kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৩ আষাঢ় ১৪২৮। ১৭ জুন ২০২১। ৫ জিলকদ ১৪৪২

শেষ পাতে মিঠাই

খাওয়া শেষে মিষ্টি না হলে কি বাঙালির চলে? ঘরে তৈরি মিষ্টির রেসিপি দিয়েছেন নাজিয়া ফারহানা

১২ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



শেষ পাতে মিঠাই

রসগোল্লা

উপকরণ

ছানার জন্য : তরল দুধ ১ লিটার, ভিনেগার বা লেবুর রস ৩ টেবিল চামচ।

সিরার জন্য : চিনি ১ কাপ, পানি ৪ কাপ ও এলাচ ২-৩টি।

রসগোল্লার জন্য : দুধের ছানা ১ লিটার, ময়দা আধা টেবিল চামচ ও বেকিং সোডা একচিমটি।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. প্রথমে পাত্রে দুধ জ্বাল দিন। বলক এলে ভিনেগার দিয়ে চুলা বন্ধ করে দিন।

২. ছানা জমাট বাঁধলে পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন, যাতে ভিনেগারের গন্ধ না থাকে। এবার পাতলা কাপড়ে ছেঁকে ভালোভাবে পানি ঝরিয়ে নিন।

৩. একটি পাত্রে ছানা, ময়দা ও বেকিং সোডা ভালোভাবে ময়ান দিন ১৫ থেকে ২০ মিনিট। মাখানো ভালো না হলে মিষ্টি ভালো হয় না। এরপর নিজের পছন্দমতো আকারে গোল করে নিন।

৪. চিনি ও পানি চুলায় বসিয়ে বলক উঠলে ছানার গোল্লা দিয়ে চুলার আঁচ বাড়িয়ে রাখুন পাঁচ মিনিট। এরপর চুলার আঁচ মাঝারি করে ২০ থেকে ২৫ মিনিট জ্বাল দিন।

৫. সিরা ঘন হয়ে গেলে গরম পানি দিন। সিরা অবশ্যই পাতলা হতে হবে। ঘন সিরায় মিষ্টি শক্ত হয়ে যায়। সিরার মধ্যে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস দিন তাহলে ঘন হয়ে জমে যাবে না।

৬. একটি রসগোল্লা উঠিয়ে বাটিতে পানি নিয়ে ছেড়ে দেখুন। যদি ডুবে থাকে তাহলে বুঝতে হবে হয়ে গেছে। না হলে আরো কিছু সময় জ্বাল দিতে হবে।

৭. চুলা থেকে নামানোর পর ঠাণ্ডা হতে এবং রস ঢুকতে চার-পাঁচ ঘণ্টা সময় লাগবে। এরপরই তৈরি হয়ে যাবে তুলতুলে নরম রসগোল্লা।

বেকড ইয়োগার্ট

উপকরণ

দুধ ২ লিটার, চিনি আধাকাপ, টক দই ২৫০ গ্রাম

যেভাবে তৈরি করবেন

১. দুই লিটার দুধের সঙ্গে আধাকাপ চিনি দিয়ে জ্বাল দিন। দুধ এক লিটার হয়ে এলে চুলা থেকে নামিয়ে নিন।

২. দুধ ঠাণ্ডা হলে নামিয়ে টক দই ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।

৩. ওভেন পাঁচ মিনিট প্রি হিট দিয়ে নিন। এবার ওভেন প্রুপ বাটিতে দই ওভেনে দিয়ে দিন।

৪. এখন ওভেনে ১৩০ ডিগ্রিতে ৫০ মিনিট থেকে এক ঘণ্টা বেক করুন। এক ঘণ্টা পার হলে দই জমে যাবে।

৫. ৩০ মিনিট পর ওভেন থেকে দই বের করুন। কারণ গরম অবস্থায় দই নাড়া খেলে পানি বের হয়ে যায়।

৬. দইয়ের বাটি ঠাণ্ডা হলে বের করে ফ্রিজে রেখে পরিবেশন করুন।

ইলিশ পেটি সন্দেশ

উপকরণ

ছানা ১ কাপ, গুঁড়া দুধ ১ কাপ, মাখন ১ টেবিল চামচ, খেজুরের গুড় বা নলেন গুড়  এক কাপ তিন ভাগের এক ভাগ।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. ছানা ভালো করে হাত দিয়ে মথে নিন। একদম মসৃণ হয়ে তেল বেরিয়ে এলে গুঁড়া দুধ দিয়ে আবার মথে নিন। কিছুক্ষণ এক পাশে রেখে দিন।

২. চুলায় মৃদু আঁচে প্যান বসিয়ে মাখন দিন। মাখন গলে গেলে গুড় দিয়ে নাড়তে থাকুন।

৩. মথে রাখা ছানা দিয়ে সব কিছু ভালো করে মিশিয়ে নিন। শুকিয়ে আসার আগ পর্যন্ত কম আঁচে অনবরত নাড়ুন।

৪. মিশ্রণ প্যান ছেড়ে উঠে এলে নামিয়ে আধা ঘণ্টা রেখে ঠাণ্ডা করুন। এরপর আবার মথে নিন ছানা।

৫. একটি বাটার পেপার বিছিয়ে ছানার ডো রাখুন। ওপরে আরেকটি বাটার পেপার বিছিয়ে দিন। এবার রুটি বেলার বেলুন দিয়ে আধা ইঞ্চি পুরু করে রুটি বেলে নিন ছানার।

৬.  একটি হার্ট শেপের কুকি কাটার দিয়ে ছানার রুটি কেটে নিন। পেটের অংশের জন্য একটি ছোট গোল কুকি কাটার হাত দিয়ে চ্যাপ্টা করে লম্বাটে শেপ দিন। এবার পেটের অংশ কেটে মাঝে সামান্য গুড় লাগিয়ে নিন। ছোট একটি ছানার বল পেটের অংশে লাগিয়ে দিন।

৭. ব্যস! হয়ে গেল ইলিশ পেটি সন্দেশ।

আপেল পেড়া

উপকরণ

গুঁড়া দুধ ১ কাপ, পাউডার সুগার আধাকাপ, কনডেন্সড মিল্ক ২ টেবিল চামচ, ঘি ১ টেবিল চামচ, এলাচ গুঁড়া একচিমটি, ফুড কালার প্রয়োজনমতো (লাল ও হলুদ), লবঙ্গ কয়েকটি।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. প্রথমে প্যানে গুঁড়া দুধ, পাউডার সুগার, কনডেন্সড মিল্ক দিয়ে মাঝারি আঁচে নাড়তে থাকুন। তিনটি উপকরণ ভালোমতো মিশে গেলে এতে প্রয়োজনমতো ফুড কালার (হলুদ) মেশান।

২. এবার এলাচ গুঁড়া দিন। মিশ্রণ প্যানের গা ছেড়ে এলে নামিয়ে হালকা ঠাণ্ডা করে হাতে ঘি মেখে আপেলের শেপ দিন।

৩. এরপর ব্রাশ দিয়ে লাল ফুড কালার আপেলের গায়ে লাগিয়ে ওপরে একটি লবঙ্গ বসিয়ে দিন।

৪. ব্যস, আপেল পেড়া প্রস্তুত।