kalerkantho


এল ক্লাসিকোয় নেই মেসি

২২ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



এল ক্লাসিকোয় নেই মেসি

পানসে হয়ে গেল মৌসুমের প্রথম ‘এল ক্লাসিকো’। জুভেন্টাসে যোগ দেওয়ায় ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর না থাকাটা নিশ্চিত ছিল। এবার ছিটকে গেলেন লিওনেল মেসিও। গত পরশু সেভিয়ার বিপক্ষে বল দখলের লড়াইয়ে মাটিতে পড়ে ডান হাতে চোট পান মেসি। কবজির ওপরের হাড়ে চিড় ধরায় তিন সপ্তাহ মাঠের বাইরে তিনি। যতক্ষণ মাঠে ছিলেন মাতিয়ে গেছেন মেসি। গোল করেছেন একটি, আছে একটি অ্যাসিস্টও। শেষ পর্যন্ত ৪-২ গোলের জয়ে শীর্ষে ফিরেছে বার্সা। এ নিয়ে চার ম্যাচ পর লা লিগায় জয়ে ফিরল কাতালানরা। লা লিগার অপর ম্যাচে হোঁচট খেয়েছে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। ভিয়ারিয়ালের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে তারা।

ন্যু ক্যাম্পে দ্বিতীয় মিনিটে মেসির রক্ষণচেরা পাসে লক্ষ্য ভেদ করেন ফিলিপে কৌতিনিয়ো। ১২ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে লুই সুয়ারেসের পাস পেয়ে মেসির জাদুকরী গোল। দুরন্ত গতিতে এগিয়ে একজনকে কাটিয়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া ‘ট্রেডমার্ক’ বাঁ পায়ের জোরালো শটে গোলটি করেছেন মেসি। এবারের লা লিগায় এটা তাঁর সপ্তম গোল। এর পরই ষোড়শ মিনিটে সেভিয়ার ফ্রাংকো ভাসকেসের সঙ্গে সংঘর্ষ হয় মেসির। ব্যথা পান ডান হাতে। সাইড লাইনে শুশ্রূষা চলে অনেকক্ষণ। ডান হাতে ব্যান্ডেজ লাগিয়ে ২৬তম মিনিটে মাঠ ছাড়েন বার্সা অধিনায়ক। পরে বার্সার ওয়েবসাইট নিশ্চিত করে মেসির তিন সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকাটা, ‘ডাক্তারি পরীক্ষার পর মেসির ডান হাতের রেডিয়াল হাড়ে চির ধরা পড়েছে। এ জন্য তিন সপ্তাহ আর ছয় ম্যাচ মাঠের বাইরে থাকতে হতে পারে তাঁকে।’

তাই এ সপ্তাহে চ্যাম্পিয়নস লিগে ইন্টার মিলান আর ২৮ অক্টোবর এল ক্লাসিকোয় রিয়ালের বিপক্ষে খেলা হচ্ছে না মেসির। ২০০৭ সালের পর এবারই প্রথম রোনালদো-মেসি ছাড়া হবে এল ক্লাসিকো। তবে তাঁকে ছাড়াই মানিয়ে নিতে চান কোচ এরনেস্তো ভালভেরদে, ‘অনেক বড় ধাক্কা এটা। আমরা জানি প্রতিপক্ষের জন্য মেসি কতটা আতঙ্কের নাম। এখন ওকে ছাড়া প্রস্তুতি নিতে হবে আর ফাঁকা জায়গাটা পূরণের মতো খেলোয়াড় আছে আমাদের। এখন নিজের নতুন চুক্তি নিয়ে উদ্বিগ্ন নই আমি। ইন্টার আর রিয়ালের বিপক্ষে দুটি ম্যাচেই সব মনোযোগ আমার।’ জেরার্দ পিকের কণ্ঠেও একই সুর, ‘মেসিকে পাওয়া-না পাওয়া অনেক বড় ব্যবধান গড়ে দেয়। তবে সেটা পূরণে আমাদের যথেষ্ট শক্তি আছে।’

মেসি মাঠ ছাড়ার পর কিছুটা অগোছালো হয়ে পড়ে বার্সা। ৬৩ মিনিটে লুই সুয়ারেস পেনাল্টিতে ব্যবধান ৩-০ করে। ৭৯ মিনিটে ক্লেমেন্ট ল্যাঙ্গলেটের আত্মঘাতী গোলে ব্যবধান কমে হয় ৩-১। কিন্তু ৮৮ মিনিটে ইভান রাকিটিচের গোলে জয় নিশ্চিত হয়ে যায় কাতালানদের। ইনজুরি টাইমে লুই মুরিয়েলের গোলটা ছিল সেভিয়ার সান্ত্বনা। লা লিগায় সমান ৯ ম্যাচ শেষে বার্সেলোনার পয়েন্ট ১৮, আলাভেসের ১৭, সেভিয়ার ১৬, অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের ১৬ আর লেভান্তের কাছে সবশেষ লিগ ম্যাচে ২-১ ব্যবধানে হারা রিয়াল মাদ্রিদের ১৪। ব্যর্থতার বৃত্তে আটকে থাকলেও সাহস হারাচ্ছেন না রিয়াল অধিনায়ক সের্হিয়ো রামোস। গত পরশু বিপর্যয়ের পর ঐক্যের ডাক দিলেন তিনি, ‘খুব বাজে পথচলা এটা, যার সঙ্গে রিয়াল মানিয়ে নিতে অভ্যস্ত নয়। কারো দিকে অভিযোগের আঙুল তোলা উচিত নয় আমাদের। পরিস্থিতি বদলে দেওয়ার একটাই উপায়—সেটা ঐক্যবদ্ধ হওয়া।’ মার্কা



মন্তব্য