kalerkantho



টেলরের দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরি

বিশ্ব আসরেও শ্রীলঙ্কার কাছে হার

অনেক কিছু হওয়ার সুযোগ থাকলেও বোধ হয় বাংলাদেশের সেমিফাইনাল খেলার সুযোগ আর নেই। ‘এ’ গ্রুপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৪ পয়েন্ট, ইংল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কার ৩ পয়েন্ট করে আর দক্ষিণ আফ্রিকার পয়েন্ট ২। শেষ ম্যাচটি জিতলে সর্বোচ্চ ৩ পয়েন্ট হতে পারে বাংলাদেশের, সে ক্ষেত্রে গ্রুপের শীর্ষ দুই দলের একটি হওয়ার সম্ভাবনা নেই ৩ ম্যাচে হেরে কোনো পয়েন্ট না পাওয়া বাংলাদেশের।

১৬ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বিশ্ব আসরেও শ্রীলঙ্কার কাছে হার

ক্রীড়া প্রতিবেদক : গত জুন মাসে মেয়েদের টি-টোয়েন্টি এশিয়া কাপ জয়ের পথেও শ্রীলঙ্কার কাছে হেরেছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। গ্রুপ পর্বের সেই হারে অবশ্য ফাইনালে ওঠা আটকায়নি। তবে মেয়েদের টি-টোয়েন্টির বিশ্ব আসরে সেই শ্রীলঙ্কার কাছেই ২৫ রানের হার পয়েন্টের জন্য অপেক্ষা করিয়ে রাখল সালমা-জাহানারাদের। বিশ্ব টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচেও হেরেছে বাংলাদেশের মেয়েরা; ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ইংল্যান্ডের পর এবার তারা হেরেছে শ্রীলঙ্কার কাছে।

সেন্ট লুসিয়ায় টস জিতে বোলিং নিয়েছিলেন সালমা। ৪ ওভারে ২১ রান খরচায় ৩ উইকেট নেন জাহানারা, একটি করে উইকেট খাদিজা, রুমানা আর ফাহিমার। নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সামনে লঙ্কাদ্বীপের মেয়েরা ৭ উইকেটে ৯৭ রানের বেশি করতে পারেনি। সর্বোচ্চ ৩১ রান করেন শশীকলা সিরিওয়ার্দানে, তাঁকে বোল্ড করে থামান জাহানারা। বাজে ব্যাটিংয়ের খেসারত দিয়ে মাত্র ৯৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করেও বাংলাদেশের হার ২৫ রানে। স্কোরবোর্ডে কোনো রান যোগ হওয়ার আগেই উইকেটের ঘরে ২! ফিরে যান সানজিদা ইসলাম ও ফারজানা হক। এরপর আয়েশা রহমান ও নিগার সুলতানার ভেতর ছোট্ট একটা জুটি হলেও সেটা ২০ রানের বেশি স্থায়ী হয়নি। আয়েশা ১১ রানে আউট হন, নিগার সুলতানা ২০ রান করে রান আউট। আর শেষ দিকে ঋতু মনি করেন ১১ রান, ততক্ষণে খেলার ফল স্পষ্ট হয়ে গেছে। গোটা দলে দুই অঙ্কের রানে গিয়েছেন এই তিন ব্যাটারই, বাকিরা সবাই এক অঙ্কেই আউট। ২০ ওভারে ৭২ রানে অল আউট বাংলাদেশ। হার ২৫ রানের। শ্রীলঙ্কার প্রাবোধানি ২টি আর জয়াঙ্গিনী নিয়েছেন ৩ উইকেট। ম্যাচসেরা হয়েছেন শশীকলা সিরিওয়ার্দানে।

বাংলাদেশের আর একটি ম্যাচ বাকি আছে গ্রুপ পর্বে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ শেষে ভক্তদের আশা না হারাতেই অনুরোধ করেছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটার জাহানারা আলম, ‘আমাদের ওপর আশা হারাবেন না। বোলাররা শ্রীলঙ্কাকে ৯৮ রানে আটকে দিয়ে খুব ভালো বোলিং করেছে। এই রানটা তাড়া করা যেত, আমাদের ব্যাটিংটাও বেশ ভালো। দুর্ভাগ্য যে ব্যাটিংটা ক্লিক করেনি।’ প্রোটিয়াদের বিপক্ষে অঘটনের প্রত্যাশা জাগিয়ে জাহানারা বলেছেন, ‘আমরা একটা লক্ষ্য নিয়ে এসেছিলাম যে আমাদের যেন আর বিশ্ব টি-টোয়েন্টির বাছাই পর্ব খেলতে না হয়। তবে দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে যদি জিততে পারি তাহলেও আমাদের র‌্যাংকিং বাড়ার সুযোগ আছে। ক্রিকেটে যেকোনো কিছুই হতে পারে।’

অনেক কিছু হওয়ার সুযোগ থাকলেও বোধ হয় বাংলাদেশের সেমিফাইনাল খেলার সুযোগ আর নেই। ‘এ’ গ্রুপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৪ পয়েন্ট, ইংল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কার ৩ পয়েন্ট করে আর দক্ষিণ আফ্রিকার পয়েন্ট ২। শেষ ম্যাচটি জিতলে সর্বোচ্চ ৩ পয়েন্ট হতে পারে বাংলাদেশের, সে ক্ষেত্রে গ্রুপের শীর্ষ দুই দলের একটি হওয়ার সম্ভাবনা নেই ৩ ম্যাচে হেরে কোনো পয়েন্ট না পাওয়া বাংলাদেশের।



মন্তব্য