kalerkantho


গেইম

ব্যাটম্যানের গেইমে কমিকসের স্বাদ

সামীউর রহমান   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



ব্যাটম্যানের গেইমে কমিকসের স্বাদ

গোথাম শহরের রাতপ্রহরী ব্যাটম্যানকে নিয়ে তো হয়েছে অনেক কিছুই! টিভি সিরিজ, সিনেমা, এনিমেশন মুভি, গেইম...একেকটির একেক মজা। কিন্তু শুরুটা হয়েছিল কমিক বুক হিসেবে। ডিসি কমিকসের সেই আদি ব্যাটম্যানকে গেইম আকারে নিয়ে আসছে টেলএটেইল গেইমস। এখানে গেইমারকে সেই ক্ল্যাসিক কমিক বুক পড়ার স্বাদেই ফিরিয়ে নিতে চাইছে ব্যাটম্যান চরিত্রের মালিক ওয়ার্নার ব্রাদার্স।

সেই বিটিভি যুগের ব্যাটম্যান টিভি সিরিজই হোক কিংবা ক্রিস্টোফার নোলানের ডার্ক নাইট দিয়েই হোক, এ যুগের গেইমারদের অন্তত ব্যাটম্যানকে অচেনা লাগার কথা নয়। তাহলে নতুন করে কেন আবার ব্যাটম্যানে গেইম? ১৯৮৬ সালে প্রথম মুক্তি পেয়েছিল ব্যাটম্যানের গেইম, সেই ৪ মেগাহার্জ প্রসেসর আর ১২৮ কেবি মেমোরির কম্পিউটারে! সেখান থেকে আজকের এই টেরাফ্লপস, গিগাবাইট আর এইচডির যুগেও ব্যাটম্যানের চাহিদা যে একদমই কমেনি সেটা অসংখ্য গেইম আর সিনেমায় ব্যাটম্যানের উপস্থিতিই প্রমাণ করে। তবে টেলএটেইল প্রযুক্তির সঙ্গে নিউজপ্রিন্টে ছাপা সেই ডিসি কমিকগুলোর একটা যোগসূত্র স্থাপনের চেষ্টা করে গেইমারদের দিতে চেয়েছে একটা ভিন্টেজ আমেজ!

স্টার ওয়ারস ও ইন্ডিয়ানা জোনসের জন্য বিখ্যাত জর্জ লুকাস প্রতিষ্ঠিত ‘লুকাস আর্টস’-এর একদল সাবেক কর্মী মিলেই তৈরি করেছেন টেলএটেইল গেইমস, যেখান থেকে আগে এসেছে মাইনক্র্যাফট, বর্ডারল্যান্ডস, জুরাসিক পার্ক, ওয়াকিং ডেডের মতো গেইম। এবার তারাই নতুনভাবে নিয়ে এসেছে পুরনো ব্যাটম্যানকে।

ব্যাটম্যান : দ্য টেলএটেইল সিরিজগুলো সাজানো হয়েছে পর্বের ভিত্তিতে। পয়েন্ট অ্যান্ড ক্লিক পদ্ধতির গেইমের শুরুতেই বলে দেওয়া হয়, এই গেইমের ধরাবাঁধা কোনো সমাপ্তি নেই। গেইমারের কর্মকাণ্ডের ওপরই নির্ভর করবে ফল।

শুরুতেই দেখা যায় গোথামের সিটি হলে ডাকাতি হচ্ছে। ব্যাটম্যান এসে মুখোশধারী ডাকাতদের থামায়। তখন ব্যাটম্যানের সঙ্গে দেখা হয় ক্যাটওমেনের। ক্যাটওমেন একটা গোপন তথ্যের ডাটাড্রাইভ চুরি করতে চায়, সেটা থামাতে দুজনের মধ্যে শুরু হয় সংঘর্ষ। একপর্যায়ে ব্যাটম্যানের গ্র্যাপলিং গান হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায় ক্যাটওমেন।

মনে রাখতে হবে, ব্যাটম্যানের কস্টিউমের ভেতরের মানুষটির কথাও। ব্রুস ওয়েইন শহরের গণ্যমান্য ব্যক্তি। তাঁর পরিবারের অপরাধে জড়িত থাকার কথা বলে বেড়াচ্ছে মাফিয়া বস ফ্যালকোনি। এক সংবাদ সম্মেলনে ব্রুসের দিকে আসে অনেক অপ্রীতিকর প্রশ্ন। নিজের পরিবারকে কলঙ্কমুক্ত করা, অপরাধী ফ্যালকোনকে শায়েস্তা করা সবই এখন গেইমাররূপী ব্যাটম্যানের কাজ। র‌্যালম অব শ্যাডোজ পর্বের শেষে ব্যাটম্যানের হাতে আসে সব কুকর্মের প্রমাণ। এখন সেটা সাংবাদিক ভিকি ভেইল না পুলিশ কমিশনার গর্ডনকে তুলে দেবে কেইপড ক্রুসেডার, সেটা কিন্তু গেইমারকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

দ্বিতীয় পর্ব চিলড্রেন অব আর্কহ্যামের গল্প এগিয়ে যায় আগের পর্বের সমাপ্তিরেখা থেকে। ব্রুসের ব্যক্তিগত সহকারী আলফ্রেড তাকে জানায়, একটা সময় ব্রুসের বাবা ফ্যালকোনের সঙ্গে হাত মিলিয়েছিলেন। ব্রুস বুঝতে পারে, তার মা-বাবাকে ছিনতাই করতে গিয়ে মেরে ফেলা হয়নি বরং ঠাণ্ডা খুনটাকে এভাবে আড়াল করতেই ছিনতাইয়ের চেহারা দেওয়া হয়। সে রহস্য উদ্ধারে তদন্তে নামে।

এই পর্বে আত্মপ্রকাশ ঘটবে ব্যাটম্যানের আরেক খলচরিত্র পেঙ্গুইনের। একপর্যায়ে ক্যাটওমেন ও হার্ভি ডেন্টকে জিম্মি করে পেঙ্গুইনের খুনে দল। সেখান থেকে উদ্ধার করা যাবে একজনকে। সেটা কে, ব্যাটম্যানের সেই সিদ্ধান্তেই নির্ভর করে পরিণতি।

তৃতীয় পর্ব নিউ ওয়ার্ল্ড অর্ডার ও গার্ডিয়ান অব গোথাম নামে আরো একটি পর্ব বেরিয়েছে টেলএটেইল সিরিজের। পঞ্চম পর্বের ঘোষণা এলেও এখনো বাজারে আসেনি।

ব্যাটম্যান দ্য টেলএটেইল সিরিজের গেইম খেলা যাবে উইন্ডোজ পিসি, পিএস থ্রি এবং ফোর ও এক্সবক্স ওয়ান এবং ৩৬০ কনসোলে।

 

পিসিতে খেলতে হলে লাগবে

কোর আই৫ ২৫০০কে ৩.৩ গিগাহার্জ গতির প্রসেসর

জিইফোর্স জিটিএক্স ৫৮০/র‌্যাডিওন এইচডি ৭৮৭০ গ্রাফিকস কার্ড

৬ গিগাবাইট র‌্যাম

হার্ডডিস্কে ৫ গিগাবাইট ফাঁকা জায়গা

ও উইন্ডোজ ৭ ৬৪ বিট ওএস

 

বয়স

১৬+

 


মন্তব্য