kalerkantho


মুখোমুখি প্রতিদিন

আমাদের সৌভাগ্য কলিনড্রেসের সঙ্গে খেলব

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



আমাদের সৌভাগ্য কলিনড্রেসের সঙ্গে খেলব

ঘরোয়া ফুটবলের অন্যতম সেরা পারফরমার তৌহিদুল আলম সবুজ এবার বসুন্ধরা কিংসে। যে দলে এ মৌসুমে খেলতে যাচ্ছে বিশ্বকাপে খেলা কোস্টারিকান ফুটবলার ডেনিয়েল কলিনড্রেস। বাংলাদেশের যেকোনো খেলোয়াড়ের জন্য এই রোমাঞ্চও কম না। কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি হয়ে সেসব প্রসঙ্গেই কথা বলেছেন তৌহিদুল

 

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : নতুন দল, নতুন কোচ সব মিলিয়ে কেমন কাটছে আপনার বসুন্ধরা কিংসে?

তৌহিদুল আলম সবুজ : নতুন ক্লাব সব সময়ই নতুন চ্যালেঞ্জ। স্প্যানিশ কোচ অস্কার ব্রুজন এরই মধ্যে কাজ শুরু করেছেন আমাদের নিয়ে। উনার পরিকল্পনামতো নিজেকে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছি। উইথ দ্য বল উনি বেশি অনুশীলন করাচ্ছেন। আর খেলোয়াড়দের সঙ্গে উনার মেশার চেষ্টাটাও আমার ভালো লেগেছে। আশা করি নতুন মৌসুমে আমরা ভালো কিছুই উপহার দেব।

প্রশ্ন : এর মধ্যে বড় খবর পেয়েছেন, বিশ্বকাপে খেলা কোস্টারিকান ডেনিয়েল কলিনড্রেস আপনাদের সতীর্থ হতে যাচ্ছেন। এটা নিয়ে কতটা রোমাঞ্চিত।

সবুজ : বাংলাদেশের যেকোনো খেলোয়াড়ের কাছেই এটা বিশাল ঘটনা। মাত্রই বিশ্বকাপ খেলে এসেছে এমন একজনের সঙ্গে ড্রেসিংরুম ভাগাভাগি করা, একসঙ্গে অনুশীলন করা, মাঠে খেলা আমাদের জন্য বড় সৌভাগ্য। তাঁর কাছ থেকে অনেক কিছু শেখার থাকবে আমাদের।

প্রশ্ন : কিংসের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় আপনি। ফরোয়ার্ড হিসেবে একাদশেও থাকবেন আশা করি। কলিনড্রেসের সঙ্গে বোঝাপড়া নিয়ে কী ভাবছেন?

সবুজ : সে আমাদের চেয়ে নিশ্চিতভাবেই অনেক উঁচু মানের খেলোয়াড়। শুরুতে হয়তো কিছুটা সমস্যা হবে ওর সঙ্গে। তবে আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে ওর সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার। ওর সেরাটা যাতে আমরা পেতে পারি সেভাবেই আমরা খেলব। দলের ভালোর জন্য তাঁর পুরো সামর্থ্যটা আমাদের কাজে লাগাতে হবে।

প্রশ্ন : আজই নিশ্চয় একসঙ্গে অনুশীলনে নামছেন?

সবুজ : নিশ্চিত নই, আজই ও মাাঠে নামবে কি না। চুক্তির আনুষ্ঠানিকতা সেরে নেবে হয়তো বা। তবে আমরা প্রত্যেকটা খেলোয়াড়ই মুখিয়ে আছি ওর সঙ্গে মাঠে নামার জন্য।

প্রশ্ন : এই মাসের ২১ তারিখে নীলফামারীতে তো প্রথম ম্যাচও খেলতে নামছেন আপনারা, সেই ম্যাচটা নিয়ে কী ভাবছেন?

সবুজ : নীলফামারী আমাদের হোম ভেন্যু। দলের প্রথম এই ম্যাচ থেকেই আমরা চাইব আমাদের দর্শকদের মন জয় করতে। বাংলাদেশ দলের সমর্থনে এমনিই মাঠে হাজার হাজার দর্শক এসেছে। কিন্তু ক্লাব হিসেবে আমাদের দায়িত্ব থাকবে ভালো ফুটবল উপহার দিয়েই এই দর্শকদের মাঠে ধরে রাখা। মাত্রই সাফ শেষ হলো আমাদের। শেষ ম্যাচটা হারায় সবাই অনেক কষ্ট পেয়েছে। ক্লাব ফুটবল দিয়ে দর্শকদের আবার নতুন করে মাঠে ফেরাতে হবে আমাদের।



মন্তব্য