kalerkantho


মৌসুমের মাঝপথে বাড়ল চুক্তির মেয়াদ

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



মৌসুমের মাঝপথে বাড়ল চুক্তির মেয়াদ

ড্রর ফাঁদে বার্সেলোনা। টানা তিন ম্যাচ ড্র করেছে এরনেস্তো ভালভার্দের দল। লা লিগায় ভ্যালেন্সিয়া, অ্যাথলেতিক বিলবাও আর কোপা দেল রে’তে তাদের ন্যু ক্যাম্পে রুখে দিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। লা লিগায় রিয়ালের সঙ্গে ব্যবধান কমে এসেছে ৬ পয়েন্টে। আর বিলবাওয়ের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র ছিল লা লিগায় ৩৭ ম্যাচ পর কোনো গোল করতে না পারার ব্যর্থতা। এর পরও ভালভার্দের ওপর আস্থা হারায়নি বার্সেলোনা। এর প্রমাণ মৌসুমের মাঝপথে তাঁর সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ বাড়ানো।

এই মৌসুম পর্যন্ত ভালভার্দের সঙ্গে চুক্তি ছিল বার্সার। গতকাল সেটা বাড়িয়ে করা হয়েছে ২০১৯-২০ পর্যন্ত। সুযোগ আছে মেয়াদ ২০২০-২১ পর্যন্ত বাড়ানোরও। গতকাল এ নিয়ে ক্লাব ওয়েবসাইটে বার্সার বিবৃতি, ‘বার্সেলোনা ও প্রধান কোচ ভালভার্দে একটি সমঝোতায় পৌঁছেছে। ২০১৯-২০ পর্যন্ত চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোয় দুই পক্ষই একমত। সেটা ২০২০-২১ পর্যন্ত বাড়ানোর সুযোগও থাকছে।’ এদিকে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ বাড়িয়েছেন ডিয়েগো সিমিওনে। ২০২০ সালের জুন পর্যন্ত অ্যাতলেতিকোয় মেয়াদ ছিল তাঁর। সেটা বাড়িয়ে করা হয়েছে ২০২২ পর্যন্ত।

২০১৭ সালে অ্যাথলেতিক বিলবাও ছেড়ে বার্সেলোনায় যোগ দিয়েছিলেন ভালভার্দে। প্রথম মৌসুমে তাঁর হাত ধরে অপরাজিতভাবে লা লিগা জয়ের দুয়ারে ছিল কাতালানরা। কিন্তু লিগ জিতলেও শেষ দিকে বার্সা একটা ম্যাচ হেরে যায় লেভান্তের সঙ্গে। এই মৌসুমে উত্থানপতন থাকলেও এখনো তারা ৬ পয়েন্টে এগিয়ে ধরে রেখেছে শীর্ষস্থান। চ্যাম্পিয়নস লিগেও দাপটে শেষ ষোলোতে। তাই নতুন কারো বদলে ভালভার্দের ওপরই আস্থা রেখেছে বার্সা। ৫৫ বছর বয়সী ভালভার্দে এখন চাকরি নিয়ে না ভেবে পুরো মনোযোগ দিতে চান দলের পারফরম্যান্সের উন্নতিতে, ‘এখানে খুব নির্ভারভাবে কাজ করছি। ক্লাবের সমর্থন পাচ্ছি। খেলোয়াড়রাও স্বাচ্ছন্দ্য। এই ক্লাব ও খেলোয়াড়দের কোচ হওয়ার চ্যালেঞ্জটা রোমাঞ্চের।’

সবশেষ ২০১১ সালে মৌসুমের মাঝপথে পেপ গার্দিওলার সঙ্গে এক বছর চুক্তির মেয়াদ বাড়িয়েছিল বার্সেলোনা। এর আগে ২০০৫ সালে ফ্রাংক রাইকার্ডের চুক্তির মেয়াদও বাড়ে মাঝপথে। অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের সঙ্গে হারার পর লিগে আট নম্বরে চলে যাওয়ার দিনই বাড়ানো হয়েছিল মেয়াদ! রাইকার্ড এর প্রতিদান দেন লা লিগা ও চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতিয়ে। মার্কা



মন্তব্য