kalerkantho


নিজে বানাই

পুজোর কার্ডে শিউলি ফুল

তারেকা জুজু

১২ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



পুজোর কার্ডে শিউলি ফুল

শরত্ তোমাদের অনেকেরই প্রিয় ঋতু। শিউলিতলায় গিয়ে হাতভর্তি শিউলি নিয়ে বাড়ি ফেরার মজাও অনেক।

আর শারদীয় দুর্গাপূজা? ঢাকঢোল পিটিয়ে পূজা যখন হাজির হয়, তখনো অনেক আনন্দ হয়। পূজায় বন্ধুর জন্য শিউলি ফুলের কার্ড তৈরি করলে কেমন হয় বলো দেখি! 

কার্ডের জন্য তোমার লাগবে এক খণ্ড লম্বা শক্ত কাগজ, সবুজ পোস্টার পেপার, কাঁচি, আইকা আঠা, সাদা শপিং ব্যাগ, কমলা রঙের পোস্টারপেপার, নকশা করা এক খণ্ড কালো কাগজ এবং আর্টিফিশিয়াল ঘাস। 

শুরুতেই এক খণ্ড লম্বা শক্ত কাগজ কেটে নাও যেকোনো টিস্যুপেপারের বক্স থেকে। তারপর ঠিক লম্বা কাগজ খণ্ডটির মাপে কেটে নাও সবুজ পোস্টারপেপারটি। সেটি আইকা আঠা দিয়ে সেঁটে দাও

লম্বা শক্ত কাগজটির গায়ে। বেশ সাবধানে ধীরে ধীরে কাজ করো। নইলে সবুজ পোস্টার কাগজটি কুঁচকে যেতে পারে।

সবুজ পোস্টার কাগজ বসানো শেষে বাতাসে শুকাও ভালোভাবে। তারপর একটি শক্ত কাগজে পাঁচ পাপড়ির একটি শিউলি ফুলের ফরমেট আঁকো। সেটি কাঁচি দিয়ে কেটে একটি সাদা শপিং ব্যাগের ওপর বসিয়ে কলম দিয়ে এঁকে নাও ফুলটি। একইভাবে আরো কয়েকটি ফুল এঁকে কাঁচি দিয়ে কেটে ফেলো। এবার কমলা রঙের পোস্টার কাগজ খুব চিকন করে কাটো কাঁচি দিয়ে। কাগজটির একটি মাথা খুব যত্নে পেঁচাতে আরম্ভ করো। কিছুক্ষণের মধ্যেই খেয়াল করবে যে পেঁচানো কমলা রঙের কাগজটি ঠিক শিউলি ফুলের বোঁটার মতো আকার ধারণ করেছে। তখনই পেঁচানো বন্ধ করে সামান্য পরিমাণে আইকা আঠা কাগজটিতে লাগিয়ে দাও। কাঁচি দিয়ে কেটে বোঁটাটি ছোট করে ফেলো। এবার আগেই সাদা শপিং ব্যাগ কেটে তৈরি শিউলি ফুলগুলো একটি একটি করে সবুজ রঙের কার্ডের ওপর উপুড় করে আইকা আঠা লাগিয়ে বসাও। তারপর প্রতিটি সাদা শিউলি ফুলের পেছনে আইকা আঠা লাগিয়ে কমলা রঙের বোঁটাগুলো একটি একটি করে লাগাও। আবার বাতাসে শুকাও।

কার্ড তৈরির শেষ পর্যায়ে এসে ঘাসের ওপর ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা শিউলির পরিবেশ তৈরির জন্য কিছু আর্টিফিশিয়াল ঘাস শিউলি ফুলগুলোর ফাঁকে ফাঁকে সুপার গ্লু দিয়ে বসাও। সুপার গ্লু ব্যবহারের সময় মা, বুবু বা ভাইয়ার সাহায্য নাও। ঘাসের ওপর পড়ে থাকা শিউলি ফুলের কার্ডটি প্রায় তৈরি হয়ে গেল যখন, তখন কার্ডের আরেকটুখানি শোভা বাড়াতে পারো এর চারপাশে নকশা করা কালো কাগজ বসিয়ে। নতুবা বসাতে পারো কমলা রঙের চিকন করে কাটা পোস্টারপেপারও। এগুলো বসাতে ব্যবহার করো আইকা আঠা। কার্ড তৈরি শেষে কার্ডের গায়ে বন্ধুকে পূজার শুভেচ্ছা জানিয়ে লিখে দাও তোমার মনের কথা।



মন্তব্য