kalerkantho

সোমবার । ২৯ আষাঢ় ১৪২৭। ১৩ জুলাই ২০২০। ২১ জিলকদ ১৪৪১

ভুল সবই ভুল

প্রতিদিন চুল ধোয়া স্বাস্থ্যকর

সবাই সত্যি জানে—এমন অনেক কথা পরে যাচাই করে দেখা গেছে সেগুলো মিথ্যা। লিখেছেন আসমা নুসরাত

৬ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রতিদিন চুল ধোয়া স্বাস্থ্যকর

কেন প্রতিদিন চুল ধোয়া স্বাস্থ্যকর—প্রশ্ন করলে উত্তর দিতে পারবে না বেশি লোক। অথচ প্রতিদিনই চুল ধোয়া চাই এমন মানুষের সংখ্যাই বেশি। কিন্তু ডমিনিক ব্রাগ, যিনি কি না আমেরিকার এভলি প্রফেশনালের (চুল নিয়ে গবেষণাকারী প্রতিষ্ঠান) প্রধান বিজ্ঞানী বেশি চুল ধোয়াকে উৎসাহিত করছেন না। শিয়াটলের চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ এলিজাবেথ হিউও চুল বেশি ধোয়াকে ভালো মনে করেন না। ব্রাগ যেমন বলছিলেন, কমপক্ষে এক হাজার প্রজাতির অগণিত ব্যাকটেরিয়ায় পূর্ণ থাকে চামড়া। এরা উপকারী ব্যাকটেরিয়া। চামড়ার পিএইচের ভারসাম্য রক্ষায় এরা ভূমিকা রাখে। শুধু তাই নয়, ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াও তাড়ায়। চুল বেশি বেশি ধুলে, সঙ্গে শ্যাম্পু যোগ করলে, এই ব্যাকটেরিয়াগুলো আর চামড়ায় থাকতে পারে না। ফলে ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া ফিরে আসার সুযোগ পায়। তাই চামড়ায় জ্বলুনি হয়, চুলকানিও বাড়ে। তিনি সপ্তাহে দুইবার, বেশি হলে তিনবার চুল ধোয়ার  পরামর্শ দিচ্ছেন। এলিজাবেথ হিউও বলছেন, কিছু লোকের চুল এমনই দুর্বল যে ধুলে বেশি ভাঙে। ওই লোকগুলোর সপ্তাহে বড়জোর একবার ধোয়ার কাজে নামা উচিত। আরো বলছেন, চুল আসলে ডার্টি অনুভব হয় তেলের কারণে। কিছু লোকের মাথায় প্রচুর তেল উৎপন্ন হয়। কিন্তু এমন লোকের সংখ্যা অনেক কম।

মন্তব্য