kalerkantho

শনিবার । ২০ জুলাই ২০১৯। ৫ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৬ জিলকদ ১৪৪০

বিভিন্ন কোরে জনবল নেবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী

৫৩তম বিএমএ স্পেশাল কোর্স (ইঞ্জিনিয়ার্স/ সিগন্যালস/ইএমই/এইসি) এবং ৪৬তম ডিএসএসসি (রিমাউন্ট ভেটেরিনারি অ্যান্ড ফার্ম কোর)-এর মাধ্যমে বিভিন্ন কোরে জনবল নেবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। প্রার্থীদের আবেদন করতে হবে অনলাইনে ২০ জুলাইয়ের মধ্যে। বিস্তারিত জানাচ্ছেন জুবায়ের আহম্মেদ

১০ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



বিভিন্ন কোরে জনবল নেবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী

সাধারণ যোগ্যতা

বয়স অনূর্ধ্ব ২৮ বছর (১ জানুয়ারি ২০২০ তারিখে)।

উচ্চতা পুরুষের ক্ষেত্রে ১.৬৩ মিটার অর্থাত্ ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি এবং মহিলাদের ক্ষেত্রে ১.৫৭ মিটার (৫ ফুট ২ ইঞ্চি)। পুরুষের ক্ষেত্রে ওজন ৫৭ কেজি (১২৬ পাউন্ড) এবং মহিলাদের ক্ষেত্রে ৪৯ কেজি (১০৯ পাউন্ড)। বুকের মাপ পুরুষের ক্ষেত্রে স্বাভাবিক ০.৭৬ মিটার (৩০ ইঞ্চি ) এবং প্রসারণ ০.৮১ মিটার (৩২ ইঞ্চি) আর মহিলাদের ক্ষেত্রে স্বাভাবিক ০.৭১ মিটার (২৮ ইঞ্চি) এবং প্রসারণ ০.৭৬ মিটার (৩০ ইঞ্চি)। উচ্চতা ও বয়স অনুসারে সশস্ত্র বাহিনীর জন্য নির্ধারিত স্কেলের অতিরিক্ত ওজন হলে অযোগ্য বিবেচিত হবে। পুরুষের ক্ষেত্রে অবিবাহিত (১ জানুয়ারি ২০২০ তারিখে ২৬ বছরের বেশি বয়স হয়েছে এমন বিবাহিত প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন) এবং মহিলাদের ক্ষেত্রে বিবাহিত/অবিবাহিত প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন।

 

শিক্ষাগত যোগ্যতা

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন কর্তৃক স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উত্তীর্ণ প্রার্থীরা নিম্নবর্ণিত কোরগুলোয় যোগ্যতা সাপেক্ষে আবেদন করতে পারবেন—

ইঞ্জিনিয়ার্স কোর : পুরুষ/মহিলা এসএসসি ও এইচএসসি উভয় পরীক্ষায় জিপিএ ৪.৫০-সহ নিম্নবর্ণিত বিষয়ের ওপর বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে কমপক্ষে সিজিপিএ ৩.০০ প্রাপ্ত হতে হবে (৪.০০ এর মধ্যে)। বিষয়গুলো হলো—সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, নেভাল আর্কিটেকচার অ্যান্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং, আর্কিটেকচার ইঞ্জিনিয়ারিং।

সিগন্যাল কোর : সিগন্যাল কোরের পুরুষ প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। এসএসসি ও এইচএসসি উভয় পরীক্ষায় জিপিএ ৪.৫০সহ নিম্নবর্ণিত বিষয়ের ওপর বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে কমপক্ষে সিজিপিএ ৩.০০ প্রাপ্ত হতে হবে (৪.০০ এর মধ্যে)। বিষয়গুলো হলো—কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেকট্রিক্যাল ইলেকট্রনিকস অ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং।

ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং (ইএমই) কোর : পুরুষ/ মহিলা। এসএসসি ও এইচএসসি উভয় পরীক্ষায় জিপিএ ৪.৫০সহ নিম্নবর্ণিত বিষয়ের ওপর বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে কমপক্ষে সিজিপিএ ৩.০০ প্রাপ্ত হতে হবে (৪.০০ এর মধ্যে)। বিষয়গুলো হলো—ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং/ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিক অ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, নেভাল আর্কিটেকচার অ্যান্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং, ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড প্রডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং, বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, নিউক্লিয়ার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, মেটেরিয়াল অ্যান্ড মেটালার্জিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, অ্যারোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং।

আর্মি এডুকেশন কোর : পুরুষ/ মহিলা প্রার্থী আবেদন করতে পারবে। এসএসসি ও এইচএসসি উভয় পরীক্ষায় জিপিএ ৪.০০সহ নিম্নবর্ণিত বিষয়গুলোয় কমপক্ষে সিজিপিএ ৩.০০ (৪.০০ এর মধ্যে) ফলাফলে স্নাতক সম্মানসহ স্নাতকোত্তর ডিগ্রি হতে হবে—গণিত, পদার্থ, রসায়ন, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক, বাংলা, আরবি, এমবিএ (অ্যাকাউন্টিং/ফিন্যান্স), ইংরেজি।

রিমাউন্ট ভেটেরিনারি অ্যান্ড ফার্ম কোর : পুরুষ প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন। এসএসসি ও এইচএসসি উভয় পরীক্ষায় জিপিএ ৪.০০সহ DVM/DVM and AH ডিগ্রিসহ ইন্টার্নশিপসম্পন্নকারী এবং কমপক্ষে সিজিপিএ ৩.০০ প্রাপ্ত হতে হবে (৪.০০ এর মধ্যে)।

 

আবেদন প্রক্রিয়া

অনলাইনে আবেদন করতে হবে ২০ জুলাইয়ের মধ্যে। https://joinbangladesharmy.army.mil.bd ওয়েবসাইটে গিয়ে Home Page-এর সংশ্লিষ্ট কোর্সে APPLY করতে হবে। আবেদন ফি এক হাজার টাকা (অফেরতযোগ্য) দিতে হবে Trust Bank,t-cash,VISA/Master Card, bkash, Roket ইত্যাদির মাধ্যমে। আবেদন প্রক্রিয়াতেই ওয়েবসাইটে বর্ণিত পদ্ধতি অনুসরণ করে আবেদন ফি প্রদান করা যাবে এবং তাত্ক্ষণিক লিখিত পরীক্ষার জন্য কল-আপ লেটার পাওয়া যাবে।

 

বাছাই প্রক্রিয়া

লিখিত পরীক্ষা (পেশাগত বিষয়ে ১০০ নম্বর) আগামী ২৬ জুলাই ২০১৯ তারিখ ০৯০০টায় শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল, ঢাকা সেনানিবাসে অনুষ্ঠিত হবে। আবেদন প্রক্রিয়াসম্পন্ন করে প্রার্থীরা কল-আপ লেটার প্রিন্ট করে নেবেন এবং মৌখিক পরীক্ষার সময় কল-আপ লেটার সঙ্গে রাখবেন। লিখিত পরীক্ষার ফল ৮ আগস্ট ২০১৯ তারিখে ওয়েবসাইট ও এসএমএস/টেলিফোনের মাধ্যমে জানানো হবে।

লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের প্রাথমিক স্বাস্থ্য ও মৌখিক পরীক্ষা আগামী ২ থেকে ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ তারিখ পর্যন্ত এএফএমআই, ঢাকা সেনানিবাসে অনুষ্ঠিত হবে। মৌখিক পরীক্ষার সময় সব পরীক্ষার সার্টিফিকেট ও মার্কশিটের মূল কপি দেখাতে হবে। লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের ঢাকা সেনানিবাসে উপস্থিত হয়ে আইএসএসবির কাছে পরীক্ষা/ সাক্ষাত্কারের জন্য নির্ধারিত তারিখে উপস্থিত হতে হবে। পরীক্ষা/সাক্ষাত্কারের তারিখ আইএসএসবির ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। উপরোক্ত সব পরীক্ষায় যোগ্যতা অর্জন সাপেক্ষে শূন্য আসনের অনুকূলে মেধাক্রম অনুযায়ী প্রার্থীদের সেনাসদর, এজির শাখা, পিএ পরিদপ্তর কর্তৃক চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত ঘোষণা ও পরবর্তী সময়ে যোগদানের নির্দেশিকা প্রদান করা হবে।

 

প্রশিক্ষণ

চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত হওয়ার পর ক্যাডেট হিসেবে বিএমএতে ২৪ সপ্তাহ প্রশিক্ষণ গ্রহণ করবেন। প্রশিক্ষণ শেষে ইঞ্জিনিয়ার্স, সিগন্যালস ও ইএমই কোরের অফিসাররা ক্যাপ্টেন পদে কমিশন এবং বিএমএতে যোগ দেওয়ার তারিখ থেকে ২ বছরের পশ্চাত্প্রবীণতা প্রাপ্ত হবেন। এইসি এবং আরভিঅ্যান্ডএফসি কোরের অফিসাররা ‘লেফটেন্যান্ট’ পদে কমিশন পাবেন।

 

সুযোগ-সুবিধা

সরকার কর্তৃক নির্ধারিত অন্যান্য সুবিধাসহ সশস্ত্র বাহিনীর বেতনক্রম অনুযায়ী অফিসাররা বেতন ও ভাতা প্রাপ্ত হবেন। ব্যক্তিগত যোগ্যতার ভিত্তিতে উচ্চতর শিক্ষা ও বিদেশে প্রশিক্ষণের সুযোগ পাবেন। এ ছাড়া বাসস্থানসহ আরো অনেক সুযোগ-সুবিধা পাবেন নিয়োগপ্রাপ্তরা।

 

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি এই লিংকে : joinbangladesharmy.army.mil.bd/view_circular?CircularId=105

মন্তব্য