kalerkantho

রবিবার । ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯। ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৭ রবিউস সানি                    

সম্পাদকের কথা

৫ জুন, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এসএসসি রেজাল্টের পর পত্রপত্রিকায় আমরা বহু মেধাবী ছেলে-মেয়ের ছবি দেখতে পাই। কঠোর দারিদ্র্যের সঙ্গে যুদ্ধ করে তারা ভালো রেজাল্ট করছে। কেউ শ্রমিকের কাজ করে চালিয়ে গেছে তার লেখাপড়া, কেউ অনাহারে থেকেও সরে যায়নি শিক্ষার আলো থেকে। শারীরিকভাবে পঙ্গু হয়েও কেউ কেউ খুব ভালো রেজাল্ট করেছে। আমাদের কালের কণ্ঠে গ্রামগঞ্জে ছড়িয়ে থাকা এ রকম প্রচুর মেধাবী ছেলে-মেয়েকে নিয়ে লেখা হয়েছে। আমাদের এই মেধাবী সন্তানগুলোকে যদি সহায়তা দেওয়া যায়, তাহলে তাদের ভবিষ্যৎ শিক্ষার পথটি খুলে যাবে; তাদের মেধায় উজ্জ্বল হয়ে উঠবে বাংলাদেশ। আসুন, এবারের ঈদে আমরা এই অদম্য মেধাবীদের পাশে দাঁড়াই। যে যার সামর্থ্য অনুযায়ী এই ছেলে-মেয়েদের পায়ের তলার মাটিটুকু শক্ত করে দিই। তাদের চলার পথটা সুগম করি।

সাহিত্যের কাজ হচ্ছে মানুষের মনোজগৎ বদলে দেওয়া। কালের কণ্ঠ’র ঈদ সংখ্যা মানে মূল্যবান সাহিত্যের সমারোহ। উপন্যাস, গল্প, কবিতা, প্রবন্ধ, স্মৃতিকথা ও অন্যান্য রচনার মধ্য দিয়ে পাঠকের মনে আমরা আসলে একটুখানি আলো জ্বালিয়ে দিতে চাই। সেই আলোয় মানুষ হয়ে উঠবে কল্যাণমুখী মানুষ, জনদরদি মানুষ, দেশপ্রেমী মানুষ। মানুষ তৈরি হলে দেশ তৈরি হয়। মানুষ এগোলে দেশ এগোয়।

বিশুদ্ধ সাহিত্যের স্বাদ মানে কালের কণ্ঠ ঈদ সংখ্যা। শুরু থেকেই সাহিত্যের এই স্বাদ আমরা প্রতিটি ঈদ সংখ্যায় দেওয়ার চেষ্টা করছি। আমাদের সফলতার বিচার পাঠকের হাতে।

ঈদ সংখ্যা প্রকাশে যাঁরা আমাদের সার্বিকভাবে সহযোগিতা করেছেন তাঁদের প্রত্যেকের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ। লেখক, পাঠক, বিজ্ঞাপনদাতা, হকার, এজেন্ট ও শুভানুধ্যায়ী প্রত্যেককে ধন্যবাদ জানাই, কৃতজ্ঞতা জানাই।

সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা।

ইমদাদুল হক মিলন

সম্পাদক

মন্তব্য