kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ মে ২০১৯। ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৫ রমজান ১৪৪০

ল্যাবএইড হাসপাতাল

সবার আগে রোগীর সেবা

৪ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



সবার আগে রোগীর সেবা

বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন প্রথম হাসপাতাল ল্যাবএইড হাসপাতাল। বেসরকারি খাতে বিশেষায়িত চিকিৎসাসেবা দিতে ২০০৪ সালে এই হাসপাতালের যাত্রা শুরু হয়েছিল। ‘কেয়ার ফার্স্ট’ স্লোগান নিয়ে ৫০ বেডের এই হাসপাতালটি ঢাকার ধানমণ্ডিতে অবস্থিত

 

বিভাগসমূহ

এখানে রয়েছে মোট ১৩টি বিভাগ। বিভাগগুলো হলো কার্ডিওলজি ও কার্ডিয়াক সার্জারি ইউনিট, নিওরোমেডিসিন, স্ট্রোক সেন্টার, মেডিসিন, সার্জারি, গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজি, হেপাটোলজি, গাইনোকোলজি, নিউরোসার্জারি, এন্ডোক্রাইনোলজি, ইউরোলজি, পেডিয়াট্রিক, অর্থোপেডিকস, অনকোলজি, নেফ্রোলজি। এ ছাড়া রয়েছে আই সেন্টার, ডায়ালিসিস সেন্টার, কেমোথেরাপি সেন্টার, ফার্টিলিটি সেন্টার, ফিজিওথেরাপি সেন্টার, ডেন্টাল ক্লিনিক, লেজার সেন্টার, হোম সার্ভিস ইত্যাদি।

 

চিকিৎসক

বিভিন্ন বিভাগের কয়েকজন প্রথিতযশা চিকিৎসকের মধ্যে রয়েছেন অধ্যাপক এম আব্দুজ জাহের, অধ্যাপক বরেন চক্রবর্তী, ডা. আ ফ ম সোহরাবুজ্জামান, ডা. লুৎফর রহমান, অধ্যাপক খাদেমুল ইসলাম, অধ্যাপক এম আমজাদ হোসেন, অধ্যাপক সিরাজুল হক, অধ্যাপক মেজর (অব.) ডা. লায়লা আর্জুমান্দ বানু, অধ্যাপক জাহাঙ্গীর কবীর, অধ্যাপক আলী হোসেন, অধ্যাপক সেলিমুর রহমান, অধ্যাপক সমিরণ কুমার সাহা, অধ্যাপক আশরাফ আলী, অধ্যাপক মঞ্জুর রহমান গালিব, অধ্যাপক রফিকুল আলম, অধ্যাপক মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল, অধ্যাপক মিয়া মাসহুদ, অধ্যাপক খাজা নাজিম উদ্দিন, অধ্যাপক এফ এম সিদ্দিকী, ডা. লোকমান হোসেন, ডা. মাহবুবর রহমান, ড. এস এম জি কিবরিয়া প্রমুখ।

 

আউটডোর চিকিৎসা

এখানকার আউটডোর সকাল ১০টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত চালু থাকে। আউটডোর রোগীর ভিজিট ৮০০ থেকে এক হাজার ৫০০ টাকা। প্রতিদিন তিন থেকে সাড়ে তিন হাজার রোগী দেখা হয়। ১০৬০৬ নম্বরে কল করে সিরিয়াল নিতে হয়।

 

ইনডোর সুবিধা

রয়েছে ২৪ ঘণ্টা ইমার্জেন্সি সার্ভিস। সাধারণ ওয়ার্ডে বেডভাড়া ২২০০ টাকা, টুইন শেয়ারড কেবিনভাড়া ৪০০০ টাকা, সিঙ্গল কেবিন ভাড়া ৬৫০০ টাকা, সিঙ্গল ডিলাক্স বা স্যুট ভাড়া ১২৫০০ টাকা।

 

আইসিইউ/সিসিইউ/এনআইসিইউ

রয়েছে ১২ বেডের কার্ডিয়াক আইসিইউ, যার বেডভাড়া ৯০০০ টাকা, ২৯ বেডের সিসিইউ ভাড়া ৭৫০০ টাকা, ১৪ বেডের জেনারেল আইসিইউ ভাড়া ৯০০০ টাকা, আট বেডের এনআইসিইউ ভাড়া ৪০০০ টাকা, ছয় বেডের এইচডিইউ ভাড়া ৪২০০ টাকা। গরিব ও দুস্থ রোগীদের জন্য এখানে হ্রাসকৃত মূল্যে চিকিৎসাসেবার সুযোগ রয়েছে। রোগীর অর্থনৈতিক অবস্থা ও চিকিৎসার প্রয়োজনীয়তা বিবেচনা করে ল্যাবএইড ফাউন্ডেশনের সিএসআর কর্মসূচির আওতায় সামর্থ্যহীনদের এই ফ্রি চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হয়। এ ছাড়া সময়ে সময়ে ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্পও অনুষ্ঠিত হয়।

 

ল্যাবরেটরি সার্ভিস

বাংলাদেশ অ্যাক্রেডিটেশন বোর্ড (বিএবি) সার্টিফায়েড, অটোমেশন ও অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি সমৃদ্ধ ল্যাবরেটরিতে সব ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়। নিউক্লিয়ার মেডিসিন, পিসিআর ল্যাব (এইচসিভি, ডিএনএ) ইত্যাদি বিশেষ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করারও ব্যবস্থা রয়েছে।

 

হেলথ চেকআপ প্যাকেজ

পাঁচ থেকে ১৬ হাজার টাকার মধ্যে এখানে কয়েক ধরনের হেলথ প্যাকেজ রয়েছে। এগুলো হলো জুনিয়র এক্সিকিউটিভ হেলথ চেকআপ প্যাকেজ, এক্সিকিউটিভ হেলথ চেকআপ প্যাকেজ, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ হেলথ চেকআপ প্যাকেজ, লিভার স্ক্রিনিং প্যাকেজ, রেনাল স্ক্রিনিং প্যাকেজ, কার্ডিয়াক স্ক্রিনিং প্যাকেজ, ডায়াবেটিক স্ক্রিনিং প্যাকেজ, স্মোকারস স্ক্রিনিং প্যাকেজ, গাইনোকোলজিক্যাল স্ক্রিনিং প্যাকেজ, ক্যান্সার স্ক্রিনিং প্যাকেজ ইত্যাদি।

 

ব্লাড ব্যাংক/ফার্মেসি/অ্যামু্বল্যান্স

অত্যাধুনিক ব্লাড ব্যাংক ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকে। রয়েছে তিনটি ফার্মেসি। ঢাকার মধ্যে ১৫০০ থেকে ৪৫০০ টাকায় রাত-দিন ২৪ ঘণ্টা অ্যাম্বুল্যান্স সার্ভিস চালু রয়েছে। হাসপাতাল, চিকিৎসক বা সার্ভিস সম্পর্কে কোনো অভিযোগ থাকলে ০১৭৬৬৬৬১১১১ নম্বরে কথা বলে যথাযথ কর্তৃপক্ষ বরাবর অভিযোগ দেওয়া যাবে।

 

কর্তৃপক্ষের কথা

হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. এ এম শামীম বলেন, ‘গত তিন দশকে রোগ নির্ণয় ও চিকিৎসায় দেশের মানুষের আস্থা অর্জন করেছে ল্যাবএইড। দরিদ্র মানুষের পাশাপাশি, শিল্পী, সাহিত্যিক, সংস্কৃতিকর্মী, সাংবাদিকসহ সৃজনশীল পেশার মানুষের পাশে বরাবরই আমরা সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিই।’

 

যোগাযোগের ঠিকানা

বাড়ি-১, রোড-৪, ধানমণ্ডি, ঢাকা।

হটলাইন : ১০৬০৬ (অ্যাপয়েন্টমেন্টসহ)

টেলিফোন : ৫৮৬১০৭৯৩-৮, ৯৬৭০২১০-৩

ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৯৬১৫৪৯৭

ই-মেইল : [email protected]

ওয়েবসাইট : www.labaidgroup.com

মন্তব্য