kalerkantho

শুক্রবার  । ১৮ অক্টোবর ২০১৯। ২ কাতির্ক ১৪২৬। ১৮ সফর ১৪৪১              

অভ্যন্তরীণ রুটেও মনোযোগ বাড়াচ্ছে রিজেন্ট এয়ার

আসিফ সিদ্দিকী   

২৪ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



অভ্যন্তরীণ রুটেও মনোযোগ বাড়াচ্ছে রিজেন্ট এয়ার

সালমান হাবিব, ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর, রিজেন্ট এয়ার

বেশ কয়েক বছর আন্তর্জাতিক রুটে নজর বেশি ছিল দেশের শীর্ষ বিমান সংস্থা রিজেন্ট এয়ারের; সেখানে ধারাবাহিক সফলতার পর এখন দেশের অভ্যন্তরীণ রুটে মনোযোগ দিচ্ছে বিমান সংস্থাটি।

এরই অংশ হিসেবে তিনটি নতুন এটিআর উড়োজাহাজ কিনছে; আগামী ২০২০ সালের মধ্যেই সেগুলো রিজেন্টের বহরে যুক্ত হবে। ফলে দেশের সাতটি অভ্যন্তরীণ রুট এবং বেশ কয়েকটি নতুন রুটও চালু করবে বিমান সংস্থাটি।

রিজেন্ট এয়ারের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর সালমান হাবিব বলছেন, ‘নতুন এটিআর উড়োজাহাজ দিয়ে আমরা কমপক্ষে সাতটি নতুন রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করব; সঙ্গে যোগ হবে বেশ কয়টি নতুন রুট।’

বর্তমানে রিজেন্ট এয়ার অভ্যন্তরীণ রুটে (চট্টগ্রাম-ঢাকা এবং ঢাকা-কক্সবাজার) বোয়িং ৭৩৭-৮০০ উড়োজাহাজ দিয়েই যাত্রী পরিবহন করছে। এই দুটি রুটের মধ্যে চট্টগ্রাম-ঢাকা রুটে যাত্রীদের প্রথম পছন্দ রিজেন্ট এয়ার। জানা গেছে, ২০১০ সালে অভ্যন্তরীণ রুটে ড্যাশ-৮ দিয়ে যাত্রী পরিবহন শুরু করে চট্টগ্রামভিত্তিক স্বনামধন্য ও ঐতিহ্যবাহী শিল্পপ্রতিষ্ঠান হাবিব গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান রিজেন্ট এয়ারওয়েজ। প্রথম দিকে তাদের নজর ছিল অভ্যন্তরীণ রুটে; ২০১৩ সালে প্রথম আন্তর্জাতিক রুটে যাত্রী পরিবহন শুরু করে রিজেন্ট এয়ার। ধাপে ধাপে আন্তর্জাতিক রুটের সংখ্যা বেড়ে ৯টিতে উন্নীত হয়। যদিও এখন দুটি রুট বন্ধ করে সাতটি রুটেই মনোযোগ বাড়িয়েছে রিজেন্ট এয়ার।

১১ বছর ধরে সুনামের সঙ্গে এভিয়েশন ব্যবসা পরিচালনা করছে রিজেন্ট এয়ার। রিজেন্টের বহরে বোয়িং ৭৩৭ আছে ছয়টি। বেসরকারি বিমান সংস্থাগুলোর মধ্যে রিজেন্ট এয়ারই সবচেয়ে বেশি আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পরিচালনা করছে।

রিজেন্ট এয়ার এত দিন অভ্যন্তরীণ রুটে ড্যাশ-৮ উড়োজাহাজ দিয়ে যাত্রী পরিবহন করেছে। নতুন করে অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট বাড়ানোর আগে সংস্থাটি প্রথমবারের মতো এটিআর উড়োজাহাজ আনছে। কেন জানতে চাইলে রিজেন্ট এয়ারের পরিচালক (মার্কেটিং) সোহেল মজিদ বলছেন, ‘এই অঞ্চলে ফ্লাইট পরিচালনার ক্ষেত্রে এটিআর অনেক বেশি খরচ সাশ্রয়ী আর আমাদের মতো প্রাইস সেনসেটিভ মার্কেটের জন্য এটি সঠিক সিদ্ধান্ত। এ ছাড়া এটিআর উড়োজাহাজের খুচরা যন্ত্রাংশ ড্যাশ-এর চেয়ে সহজলভ্য। জানা গেছে, বর্তমানে রিজেন্ট এয়ার সাতটি আন্তর্জাতিক রুটে দক্ষতার সঙ্গে সঠিক সময়ে ফ্লাইট পরিচালনা করছে। আন্তর্জাতিক রুটে যাত্রী পরিবহনের দিক থেকে দেশীয় বিমান সংস্থাগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ বিমানের পরই রিজেন্টের অবস্থান।’

আন্তর্জাতিক রুটে সফলতার পেছনে অন টাইম, সর্বোচ্চ সেবা এবং প্রতিযোগিতামূলক ভাড়া—এই তিনটি বিষয় কাজ করছে উল্লেখ করে সালমান হাবিব বলেন, ‘আন্তর্জাতিক রুটের মধ্যে ঢাকা-কলকাতা, চট্টগ্রাম-কলকাতা, ঢাকা-দোহা, ঢাকা-মাসকাট রুটে রিজেন্ট এয়ার যাত্রী পরিবহনের শীর্ষে রয়েছে। আর ব্যাংকক রুটে আমরা সর্বোচ্চ যাত্রী পরিবহন করেছিলাম; কিন্তু ইদানীং ভিসা কম ইস্যু হওয়ায় শুধু আমরা নই; সব বিমান সংস্থা এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং হচ্ছে।’

রিজেন্ট কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রাম থেকে কলকাতা রুটে রিজেন্ট এখন মার্কেট লিডার। প্রথম দিকে সপ্তাহে তিন দিন ফ্লাইট ছিল। এরপর ফ্লাইট সংখ্যা বাড়িয়ে সপ্তাহে পাঁচ দিন করা হয়েছিল। এখন যাত্রীসংখ্যা এত বেশি যে সপ্তাহে সাত দিনই ফ্লাইট পরিচালনা করতে হচ্ছে।

বর্তমানে আন্তর্জাতিক রুটে (চট্টগ্রাম-কলকাতা এবং ঢাকা-কলকাতা) ১৪টি ফ্লাইট পরিচালনা করছে রিজেন্ট এয়ার। চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে ঢাকা-চেন্নাই রুটে বিমান পরিচালনা শুরু করছে বিমান সংস্থাটি। এ ছাড়া আবুধাবি রুটে চলতি নভেম্বরে উড্ডয়নের পরিকল্পনা রয়েছে তাদের; এ জন্য ফ্রিকোয়েন্সি বরাদ্দ চূড়ান্ত হয়েছে।

যাত্রীদের আধুনিক টিকেটিং সেবা নিশ্চিত করতে রিজেন্ট এয়ার চালু করেছে অ্যাপস, যা দিয়ে যাত্রীরা সরাসরি টিকিট কিনতে পারছেন। আর অ্যাপসের মাধ্যমে টিকিট কিনলে সব টিকিটে ১০ শতাংশ ছাড় দেওয়া হচ্ছে।

মন্তব্য