kalerkantho


আরেকটি কীর্তির সামনে ভারত

১৮ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



আরেকটি কীর্তির সামনে ভারত

অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে কখনো টেস্ট সিরিজ জেতেনি ভারত। এবার যখন তা জিতল, সেটিকে ১৯৮৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয়ের চেয়েও বেশি কৃতিত্বপূর্ণ বলে ঘোষণা দিয়েছেন কোচ রবি শাস্ত্রী। এরপর পক্ষে-বিপক্ষে অনেক আলোচনা হয়েছে। বেশিটা বিপক্ষেই, ভারতের সাবেক এই ক্রিকেটারকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হাস্যরসই হয়েছে বেশি।

তা অস্ট্রেলিয়ায় তো কখনো দ্বিপক্ষীয় ওয়ানডে সিরিজও জেতেনি ভারত। আজ মেলবোর্নে তৃতীয় ওয়ানডে জিতে সে অর্জনের হাতছানি বিরাট কোহলিদের সামনে। পারলে কি এটাকেও অমন বড় করে দেখবেন শাস্ত্রী?

প্রশ্নই ওঠে না। কারণ এখানে একটা ‘ফাঁকি’ আছে। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ৭১ বছর আগে প্রথম টেস্ট সিরিজ খেলেছিল ভারত। আগের ১১টি টেস্ট সিরিজে পারেনি জয় নিয়ে ফিরতে। কিন্তু এটি যে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ভারতের শুধু দ্বিতীয় দ্বিপক্ষীয় ওয়ানডে সিরিজ। তিন-চার দলের টুর্নামেন্ট খেলেছে অনেক। দুই দেশের মুখোমুখি দ্বৈরথ বলতে ২০১৬ সালের পাঁচ ম্যাচের সিরিজ। যেখানে ৪-১ ব্যবধানে জেতে অস্ট্রেলিয়া। আজ তৃতীয় ওয়ানডে জয়ে সিরিজ জিতলেও সেটি তাই নিশ্চয়ই অত বড় কীর্তি হবে না। তবে তাতে নিশ্চয় ভারতের জয়ক্ষুধা কমবে না এতটুকুন।

সিডনির প্রথম ম্যাচ হেরে শুরু করেছিল ভারত। অ্যাডিলেডের দ্বিতীয় ম্যাচে দাপুটে জয়ে দারুণ প্রত্যাবর্তন। বিরাট কোহলির সেঞ্চুরিতে সফরকারীদের ক্যাম্পে যতটা উল্লাস, মহেন্দ্র সিং ধোনির ফর্মে ফেরায় তার চেয়ে কম নয়। ২০১৮ সালে ওয়ানডে ফরম্যাটে এই সাবেক অধিনায়কের ব্যাট থেকে আসেনি কোনো হাফসেঞ্চুরি। এখানে সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে দুটি। এর মধ্যে ধীরগতির প্রথমটি নিয়ে সমালোচনা হয়েছে ঠিক। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে দেখা গেছে পুরনো ধোনিকে। যিনি দলের বিপদের মুহূর্তে মাথা ঠাণ্ডা রাখতে পারেন। যিনি শেষ ওভারে ছক্কা মেরে দলকে জেতাতে পারেন। ক্রিকইনফো



মন্তব্য