kalerkantho


যে ৭ প্রগ্রাম শিখলে চাকরি আছে

কম্পিউটার বিজ্ঞান নিয়ে পড়লে চাকরির অভাব নেই—এমন ধারণা নিয়ে শুরু করেও স্নাতক শেষে চাকরির বাজারে হতাশ হতে হয় অনেককে। তবে কিছু প্রগ্রাম ভালোভাবে শিখতে পারলে অভাব হবে না চাকরির। অভিজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলে এমন সাতটি প্রগ্রাম সম্পর্কে লিখেছেন তুসিন আহম্মেদ

১৮ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



যে ৭ প্রগ্রাম শিখলে চাকরি আছে

মডেল : ইলা, ছবি : তারেক আজিজ নিশক

পাইথন

দেশে ও বিশ্ববাজারে পাইথন জানা কর্মীর চাহিদা অনেক। জ্যেষ্ঠ কম্পিউটার প্রগ্রামার আবু আশরাফ মাসনুন জানান, মেশিন লার্নিং, ডাটা সায়েন্স, সিস্টেম অ্যাডমিনিস্ট্রেশন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট—সব জায়গায়ই পাইথনের ব্যবহার বাড়ছে। তাই সংশ্লিষ্ট প্রগ্রামারদের চাহিদাও বাড়ছে।

 

গত বছরের নভেম্বরে অনুষ্ঠিত পাইথন কনফারেন্সের উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, সম্মেলনে বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। মূলত ভালো পাইথন ডেভেলপারের খোঁজেই এসেছিলেন তাঁরা।

সম্প্রতি শেষ হওয়া বইমেলায় প্রকাশিত ‘সহজ ভাষায় পাইথন’ বইয়ের লেখক মাকসুদুর রহমান জানান, কোর সিকিউরিটি টুল এবং ওয়েব অ্যাপ্লিকেশনের ক্ষেত্রে উচ্চমানের তথ্য নিরাপত্তাব্যবস্থা থাকায় ইউটিউব, বিটটরেন্ট, গুগল ও নাসার বিভিন্ন প্রকল্পে পাইথন ব্যবহার করা হয়েছে। নিউজক্রিড, টেলিনর, ইন্টারকানেকশনের মতো বড় প্রতিষ্ঠানগুলোও পাইথনের দিকে ঝুঁকছে। এসব প্রতিষ্ঠানে হাজার হাজার কর্মী প্রয়োজন; কিন্তু পাইথন জানা এত প্রগ্রামার নেই। তাই পাইথন জানলেই চাকরি রেডি!

প্রগ্রামিংয়ের মৌলিক বিষয় জানা না থাকলে পাইথন শেখা কষ্টসাধ্য। সি বা জাভার মতো কমপক্ষে একটি প্রগ্রামিং ভাষা সম্পর্কে ধারণা থাকলে ‘পাইথন’ শেখা সহজ হবে। লিনাক্স, ম্যাক ওএসএক্স ও উইন্ডোজ—তিন ধরনের অপারেটিং সিস্টেমেই পাইথন চলে।

https://goo.gl/bgsK2 সাইটে গল্পের ছলে পাইথন শেখা যাবে।

https://goo.gl/p1OcdZ-এ রয়েছে পাইথন নিয়ে ভিডিও লেকচার। https://goo.gl/O7mVr3 ব্লগে ইংরেজিতে পাইথন নিয়ে বিভিন্ন নির্দেশিকা পাওয়া যায়।

বাংলাদেশে পাইথন প্রগ্রামারদের ফেইসবুক গ্রুপ https://www.facebook.com/groups/pythonbd/

জাভা

সাধারণত একটু বড় মাপের সফটওয়্যারগুলো জাভাতে তৈরি হয়। যেমন—বাংলাদেশের জাতীয় পরিচয়পত্র ও গাড়ির জন্য ভেইকল রেজিস্ট্রেশন সিস্টেমের তথ্যভাণ্ডার জাভা দিয়ে তৈরি।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সফটওয়্যার তৈরির প্রতিষ্ঠান ভ্যানটেস ল্যাবসের জ্যেষ্ঠ প্রকৌশলী এবং এ বছর বাজারে আসা ‘জাভা প্রগ্রামিং’ বইয়ের  লেখক আ ন ম বজলুর রহমান বলেন, বেশির ভাগ সফটওয়্যারে কিউ, উইন্ডো, চেক বক্স ইত্যাদি সংযুক্ত করতে হয়। কম্পিউটার প্রগ্রামিংয়ের ভাষায় এগুলোকে ‘অবজেক্ট’ বলে।

প্রগ্রামিংয়ে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে অবজেক্ট নির্ধারণ। অবজেক্ট নির্ধারণ সঠিক না হলে সফটওয়্যার বা অ্যাপ্লিকেশন শতভাগ কার্যকর হবে না। এ কাজে সবচেয়ে কার্যকর প্রগ্রামিং ভাষা ‘জাভা’। মোবাইলে বহুল ব্যবহৃত অ্যানড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের অ্যাপ্লিকেশন তৈরিতে জাভার বিকল্প নেই। তাই পৃথিবীজুড়েই জাভা প্রগ্রামারের চাহিদা রয়েছে। দেশের প্রায় সব বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞানের অংশ হিসেবে জাভা শেখানো হলেও তা প্রাথমিক ধারণা মাত্র। জাভা ভালোভাবে শিখতে হলে প্রচুর প্রগ্রাম লিখতে হবে। এ ক্ষেত্রে অনুশীলনের বিকল্প নেই।

ঘরে বসে অনলাইনেই জাভা শেখা যাবে।

http://java.howtocode.com.bd/-এ পাওয়া যাবে বাংলা ভাষায় লেখা জাভা নিয়ে টিউটরিয়াল। বাংলায় ভিডিও টিউটরিয়াল মিলবে https://goo.gl/lYeukx এবং https://goo.gl/l3r890-এ। নতুনদের জন্য বেশি কাজে আসবে   https://goo.gl/Szxvw7 I https://goo.gl/gzDjwO সাইট দুটি।

বাংলাদেশে জাভা ডেভেলপারদের নিয়ে ফেইসবুক গ্রুপ আছে tps://goo.gl/9CbbOF ঠিকানায়। জাভার নানা বিষয় নিয়ে এই গ্রুপে আলোচনা করা হয়।

সুইফট

অ্যাপলের আইওএস এবং ম্যাক অপারেটিং সিস্টেমের জন্য অ্যাপ্লিকেশন তৈরিতে সবচেয়ে জনপ্রিয় সুইফট। এই প্রগ্রাম কোড লেখার সময় তার আউটপুট দেখা যায়। ধ্রুবক ইনফোটেক সার্ভিসেস লিমিটেড প্রতিষ্ঠাতা ও আইওএস ডিভাইসের অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট এবং সিস্টেম ডিজাইনে এক্সপার্ট আশিক-উজ-জোহা বলেন, অ্যাপল পণ্যে প্রতিবছরই অপারেটিং সিস্টেমসহ নতুন নতুন অ্যাপ্লিকেশন যুক্ত হয়। সুইফট জানা থাকলে অ্যাপ্লিকেশনগুলো সহজে বোঝা যায়। ফলে আইওএস অ্যাপ বানানোই সহজ হয়। দেশে এ খাতে দক্ষ জনবল কম, কিন্তু চাহিদা অনেক। বিদেশেও সুইফট জানা প্রগ্রামারদের বেশ কদর।

তিনি বলেন, সুইফট শিখতে হলে ‘বেসিক ফাংশনাল প্রগ্রামিং’ এবং ‘অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড প্রগ্রামিং’ সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে।

https://goo.gl/lzkLsr-এ গিয়ে সু্ইফট শেখা যাবে বিনা মূল্যে। ভিডিও দেখে শেখার সুযোগ আছে https://goo.gl/QAyYb4-এ। https://www.appcoda.com-এর টিউটরিয়ালগুলো বেশ কার্যকর।

 

পিএইচপি

পিএইচপি মূলত ওয়েবসাইট তৈরিতে বেশি ব্যবহৃত হয়। বেশির ভাগ অপারেটিং সিস্টেমে প্রগ্রামটি বিনা মূল্যে ব্যবহার করা যায়।

আরআরএফ ফাউন্ডেশনের প্রধান নির্বাহী ও ওয়েব ডেভেলপার রাসেল আহমেদ বলেন, পিএইচপি শিখলে যেকোনো সিএমএস যেমন ওয়ার্ডপ্রেস, জুমলা বা ম্যাজেন্টোতে সহজেই কাজ করা যায়। অনেক প্রতিষ্ঠান আবার পিএইচপির বিভিন্ন ফ্রেমওয়ার্ক যেমন লারাভেল, সিম্পনি ইত্যাদি ব্যবহার করে ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন বানায়। এসব কাজেও পিএইচপি জানা প্রগ্রামারদের চাহিদা আছে।

ব্লুস্কিমের সিনিয়ার ওয়েব ডেভেলপার শেখ মুস্তাফিজুর রহমান জানান, ইউটিউবে https://goo.gl/RX2Tef-এ গিয়ে পিএইচপি শেখা যাবে। https://goo.gl/nPRad8 সাইটে রয়েছে পিএইচপি নিয়ে বাংলা ভাষায় টিউটরিয়াল। ইংরেজি ভাষায় পিএইচপি শিখতে https://goo.gl/LOc2cv এবং https://goo.gl/e3K3zY বেশ সহায়ক।

 

জাভা স্ক্রিপ্ট

জাভা স্ক্রিপ্ট নিয়ে দীর্ঘদিন কাজ করছেন মুনিব রহমান। তিনি বলেন, অনেকে জাভার সঙ্গে জাভা স্ক্রিপ্টকে গুলিয়ে ফেলেন। নামে মিল থাকলেও আদতে এই দুই ল্যাংগুয়েজের মধ্যে কোনো সম্পর্ক নেই। জাভা হলো অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড প্রগ্রামিং ভাষা। আর জাভা স্ক্রিপ্ট শুধু ব্রাউজার তৈরির কাজে লাগে। মূলত ওয়েবনির্ভর অ্যাপ্লিকেশন তৈরিতে জাভা স্ক্রিপ্ট ব্যবহার করা হয়।

জাভা স্ক্রিপ্টের সাহায্যে ওয়েবসাইটকে আরো সুন্দর করে তোলা যায়। বাংলায় এর টিউটরিয়াল রয়েছে https://goo.gl/fUD3Ub ঠিকানায়। পাশাপাশি  https://goo.gl/fXASxF-এও জাভা স্ক্রিপ্ট নিয়ে ধারাবাহিক নির্দেশিকা পাওয়া যাবে।

 

সি বভিন্ন ডেস্কটপ সফটওয়্যার ও ভিডিও গেইম সি দিয়ে তৈরি। অন্যান্য প্রগ্রামিং ভাষা তৈরিতেও সি ব্যবহার করা হয়। ‘সি’ দিয়ে তৈরি প্রগ্রাম যেকোনো অপারেটিং সিস্টেমের কম্পিউটারে চালানো যায়। এ সুবিধার জন্য সি বহুল প্রচলিত ও জনপ্রিয় প্রগ্রামিং ভাষা।

দেশের জনপ্রিয় প্রগ্রামিংবিষয়ক লেখক তামিম শাহরিয়ারের সি নিয়ে লেখা নির্দেশিকা পাওয়া যাবে http://cpbook.subeen.com/-এ। http://goo.gl/ICm4tp-এ গিয়ে বাংলায় ভিডিও টিউটরিয়াল দেখেও প্রগ্রামটি শেখা যাবে। সি নিয়ে মানসম্পন্ন নির্দেশিকা AvGQ http://www.cprogramming.com/ এবং https://goo.gl/Y5gcBg সাইটেও।

 

ভিজ্যুয়াল বেসিক

গ্রাফিকসের ব্যবহার আছে এমন ইন্টারফেস ও তথ্যভাণ্ডার (ডাটাবেইস) তৈরিতে এই ভাষার ব্যবহার বেশি। পুরনো হলেও এখনো ভাষাটির বেশ কদর আছে।

ভিজ্যুয়াল বেসিক নিয়ে ভিডিও টিউটরিয়াল পাওয়া যাবে https://goo.gl/QFMnYP-এ। https://goo.gl/I88UqH-এও পাওয়া যাবে কিছু কার্যকর নির্দেশিকা।

 

কোথায় শিখবেন

বেসিস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট (বিআইটিএম) এসব বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়। বিআইটিএম সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে www.bitm.org.bd-এ।

প্রশিক্ষণ নেওয়া যাবে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল থেকেও। যোগাযোগ ও বিস্তারিত : www.bcc.gov.bd| তবে প্রগ্রামিং শেখার সবচেয়ে ভালো মাধ্যম অনলাইন বলে মত দেন অভিজ্ঞরা।


মন্তব্য