kalerkantho

মিথ্যা প্রেম

তারকাদের প্রেম নিয়ে ভক্তদের আগ্রহের শেষ নেই। অনেক সময় এই সুযোগটাই নেন তারকারা। আলোচনায় থাকতে বেছে নেন মিথ্যা প্রেমের কৌশল। এমন ১০ আলোচিত মিথ্যা প্রেম নিয়ে লিখেছেন লতিফুল হক

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



মিথ্যা প্রেম

টম হিডলস্টোন-টেইলর সুইফট

এমনিতে টম হিডলস্টোনকে পাওয়া যায় না। সেই টমই কি না ২০১৬ সালে মিডিয়ায় সবচেয়ে বেশি জায়গা পাওয়াদের একজন হয়ে গেলেন। কারণ এ সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় গায়িকাদের একজন টেইলর সুইফটের সঙ্গে প্রেম। কোনো লুকোচুরি নয়, হাতে হাত ধরে আমেরিকা থেকে ইউরোপের নানা শহরে তাঁরা ঘুরে বেড়ালেন। তাঁদের ছবি পাওয়ার জন্য কষ্ট করতে, গোয়েন্দাগিরি করতে হলো না পাপারাজ্জিদের। প্রেম ভেঙে যাওয়ার পর জানা গেল এত সহজে ধরা দেওয়ার কারণ—আসলে আলোচনায় থাকতেই এমনটা করেছিলেন টম। তাতে অবশ্য কাজের কাজ হয়। ২০১৬ সালে তাঁর করা বিবিসির মিনি সিরিজ ‘দ্য নাইট ম্যানেজার’ ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়।

 

ক্রিস্টেন স্টুয়ার্ট-রবার্ট প্যাটিনসন

‘টোয়ালাইট’ মুক্তির পর থেকেই তুমুল জনপ্রিয়। ছবির পাত্র-পাত্রী রবার্ট প্যাটিনসন আর ক্রিস্টেন স্টুয়ার্ট হয়ে ওঠেন তরুণদের স্বপ্নের রাজা-রানি। দ্রুতই পর্দার বাইরেও তাঁদের ঘনিষ্ঠতা বাড়তে থাকে। তাঁদের প্রেম নিয়ে শুরু হয় নানা গুজব। কিছুদিন পরই অন্য একটি ছবি করতে গিয়ে পরিচালক রুপাট স্ট্যান্ডার্সের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন ক্রিস্টেন। জানা যায় প্যাটিনসনের সঙ্গে সম্পর্ক চুকেবুকে গেছে। পরে ‘টোয়ালাইট’-এর শেষ কিস্তির আগে ফের তাঁদের প্রেমের খবর শোনা যায়। কিন্তু তত দিনে প্রায় সবাই জেনে গেছে, তাঁদের সাজানো সম্পর্কের খবর। ‘টোয়ালাইট’ ফ্যাঞ্চাইজি শেষ তো, প্রেমও শেষ!

 

কেলি কোকো-হেনরি কাবিল

দীর্ঘদিন তাঁদের সম্পর্ক নিয়ে কতই না খবর। কিন্তু সম্পর্ক ভাঙনের কিছুদিনের মধ্যেই জানা যায় কেলি কোকো আর হেনরি কাবিলের প্রায় এক দশকের প্রেম ছিল আসলে ভুয়া। একটি জনসংযোগ কম্পানি কোকো আর কাবিল দুজনেরই এজেন্ট। দুই তারকার ভুয়া প্রেমের আইডিয়াটা মূলত তাদেরই ছিল।

 

জেনিফার লোপেজ-ড্রেক

সম্পর্কটা অল্প দিনের হলেও সাড়া জাগিয়েছিল বেশ। সংগীতের দুই তারকার প্রেম নিয়ে ট্যাবলয়েডগুলো হুমড়ি খেয়ে পড়েছিল। কিন্তু তাঁদের সম্পর্ক নিয়ে যখন তুমুল জল্পনা তখনই অ্যালেক্স রদ্রিগেজের সঙ্গে সম্পর্কের কথা ফাঁস করেন লোপেজ। বোঝা যায়, ড্রেকের সঙ্গে প্রেম শুধুই ধোঁকা ছিল। পরে সাবেক ‘প্রেমিকা’কে নিয়ে ড্রেক অবশ্য একটি গানও তৈরি করেন।

 

ভেনেসা হজেন্স-হ্যাক এফোর্ন

তাঁদের প্রেমও ছিল ছবির জন্য। দুজন একসঙ্গে ‘হাই স্কুল মিউজিক্যাল’ ফ্রাঞ্চাইজিতে অভিনয় করেছেন। সেই ফ্রাঞ্চাইজিকে জনপ্রিয় করতেই মূলত তাঁদের প্রেমের গুজব বাজারে ছাড়া হয়।

 

ক্রিস হ্যামফ্রিজ-কিম কার্দাশিয়ান

এনবিএ খেলোয়াড় ক্রিস হ্যামফ্রিজের সঙ্গে কিম কার্দাশিয়ানে প্রেম স্থায়ী হয়েছিল মোটে ৭২ দিন। পরে জানা যায়, এটা সাজানো ছিল। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জনপ্রিয়তা পেতেই প্রেমের গুঞ্জন ছাড়া হয়। কাজও হয় বেশ, কিমের অনুসারী সংখ্যা অনেক বাড়ে।

 

আলিয়া ভাট-অর্জুন কাপুর

২০১৪ সালে ‘২ স্টেটস’ মুক্তির আগে তাঁদের প্রেমের গুজব ছড়িয়ে পড়ে। ছবির ট্রেইলারে দুজনের রোমান্স সে গুজব আরো ছড়িয়ে দেয়। ছবির প্রচারণায় প্রেম নিয়ে শুনতে হয় বিস্তর প্রশ্ন। তবে কিছুদিন পর জানা যায়, এ সবই আসলে ভুয়া, সবই প্রচারণার কৌশল। ‘২ স্টেটস’-এর আগে থেকেই সিদ্ধার্থ মালহোত্রার সঙ্গে প্রেম করছেন আলিয়া।

 

শহিদ কাপুর-সোনাক্ষী সিনহা

‘তেবার’ মুক্তির আগে ছবির পাত্র-পাত্রী শহিদ কাপুর আর সোনাক্ষী সিনহার প্রেম নিয়ে তুমুল মাতামাতি। সে সব গুজব নিয়ে দুই তারকার নীরবতা সন্দেহ আরো বাড়িয়ে দেয়। কিন্তু আদতে তাঁদের মধ্যে কোনো প্রেম ছিল না। পরে জানা যায়, ‘তেবার’ ছবি বানানোর পর সেটা প্রযোজকদের মোটেই পছন্দ হয়নি। তাই ‘নিরুপায়’ হয়ে শহিদ-সোনাক্ষীর প্রেমের গুজব বাজারে ছাড়া হয়। পরে এক সাক্ষাত্কারে সেটা স্বীকার না করলেও শহিদ মেনে নেন, ‘তেবার’ করাটা তাঁর ক্যারিয়ারের অন্যতম বাজে সিদ্ধান্ত।

 

পুলকিত সম্রাট-ইয়াম্মী গৌতম

ভ্যালেন্টাইনস ডে সামনে রেখে ছবির মুক্তি। ছবির পাত্র-পাত্রীদের মধ্যে প্রেমের গুজব না থাকলে কি আর জমে! তাই রটানো হয় পুলকিত সম্রাট আর ইয়াম্মী গৌতমের প্রেমের গুজব। কোনো কিছুতেই কাজ হয়নি, বক্স অফিসে ফ্লপ হয় ‘সনম রে’।

মন্তব্য