kalerkantho

রবিবার। ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৭ জুন ২০২০। ১৪ শাওয়াল ১৪৪১

একাদশ-দ্বাদশ ফ্যাক্টস : রসায়ন দ্বিতীয় পত্র

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



►          এসিড বৃষ্টির প্রভাবে জীববৈচিত্র্যের মারাত্মক ক্ষতি হয়।

►          ব্রনস্টেড-লাউরির তত্ত্বটি প্রোটনীয় তত্ত্ব নামে পরিচিত।

►          তাপমাত্রা ও চাপ বাড়লে ব্যাপনের হার বাড়ে, তাপমাত্রা ও চাপ কমলে ব্যাপনের হারও কমে।

►          এলপিজির প্রধান উৎস প্রাকৃতিক গ্যাস।

►          বিজ্ঞানী অ্যামাগা সর্বপ্রথম অ্যামাগা বক্র পর্যবেক্ষণ করেন।

►          WHO কর্তৃক কোমল পানীয়তে অনুমোদিত BOD-এর মান ৬ পিপিএম।

►          এসিড-ক্ষার প্রশমন বিক্রিয়ায় উৎপন্ন হয় লবণ ও পানি। যে গ্যাসীয় মণ্ডল পৃথিবীকে আবৃত করে রেখেছে তাকে বায়ুমণ্ডল বলে।

►         বায়ুমণ্ডলের বিস্তৃতি ভূপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৫০০ কিলোমিটার পর্যন্ত।

►          ক্যাডমিয়ামযুক্ত পানি গ্রহণ করলে বমি বমি ভাব হয়, ফুসফুস জালাপোড়া করে, কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত হয়, রক্তচাপ বাড়ে, রক্তশূন্যতা দেখা দেয়।

►          রং ও সিরামিক শিল্পের বর্জ্যের সঙ্গে কোবাল্ট পানিতে মিশে পানিদূষণ ঘটায়।

►          পারদ, ডিডিটি, গ্যামাক্সিন, অলড্রিন ইত্যাদি নন-বায়োডিগ্রেডেবল দূষক।

►          আর্সেনিক মানুষের শরীরের বিভিন্ন এনজাইম ও প্রোটিনকে নিষ্ক্রিয় করে দেয়।

►          তাপবিদ্যুৎ উৎপাদনে মিঠা পানির ৫০ শতাংশ ব্যবহার করা হয়।

►          মূলত CO2, CH4, O3, CFC, N2O ও জলীয় বাষ্পকে গ্রিনহাউস গ্যাস বলা হয়।

►          মেলামাইন হলো একটি পলি অ্যামাইড ক্রসলিংক থার্মোসেটিং পলিমার।

►          যেসব অণুতে ৫০ কিংবা এর অধিক মনোমার একক থাকে তাকে পলিমার বলে।

►          পলিথিন ১০০% রিসাইকেলযোগ্য উপাদান।

►          অ্যালকিন, অ্যালকাইন ওজোনাইড যুত যৌগ উৎপন্ন করতে পারে।

►          বার্জেলিয়াস ‘প্রাণশক্তি’ মতবাদের জনক।

►          তেল বা চর্বিকে আর্দ্র বিশ্লেষণ করলে গ্লিসারিন উৎপন্ন হয়।

►          কাচের মূল উপাদান SiO2

►          বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় গ্যাসক্ষেত্র তিতাস গ্যাসক্ষেত্র।

►          প্রাকৃতিক গ্যাসকে উচ্চ চাপে সংনমিত করে CNG উৎপন্ন করা হয়।

►          নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় ১ লিটার দ্রবণে দ্রবের এক-দশমাংশ মোল দ্রবীভূত থাকলে একে ডেসিমোলার দ্রবণ বলে।

►          ডলোমাইটের সংকেত CaCO3. MgCO3

►          নির্দেশক বর্ণ পরিবর্তনের মাধ্যমে প্রশমন বিন্দু নির্দেশ করে।

►          প্রমাণ দ্রবণের সাহায্যে টাইট্রেশন করা হয়ে থাকে।

►          মোলার দ্রবণের একক molL-1.

►          মোলাল দ্রবণের একক molkg-1 .

►          HCl, H2SO4, HNO3, HClO4, HBr, HI ইত্যাদি শক্তিশালী এসিড।

►          NaOH, KOH, Ca(OH)2, Mg(OH)2 ইত্যাদি শক্তিশালী ক্ষার।

 

সংকলন : জুবায়ের আহম্মেদ

মন্তব্য