kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৯ নভেম্বর ২০১৯। ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

শিখে নাও

বাঁচবে নিজে ব্যায়ামও হবে

সকাল কিংবা বিকালের অবসর সময়ে শিখে নিতে পারো মার্শাল আর্ট। ফলে আত্মরক্ষার কৌশলও হবে রপ্ত। শারীরিকভাবে ফিট থাকতেও বেশ কর্যকর। মার্শাল আর্ট শেখার খোঁজখবর জানাচ্ছেন জুবায়ের আহম্মেদ

১০ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



বাঁচবে নিজে ব্যায়ামও হবে

ছয় বছর ধরে মার্শাল আর্ট শিখছে আলিফা আহমেদ। পড়াশোনা করছে হিড ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে অষ্টম শ্রেণিতে। সে বলে, ‘আগে একা একা বাসা থেকে বের হতে ভয় করত। জুডো ও কারাতে শেখার ফলে সাহস বেড়েছে। এখন একা বাইরে চলাচল করতে ভয় করে না। এ ছাড়া শারীরিকভাবে ফিট হয়েছি। ফলে স্কুলের বিভিন্ন স্পোর্টসে অন্যদের থেকে বেশি পুরস্কার পাচ্ছি।’ জুডো ও কারাতে শেখার ফলে দেশ-বিদেশের প্রতিযোগিতায়ও অংশগ্রহণ করতে পারবে।

কারাতে জাপানি শব্দ। এর মানে খালি হাত। মানে খালি হাতে আত্মরক্ষার কৌশল। আর জুডো হলো প্রতিপক্ষকে মাটিতে ফেলে দেওয়া বা আছাড় মারার কৌশল। দুটোতেই প্রতিপক্ষকে খুব একটা আঘাত না করে আত্মসমর্পণে বাধ্য করা বোঝায়। জুজুত্সু হলো এসবের মিশ্রণ। এখানে লাথি, ঘুষি, আছাড়—সবই চলে।

কারাতে ও জুডো শেখার জন্য প্রশিক্ষণকেন্দ্র থেকে পোশাক কিনতে পারো। আবার চাইলে নিজেও বিভিন্ন স্পোর্টসের দোকান থেকে সংগ্রহ করতে পারো। দাম পড়বে এক হাজার থেকে পনেরো শ টাকা।

কথা হয় মার্শাল আর্টস স্টারস একাডেমির প্রধান প্রশিক্ষক শামসির আলম ভূইয়ার সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘জুডো ও কারাতে শেখার ফলে আত্মবিশ্বাস বাড়ে। শরীর ভালো থাকে। চলার পথে নিজেকে রক্ষার কৌশল জানতে পারা যায়। আমার অনেক ছাত্র আছে, যারা বিভিন্ন জায়গায় প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করছে। অনেকে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় পুরস্কার পেয়েছে। বিদেশে পড়াশোনা করতে যেতে কারাতে ও জুডো বাড়তি যোগ্যতা হিসেবে কাজ করে। অর্জন করতে পারো নানা ধরনের সম্মানজনক বেল্ট ও পদক। এ ছাড়া কাউকে আক্রান্ত হতে দেখলে তার সাহায্যে এগিয়ে আসাটাও তো কম কাজের কাজ নয়।’

প্রশিক্ষকের সঙ্গে কথা বলে আরো জানা গেল, কারাতের প্র্যাকটিস করতে হয় সকালে ও বিকালে। প্রশিক্ষণকেন্দ্রগুলোতে সাধারণত ভোর থেকে সকাল আটটা পর্যন্ত চলে প্রশিক্ষণ। বিকেল ৪টা ৩০ থেকে ৬টা ৩০ পর্যন্তও অনেকে শেখায়। কারাতে যেহেতু এক ধরনের ব্যায়াম, তাই প্রশিক্ষণের সময় আহত হওয়ার তেমন আশঙ্কা থাকে না। তবে এটা শুরুর আগে ওয়ার্ম আপ করাটা বাধ্যতামূলক। প্র্যাকটিসের সময় সঙ্গে ফাস্ট এইড বক্স রাখা ভালো।

প্রশিক্ষণকেন্দ্র

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জুডো-কারাতে সেন্টার : ঢাবি শিক্ষার্থী ছাড়াও অন্যরা ভর্তি হতে পারবে। বাইরের শিক্ষার্থীদের জন্য ভর্তি ফি ৯৭০ টাকা। মাসিক ফি ৫০০ টাকা। যোগাযোগ : শারীরিক শিক্ষাকেন্দ্র, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা। ০১৭১৫৯১৪০৫৭।

মার্শাল আর্টস স্টারস একাডেমি : এখানে পাঁচ বছর বয়স থেকেই যে কেউ ভর্তি হতে পারবে। ফি এক হাজার, বেতন ৫০০ টাকা। চার মাস পর পর বেল্ট পরীক্ষা। বিস্তারিত—শামসির আলম ভূইয়া, শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়াম, মিরপুর, ঢাকা। মোবাইল : ০১৭১৭১১৩৩৪৩।

সোবহান মার্শাল আর্ট ট্রেনিং সেন্টার : সপ্তাহে বৃহস্পতি, শুক্র, শনি—এই তিন দিন ক্লাস। দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৪টা, বিকেল ৪টা-৬টা এবং ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত প্রশিক্ষণ চলে। প্রথমে ভর্তির জন্য চার হাজার ৫০০ টাকা লাগবে। এতে ভর্তি ফি দুই হাজার, এক মাসের বেতন এক হাজার ২০০ টাকা এবং ইউনিফরমের এক হাজার ৩০০ টাকা সংযুক্ত। তার পর থেকে প্রতি মাসে বেতন এক হাজার ২০০ টাকা। তিন মাস অন্তর অন্তর বেল্ট পরিবর্তনের পরীক্ষা হয়। এখানে মোট আটটি বেল্ট। তথ্যের জন্য : বাড়ি-৫১০, রাশিয়ান কালচারাল সেন্টার, রোড-৭, রবীন্দ্রসরোবর, সংযুক্ত ৮ নম্বর ব্রিজ, ধানমণ্ডি, ঢাকা। মোবাইল : ০১৭১১৫২৯৩৮১।

ইয়াং ড্রাগন মার্শাল আর্ট : সপ্তাহে শুধু শুক্রবার সকাল ৭টা থেকে ১০টা পর্যন্ত প্রশিক্ষণ হয়। ভর্তি ফি ৭০০ টাকা। মাসিক বেতন ৩০০ টাকা। ইউনিফরমের জন্য আলাদা এক হাজার টাকা দিতে হবে। ঠিকানা : মহাখালী আইপ্যাক স্কুলের সামনের মাঠ। ফোন : ০১৭২৯৭৭০২৩৯।

সুলতানা কামাল মহিলা কমপ্লেক্স : প্রতিদিন বিকেলে প্রশিক্ষণ চলে। ভর্তি ফি ৫০০ টাকা। মাসিক বেতন ৫০০ টাকা। ইউনিফরমের জন্য ১৫০০ টাকা দিতে হবে। যোগাযোগের ঠিকানা : রোড-১১, ধানমণ্ডি, ঢাকা-১২০৫। ফোন : ০২-৯১১৯৭০৪।

হর্ড কারাতে একাডেমি : ভর্তি ফি এক হাজার টাকা। মাসিক বেতন এক হাজার ৫০০ টাকা। বাড়ি-৩৪, রোড-সোনারগাঁও জনপথ, সেক্টর-১১, জম জম টাওয়ারের বিপরীতে, উত্তরা, ঢাকা। মোবাইল : ০১৭০৬০০৬০৪৪।

রাজশাহী কারাতে একাডেমি : রবিবার বাদে সপ্তাহে প্রতিদিন ক্লাস হয়। ভর্তি ফি ৩৫০ টাকা। মাসিক বেতন পড়বে ৩০০ টাকা। এ ছাড়া ইউনিফরম কেনার জন্য বাড়তি এক হাজার টাকা দিতে হবে। চাইলে সাড়ে তিন বছরের কোর্সও করে নিতে পারবে। যোগাযোগ : রাজশাহী কারাতে একাডেমি, সন্তোষপুর, পবা, রাজশাহী (আমচত্বর থেকে ৭০০ মিটার উত্তরে)। মোবাইল : ০১৭৯০২৩৮৯১৫, ০১৮৩১৭৮১২৩৫।

বাংলাদেশ কারাতে দো : ভর্তি ফি ৩১০০ টাকা। এর মধ্যে পোশাকের টাকাও আছে। সকাল-বিকাল যেকোনো ব্যাচেই ভর্তি হতে পারবে। সকালের ব্যাচে ক্লাস ৭টা থেকে ৮টা ৩০ পর্যন্ত। শনি, সোম, বুধ—এই তিন দিন ক্লাস হয় সকালের ব্যাচে। আর বিকেলের ব্যাচের ক্লাস শুক্রবার বাদে প্রতিদিন বিকেল ৫টা থেকে ৬টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত। যোগাযোগ : ২৭৮/৩ (দ্বিতীয় তলা), এলিফ্যান্ট রোড, কাঁটাবন, ঢাকা। ০২-৮৬২৫৩৫৮।

চট্টগ্রামে শেখার জায়গা

হোনকে সোতোকান কারাতে-দো অ্যাসোসিয়েশন : ৬৪ এস এস খালেদ রোড, উত্তর আসকার দীঘি, চট্টগ্রাম। ফোন : ০১৮১৭৭০০৭০০।

চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থা : সিজেকেএস ভবন, তৃতীয় তলা, এম এ আজিজ স্টেডিয়াম। চট্টগ্রাম। ০৩১-৬৩৭৮৫২।

ফুলকি : ৪৬ বৌদ্ধ মন্দির সড়ক, নন্দনকানন, চট্টগ্রাম। ০৩১-৬১৮১৩৭।

খুলশী কারাতে ক্লাব : ১০ জাকির হোসেন রোড, দক্ষিণ খুলশী, ২ নম্বর রোড, চট্টগ্রাম। ০১৮১৯৬৪৮৪৫৬।

 

মন্তব্য