kalerkantho



ইয়াসিরের কীর্তির পরও চাপে পাকিস্তান

৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



ইয়াসিরের কীর্তির পরও চাপে পাকিস্তান

টেস্টে দ্রুততম ২০০ উইকেটের নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়লেন ইয়াসির শাহ। ১৯৩৬ সালে মাত্র ৩৬ টেস্টে ওই মাইলফলক ছুঁয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার লেগ স্পিনার ক্ল্যারি গ্রিমেট। ৮২ বছর পর তিন ম্যাচ কম খেলে গ্রিমেটের রেকর্ড ভেঙে দিলেন আরেক লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহ। ৩৩ টেস্টে তাঁর উইকেট সংখ্যা এখন ২০০।

ইয়াসির শাহর সবচেয়ে কম ম্যাচে দুই শ উইকেট নেওয়ার কীর্তির পরও অবশ্য আবুধাবি টেস্টে স্বস্তিতে নেই পাকিস্তান। বরং কেন উইলিয়ামসন ও হেনরি নিকোলসের ব্যাটিং দৃঢ়তায় ধীরে ধীরে ম্যাচে নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করেছে নিউজিল্যান্ড। ১৩৯ রানের হার না মানা শতরান উইলিয়ামসনের। শতরানের সুবাস পাচ্ছেন নিকোলসও, তিনি অপরাজিত ৯০ রানে। আর দ্বিতীয় ইনিংসে ৪ উইকেটে ২৭২ রান তুলে লিডটাকে চতুর্থ দিনেই দুই শর কাছাকাছি নিয়ে গেছে (১৯৮ রান) কিউইরা। দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান উইলিয়ামসন ও নিকোলসসহ তাঁদের হাতে আছে আরো ছয় উইকেট। আজ পঞ্চম দিনে আবুধাবিতে জিতে সিরিজ নিজেদের করে নিতে তাই বলে-ব্যাটে অসাধারণ কিছু করে দেখাতে হবে পাকিস্তানকে।

অথচ চতুর্থ দিনের শুরুতে দ্রুত দুই উইকেট তুলে নিয়ে দারুণ কিছুর পূর্বাভাসই দিয়েছিলেন ইয়াসির-শাহীন আফ্রিদী। দুই উইকেটে ২৪ রান নিয়ে খেলা শুরু করে স্কোরবোর্ডে আর ১৩ রান যোগ হতে ফিরে আসেন নাইটওয়াচম্যান সমারভিলে। তাঁকে এলবিডাব্লিউর ফাঁদে ফেলে সবচেয়ে কম ৩৩ ম্যাচে দুই শ টেস্ট উইকেট নেওয়ার নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়েন ইয়াসির শাহ। ৮২ বছরে আগে ৩৬ ম্যাচে দুই শ উইকেট নিয়ে আগের রেকর্ডটি গড়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার লেগ স্পিনার গ্রিমেট। সফরকারীদের চাপটা আরো বাড়ে খানিকটা পরে রস টেলরকেও শাহীন আফ্রিদী ফেরালে। তখনো কিউইরা পাকিস্তানের প্রথম ইনিংসের চেয়ে ১৪ রানে পিছিয়ে, আর দিনের খেলাও বাকি ৮০ ওভারের বেশি। পাকিস্তান হয়তো তখন জয়ের স্বপ্নও দেখতে শুরু করেছিল। ধীরে ধীরে তাদের সে স্বপ্ন ফিকে হতে থাকে উইলিয়ামসন ও নিকোলসের দৃঢ়তাপূর্ণ ব্যাটিংয়ে।

উইকেটে আঠার মতো লেগে থেকে দিনের ৮০টি ওভার নির্বিঘ্নে কাটিয়ে দিয়ে ম্যাচটাই তো প্রায় বের করে নিয়ে গেছেন এই দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান। ৬০ রানে চার উইকেট হারানোর পর অবিচ্ছিন্ন পঞ্চম উইকেটে এ দুজন মিলে ৮০.১ ওভারে যোগ করেছেন ২১২ রান। ২৮২ বলে ১৩ বাউন্ডারিতে ১৩৯ রানের হার না মানা কার্যকর শতরান উইলিয়ামসনের। ২৪৩ বলে ৮ বাউন্ডারিতে ৯০* রানের অসাধারণ ইনিংস নিকোলসেরও। আজ আর ১০ রান করতে পারলে সেঞ্চুরি পেয়ে যাবেন তিনিও। এ দুজনকে আজ দ্রুত ফিরিয়ে নিউজিল্যান্ডের লিডটা আরো বেশি বাড়তে না দিতে ইয়াসির-শাহীনরা ব্যর্থ হলে একেবারে বিলীন হয়ে যেতে পারে পাকিস্তানের সিরিজ জয়ের স্বপ্নও! ক্রিকইনফো



মন্তব্য