kalerkantho

শনিবার  । ১৯ অক্টোবর ২০১৯। ৩ কাতির্ক ১৪২৬। ১৯ সফর ১৪৪১                     

ভুল সবই ভুল

পতঙ্গ আগুনকে সূর্য ভাবে

সবাই সত্যি জানে—এমন অনেক কথা পরে যাচাই করে দেখা গেছে সেগুলো মিথ্যা। লিখেছেন আসমা নুসরাত

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



পতঙ্গ আগুনকে সূর্য ভাবে

আগুনকে সূর্য ভেবে এগিয়ে যায় পতঙ্গ, শেষে পুড়ে মরে। কারণ পথ খুঁজে নিতে চন্দ্র বা সূর্যের আলোর দরকার পড়ে পতঙ্গের। বিজ্ঞানীরা ব্যাপারটি নিয়ে অনেক ভেবেছেন; কিন্তু নিশ্চিত হতে পারেননি। শেষে ইউনিভার্সিটি অব নর্থ ক্যারোলাইনার অধ্যাপক হেনরি হাইসো পতঙ্গের পিছু নিলেন। দেখলেন আলোর দিকে সরলরেখায় চলে পতঙ্গ; কিন্তু মোমবাতির আগুন তো আর সহস্র মাইল দূরে নয় চাঁদ বা সূর্যের মতো। তাই বেশি আলোতে চোখ ধাঁধিয়ে যায়। আর শেষে তাল হারিয়ে গিয়ে আগুনে পড়ে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের কৃষি বিভাগের কীটতত্ত্ববিদরা ১৯৭০ সালের দিকে একটি তত্ত্ব হাজির করেছিলেন। সেটি ভালোবাসা ঘটিত। মোমবাতির আগুন থেকে যে ইনফ্রা রেড (অবলোহিত) আলো নিঃসৃত হয়, নারী মথও তেমন আলো ছড়ায়। তাই পুরুষ মথ আকৃষ্ট হয় আর প্রাণ ত্যাগ করে। তাই বলতে হয়, পতঙ্গ আলোর ধাঁধায় পড়ে গোল্লায় যায়, সাধ করে অবশ্যই নয়।

মন্তব্য