kalerkantho

বুধবার । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

রূপচর্চা

ঈদের আগে ত্বকের খেয়াল

ঈদের আগে সাধারণ কিছু পরিচর্যা করেই হাত ও পায়ের ত্বক সুন্দর রাখা সম্ভব। এ বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন বিউটি জোন মেকওভার স্যালনের স্বত্বাধিকারী ও রূপ বিশেষজ্ঞ আনজুম শিউলি। লিখেছেন ফাতেমা ইয়াসমীন

৬ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ঈদের আগে ত্বকের খেয়াল

মডেল : মৌ রহমান। ছবি : এম এইচ বিপু

কোরবানির ঈদে কাজের পরিমাণ বেশি থাকে। তাই হাত ও পায়ের ত্বকের ক্ষতিও হয় বেশি। তাই ঈদের আগে থেকেই হাত ও পায়ের যত্ন নেওয়া শুরু করে দেওয়া ভালো। পারলে ঈদের আগেই পার্লার থেকে ম্যানিকিউর এবং পেডিকিউর করিয়ে নেওয়া ভালো।

বিজ্ঞাপন

ঈদে মাংস কাটাকাটি করতে গিয়ে অনেক সময়ই নখ ভেঙে বা ফেটে যেতে পারে। নখ পছন্দমতো শেপ করে ছোট করে কেটে নিন। এরপর নখ শক্ত করতে সাহায্য করে এমন লোশন লাগিয়ে নিলে নখ ভালো থাকবে। পা বলতে কিন্তু শুধু পায়ের পাতা না। যত্ন নিতে হবে পুরো পায়ের। গোড়ালি থেকে পাতা পর্যন্ত যত্ন একটু বেশিই নিতে হবে। কারণ পায়ের নিচের অংশের ওপরই ধুলাবালি, পানির ঝড়-ঝাপটা একটু বেশি যায়। পায়ের যত্নের প্রথম ধাপই হলো পরিষ্কার রাখা। বাইরে থেকে এসে যত তাড়াতাড়ি পারা যায় পা সাবান দিয়ে পরিষ্কার করে ফেলতে হবে। তারপর লোশন বা ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে।

আসলে হাত-পায়ের সবচেয়ে বড় যত্ন হলো ম্যানিকিউর ও পেডিকিউর করা। মাসে যদি দুবার এটি করা যায়, তাহলে হাত-পা বেশ সতেজ থাকে। অনেকের জন্য হয়তো তা সম্ভব হয় না। তাই বাসায় কিভাবে ম্যানিকিউর-পেডিকিউর করবেন তাঁর কিছু সহজ উপায় জেনে নিন।

ম্যানিকিউর ও পেডিকিউর করতে চাইলে প্রথম যা প্রয়োজন তা হলো এর সরঞ্জাম ব্রাশ নখ কাটার যন্ত্র, বাফার এগুলো লাগবে। বিশেষ কিছু টুল পাওয়া যায় বাজারে তা কিনে নিলে আরো ভালো।

প্রথমেই পরিষ্কার একটি বোলে পরিমাণমতো পানি নিয়ে তাতে শ্যাম্পু ও গ্লিসারিন মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণে সম্ভব হলে গোড়ালির ওপরে যতটুকু সম্ভব পা ডুবিয়ে রাখুন, সঙ্গে হাতও ডুবিয়ে রাখুন। ত্বকের ধরন এবং প্রয়োজন অনুযায়ী এই সময়টা ৫ মিনিট থেকে ৪০ মিনিট পর্যন্ত হতে পারে। এরপর ব্রাশ দিয়ে ঘষে এবার ত্বক পরিষ্কার করুন। এবার নখ কাটার পালা। নেলকাটার দিয়ে নখ কেটে নিন। নখের চারপাশের কোণে কোথাও ত্বকের কোনো অংশ বেড়ে থাকলে বা ত্বকের মৃত অংশ থাকলে পরিষ্কার করতে হবে। এবার স্ক্রাবিংয়ের পালা। স্ক্রাব থাকলে সেটিই ব্যবহার করতে পারেন, তারপর ধুয়ে ফেলুন। এ ক্ষেত্রে হালকা গরম পানিই ব্যবহার করা ভালো। এবার ভালো করে ময়েশ্চারাইজার লাগাতে হবে। নখ উজ্জ্বল দেখানোর জন্য বাফার দিয়ে ঘষা হয়। তবে এতে নকের ক্ষতি হয়। নখ সাজাতে চাইলে নেলপলিশ ব্যবহার করতে পারেন।

 

হাত ও পায়ের যত্নে কিছু প্যাক

দুই টেবিল চামচ বেসন, দুই চিমটি কাঁচা হলুদ, দুই থেকে তিন ফোঁটা লেবুর রস আর এক চা চামচ দুধ দিয়ে প্যাক বানিয়ে ফেলুন। হাতে ও পায়ে পাঁচ মিনিট ভালোভাবে ম্যাসাজ করুন এই প্যাকটি। তারপর ২০ মিনিট পরে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

শসা, টমেটো ও লেবুর রসের সঙ্গে চন্দনের গুঁড়া মিশিয়ে হাত-পায়ে লাগান, আর ১৫ মিনিট পরেই দেখুন কালচে পড়া হাত-পায়ের উজ্জ্বলতা।

ফরসা হাত-পায়ের জন্য তিন চামচ বোরাক্স পাউডার, দুই চামচ গ্লিসারিন আর দুই কাপ গোলাপজলের পেস্ট তৈরি করুন। হাত-পায়ে লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট রেখে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।