kalerkantho

গেইম
ইনজাস্টিস টু

নায়ক যখন খলনায়ক

সামীউর রহমান   

১১ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



নায়ক যখন খলনায়ক

সামনেই পর্দা কাঁপাতে আসছে ‘জাস্টিস লিগ’। ডিসি কমিকসের চরিত্রদের নিয়ে তৈরি করা এই ছবিতে পৃথিবীকে অপশক্তির হাত থেকে বাঁচাতে জোট বাঁধবে ব্যাটম্যান, ওয়ান্ডার উইম্যান, অ্যাকুয়াম্যান, ফ্ল্যাশসহ অনেক সুপার হিরো।

ডিসি কমিকসের দুনিয়ার সব সুপার হিরো আর সুপার ভিলেনদের নিয়েই এসেছে ইনজাস্টিস গেইমের দ্বিতীয় পর্ব, যেখানে আরো কয়েকজন সুপার হিরোকে সঙ্গে নিয়ে ব্যাটম্যানকে লড়তে হবে জোট বাঁধা একদল সুপার ভিলেনের বিপক্ষে।

ইনজাস্টিসের প্রথম পর্বে দেখানো হয়েছিল, সুপারম্যানকে বিভ্রান্ত করে জোকার। তার হাতে মারা যায় অন্তঃসত্ত্বা লুইস লেইন, ওদিকে জোকার পারমাণবিক বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় মেট্রোপলিস সিটিতে। জোকারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে ব্যাটম্যান; কিন্তু রাগে উন্মাদ সুপারম্যান ব্যাটম্যানের হাত থেকে জোকারকে কেড়ে নিয়ে খুন করে। এরপর সুপারম্যান পরিণত হয় এক স্বৈরাচারী শাসকে। বিশ্বে কায়েম করে ‘ওয়ান ওয়ার্ল্ড অর্ডার’ নামের একনায়কতন্ত্র। ব্যাটম্যান সুযোগ খুঁজতে থাকে এ অবস্থার অবসান ঘটাতে। একসময় নানা ঘটনাচক্রে পতন হয় সুপ্রিম কাউন্সিলর সুপারম্যানের। সে ঘটনার পাঁচ বছর পরের গল্প নিয়ে শুরু হয় ইনজাস্টিস টু।

ব্যাটম্যান ও তার সঙ্গীরা মিলে পৃথিবীতে শান্তি ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছে, এমন সময় ‘দ্য সোসাইটি’ নামের একদল সুপার ভিলেন গরিলা গ্রডের নেতৃত্বে বিশ্বে অশান্তি তৈরিতে তত্পর। এই অপশক্তির সঙ্গে যোগ দিয়েছে সুপারম্যানের রাজত্বের অবসানে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া কিছু সুপার হিরোও। দুই পক্ষের হাতেই রয়েছে অতি মানবিক ক্ষমতা, তাদেরই মরণপণ লড়াইয়ের গল্প ইনজাস্টিস টু।

গেইমে ওয়ান অন ফাইটিংয়ের পাশাপাশি আছে স্টোরি মোডও। গল্পের ধারাবাহিকতায় একেক সময়ে একেক চরিত্র হয়ে খেলতে হবে গেইমারকে। কখনো গ্রিন অ্যারো, কখনো বা ব্ল্যাক ক্যানারি, কখনো ব্যাটম্যান। ভার্সেস মোডে মারামারিটা খুবই মজার। সব চরিত্রই আছে একটি বিশেষ সুপার মুভ, এই মুভগুলো তৈরিতে অনেক খেটেছেন গেইম আর্টিস্টরা। সমুদ্র অধিপতি আ্যাাকুয়াম্যানের বিশেষ অ্যাটাকে সমুদ্র থেকে উঠে আসে অতিকায় রাক্ষুসে মাছ, কামড়ে শেষ করে দেয় প্রতিপক্ষকে। ব্যাটম্যানের কোনো বিশেষ ক্ষমতা নেই, আছে প্রযুক্তি! স্পেশাল মুভে ব্যাটম্যান তাই শত্রুকে বেলুনে বেঁধে উড়িয়ে দেয় আকাশে, সেখানে ব্যাটপ্লেন শত্রুর ওপর মেশিনগানের গুলি চালিয়ে ছুড়ে দেয় মিসাইল! ক্যাটওমেন মোটরসাইকেলে ছুটে এসে চাবুক দিয়ে পা পেঁচিয়ে ধরে ছেঁচড়ে নেয় শত্রুকে, এরপর তার ওপর বিস্ফোরণ ঘটিয়ে দেয় মোটরসাইকেল। এমন নানা মজার ও অভিনব সব সুপার মুভ আনন্দ দেবে গেইমারকে।

গেইমের দুটি পরিণতি। যদি সুপারম্যান জিতে যায়, তাহলে তার হাতে মৃত্যু হবে ব্রেইনিয়াকের, আর সুপারম্যানের দখলে চলে আসবে ব্রেইনিয়াকের সব প্রযুক্তি। তার মাধ্যমে ব্যাটম্যানকে করবে মগজ ধোলাই, আর নতুন করে কায়েম করবে নিজের রাজত্ব। আর ব্যাটম্যান যদি জিতে যায়, তাহলে সুপারম্যানকে পাকাপাকিভাবে কয়েদ করে রাখা হবে ফ্যান্টম জোনে, কারামুক্ত করা হবে সুপার গালর্কে এবং সুপারম্যানকে বাদ দিয়ে তৈরি হবে নতুন জাস্টিস লিগ।

গেইমটি প্রকাশ করেছে ওয়ার্নার ব্রাদার্স, ডেভেলপার নেদাররালম স্টুডিও, যাদের কাছ থেকে আগে গেইমাররা মরটাল কমব্যাটের মতো দুর্দান্ত ফাইটিং গেইম পেয়েছেন। ডিরেক্টর সেই এড বুন, যাঁর মাথা থেকেই এসেছিল মরটাল কমব্যাটের ‘ফিনিশ হিম’ আইডিয়াটা! এ বছরের মে মাসে গেইমটি বের হয়েছে এক্সবক্স ওয়ান, পিএস ফোর আর উইন্ডোজের জন্য।

 

খেলতে হলে পিসিতে থাকতে হবে

কোরআই ৫ ২.৬৬ গিগাহার্জ প্রসেসর

জিইফোর্স জিটিএক্স ৪৬০ গ্রাফিকস কার্ড

ভিডিও র‌্যাম ১ গিগাবাইট

র‌্যাম ৩ গিগাবাইট

ওএস : উইন্ডোজ সেভেন, ৬৪ বিট

হার্ডডিস্কে ২৫ গিগাবাইট ফাঁকা জায়গা

 

বয়স

১৫+


মন্তব্য