা সেলাই দিতে হয়েছিল! সেই দৃশ্য পরে তিনি ঠিকই করেছিলেন এবং বডি ডাবল ছাড়াই।

ছবিতে শুধু অভিনয়ই করেননি, দায়িত্ব নিতে হয়েছিল পরিচালনারও। নানা কারণে ছবি বারবার পিছিয়ে যাওয়ায় মূল পরিচালক কৃষ্ণ চলে যান। পরে ছবির ৭০ শতাংশই হয়েছে কঙ্গনার পরিচালনায়। ‘মনিকর্নিকা’য় কঙ্গনার সঙ্গে দেখা যাবে আনিকা লোখাণ্ডেকে। এই ছবি দিয়েই বড় পর্দায় অভিষেক হচ্ছে জনপ্রিয় এই টিভি তারকার। এ ছাড়া আছেন অতুল কুলকার্নি। ছবির গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে আছেন যীশু সেনগুপ্ত। ঝাঁসির মহারাজা গঙ্গারাম রাওয়ের চরিত্র করা বাঙালি অভিনেতা জানিয়েছেন তাঁর ক্যারিয়ারের গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক হতে যাচ্ছে এই ছবি। ছবিতে আরো ছিলেন সনু সুদও। কিন্তু নানা ঝামেলায় বেরিয়ে যান তিনি। ছবির গল্প বর্ণনা করেছেন অমিতাভ বচ্চন। সব দিক দিয়ে প্রশংসায় ভাসলেও সমালোচনায়ও পড়েছে ‘মনিকর্নিকা’। জার্মান অভিনেতা অ্যান্ডি ভন ইচ এই ছবিতে এক ইংরেজ অফিসারের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন। ট্রেলার মুক্তির পর নিজের কাজের জন্য পারিশ্রমিক না পাওয়ার অভিযোগ জানিয়ে টুইট করেন তিনি। পরে অবশ্য সেটা মুছেও ফেলেছেন। ইমরান হাশমির ‘চ্যাট ইন্ডিয়া’ও মুক্তির কথা ছিল ‘মনিকর্নিকা’র সঙ্গে। কিন্তু একই দিনে বাল ঠাকরের বায়োপিক ‘ঠাকরে’র মুক্তি থাকায় সেটা এক সপ্তাহ এগিয়ে নেন প্রযোজক। তবে ‘মনিকর্নিকা’ মুক্তি পাচ্ছে ঠিক সময়েই।

মন্তব্য