ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১০ অক্টোবর ২০১৩, ২৫ আশ্বিন ১৪২০, ৪ জিলহজ ১৪৩৪
¦
দুই বাংলার গানকথায় আছে সংগীতের কোনো সীমানা-রেখা নেই। পথ যতই হোক দূর, সেখানে ঠিকই পৌঁছে যায় সংগীতের সুর! সংগীত বহমান পৃথিবীর শুরু থেকে শেষ প্রান্তে। আর সংগীতের ভাষা যদি নিজস্ব তখন আর কথাই নেই। বাংলাদেশ এবং কলকাতা এই দুই বাংলাকে একই সূত্রে গেঁথে চলেছে সংগীত। লিখেছেন নজরুল ইসলাম সুজন
ঈদ অথবা বিশেষ কোনো দিবসকে সামনে রেখে দুই বাংলার সংগীতের সম্পর্কটা যেন গাঢ় হয় বেশি। এ সময়টায় দুই দেশের শিল্পীরা এপার থেকে ওপারে যান, ওপার থেকে এপারে আসেন। যাওয়ার চেয়ে ওই বাংলার শিল্পীদের এপারে আসা শিল্পীর সংখ্যাই বেশি। এভাবে শিল্পীদের অতিথি হয়ে গান করতে যাওয়া-আসার বিষয়টি দারুণ উপভোগ করে একটি শ্রেণী! আবার কারো কারো এটা ভালো লাগে না। এটাকে তারা একটু বাঁকা চোখে দেখে। সে যাই হোক, এর ফলে যে দুই বাংলার মধ্যে সংস্কৃতি ও ভাবের আদান-প্রদান হচ্ছে তা কিন্তু চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেওয়ার প্রয়োজন নেই। তবে বছর দেড়-দুয়েক ধরে বিষয়টি বেশ জোরালো হয়েছে। এই সময়ে কলকাতার বিভিন্ন চ্যানেলে বাংলাদেশি শিল্পীদের উপস্থিতির হার বেড়েছে। এ দেশেও এসে গেছেন সেখানকার অনেক শিল্পী। তবে এই সময়ে দেশ টিভি এবং আরটিভিতে কলকাতার শিল্পীদের চোখে পড়েছে ব্যাপকভাবে! কিছু কিছু অনুষ্ঠান তো তুমুল আগ্রহ নিয়ে দেখেছে শ্রোতা। গত ঈদে একই অনুষ্ঠানে দুই বাংলার শিল্পীদের হাজির করে এশিয়ান টিভি। 'মিউজিক আওয়ার' নামের এই অনুষ্ঠানের বিভিন্ন পর্বে জুটি হয়ে আসেন রুনা লায়লা-ঊষা উত্থুপ, সাবিনা ইয়াসমীন-নচিকেতা, কুমার বিশ্বজিৎ-রূপঙ্কর এবং আঁখি আলমগীর-স্বপন বসু। সে ঈদেই আবার দেশি শিল্পীদের পাশাপাশি দেশ টিভির 'কলের গান' অনুষ্ঠানের বিশেষ পর্বে গান করেন কলকাতার অনুপম রায়, লোপামুদ্রা মিত্র এবং শ্রীকান্ত আচার্য। আর আরটিভির একটি লাইভে গান করেন রূপঙ্কর। সেই ধারাবাহিকতা বজায় থাকছে এই ঈদেও। দেশ টিভি সূত্রে জানা গেছে, এবার 'কলের গান' অনুষ্ঠানের তিনটি পর্বে গান করবেন কলকাতার দুই শিল্পী এবং এক ব্যান্ড। দুই শিল্পী হলেন রাঘব ও সোমলতা। আর ব্যান্ডটি হলো 'দোহার'। অন্যদিকে ঈদে প্রচারের জন্য এরই মধ্যে কলকাতায় একটি অনুষ্ঠানের শুটিং করেছে এশিয়ান টিভি। এতে রয়েছেন অনুপম রায় ও পড়শী। টিভি অনুষ্ঠানের পাশাপাশি বছরখানেক ধরে দুই বাংলার অডিও বাজারেও লেগেছে সম্প্রীতির ছোঁয়া। আগে দেখা যেত কলকাতা থেকে মূলত বাংলাদেশি শিল্পীদের রবীন্দ্র কিংবা নজরুলসংগীতের অ্যালবাম প্রকাশ পাচ্ছে। সেই পরিধিটা এখন বড় হয়েছে। রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, শারমীন সাথী ইসলাম, অদিতি মহসিন, লিলি ইসলামদের সঙ্গে এখন যোগ হচ্ছেন আধুনিক গানের শিল্পীরা। কলকাতা থেকে গত এক বছরে বাংলাদেশি শিল্পীদের বেশ কিছু অ্যালবাম বের হয়েছে। গত বছর পূজায় বেরিয়েছিল জয় শাহ্রিয়ারের 'একলা আমি : বেস্ট অব জয় শাহ্রিয়ার'। এরপর আসে জুয়েল মোর্শেদের 'একলা প্রথম', বাপ্পা মজুমদারের 'বেঁচে থাক সবুজ', মিক্সড 'লেটারস ফ্রম শিলিগুড়ি' আহমেদ রাজীবের 'অথচ' প্রভৃতি। এবার পূজা উপলক্ষে এরই মধ্যে এসেছে ফাহমিদা নবীর 'ইচ্ছে হয়' এবং জয় ও পারভেজের 'দি ব্রাদারহুড প্রজেক্ট'। প্রকাশ হওয়ার কথা রয়েছে নবীন গায়ক রনির 'নীল আকাশ'। কুমার বিশ্বজিতের নতুন অ্যালবামও কলকাতার বাজার থেকে প্রকাশ পাওয়ার কথা রয়েছে। অন্যদিকে কলকাতায় প্রকাশের লক্ষ্যে দুই বাংলার শিল্পীদের নিয়ে একটি মিক্সড অ্যালবাম তৈরি করছেন জুয়েল মোর্শেদ। এটি প্রডিউস করছে গান বাংলা টিভি।
শহীদের সঙ্গে 'এক জীবন' গানটিতে কণ্ঠ দিয়ে শুভমিতা এখন বাংলাদেশের শ্রোতাদের কাছে অনেক পরিচিত নাম। একই সময়ে আরফিন রুমির সঙ্গে কণ্ঠ দেন 'প্রতিদিন দেখি তোমায়' শিরোনামে একটি গানে। সেই সাফল্যের ধারাবাহিকতায় শহীদ শুভমিতাকে নিয়ে তৈরি করেন 'এক জীবন-২'। সামনে 'এক জীবন-থ্রি'রও ঘোষণা দিয়ে রেখেছেন এই গায়ক। শহীদ তাঁর নতুন অ্যালবাম 'নীল ছোঁয়া'য়ও শুভমিতার সঙ্গে একটি গান করেছেন। গানটির শিরোনাম 'অবুঝ রাত'। এরই মধ্যে শুভমিতার সঙ্গে 'চোখেরই পলকে' এবং 'যদি তুমি' শিরোনামে দুটি দ্বৈত গান করেছেন রিজভী ওয়াহিদ। এই গান দুটিতেও এসেছে দারুণ সাফল্য! বাংলাদেশের চলচ্চিত্রেও অভিষেক হয়েছে শুভমিতার। 'মোস্ট ওয়েলকাম-টু' চলচ্চিত্রের একটি গানে শহীদের সঙ্গে দ্বৈতকণ্ঠ দিয়েছেন তিনি। এরপর জুয়েল মোর্শেদের সঙ্গে 'বাড়ছে ভালোবাসা' শিরোনামে একটি দ্বৈতকণ্ঠ দিয়েছেন সোমলতা। ঈদে প্রকাশিত ইলিয়াসের 'না বলা কথা-টু' অ্যালবামে একটি দ্বৈত গানে কণ্ঠ দিয়েছেন সোমছন্দা। পড়শীর 'পড়শী-থ্রি' অ্যালবামেও পাওয়া গেছে কলকাতার তিন সুরকার অম্লান, পুপুন ও দেব সেনকে। সংগীতসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা মনে করছেন, সংগীতের এই আদান-প্রদান যত বাড়বে দুই বাংলার মধ্যকার সম্পর্কও তত উন্নত হবে। দুই বাংলারই উচিত হবে আদান-প্রদানের মধ্যে যাতে একটা ভারসাম্য থাকে সেদিকে মনোযোগ দেওয়া।
আজকের পাঠকসংখ্যা
১৩৪৩২১
পুরোনো সংখ্যা
সম্পাদক : ইমদাদুল হক মিলন, উপদেষ্টা সম্পাদক : অমিত হাবিব, ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা, বারিধারা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় বিভাগ : বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বারিধারা, ঢাকা-১২২৯। পিএবিএক্স : ০২৮৪০২৩৭২-৭৫, ফ্যাক্স : ৮৪০২৩৬৮-৯, বিজ্ঞাপন ফোন : ৮১৫৮০১২, ৮৪০২০৪৮, বিজ্ঞাপন ফ্যাক্স : ৮১৫৮৮৬২, ৮৪০২০৪৭। E-mail : info@kalerkantho.com
free counters
Latest News Portal Food Recipe in Bangladesh jobs in Bangladesh