kalerkantho


তারুণ্যের লড়াইয়ে ভারতই এগিয়ে

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



আন্তর্জাতিক ফুটবলে হাবুডুবু খাওয়া বাংলাদেশ, পাকিস্তান, নেপাল, ভুটানকে বাঁচিয়ে চলতে চায় তারা। সাফ নয়, এশিয়ায় তাদের মনোযোগ। এই আসরের আগে সুনীল ছেত্রীরা টুইটারে তাই শুভ কামনা জানান ব্ল টাইগারের তরুণ সদস্যদের। তাঁরাই এখন ঢাকায়, দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের জন্য অনূর্ধ্ব-২৩ দলকেই তারা যথেষ্ট মনে করছে।

 

ক্রীড়া প্রতিবেদক : সাফকে দক্ষিণ এশিয়ার বিশ্বকাপ বলার রোমান্টিকতা মার খায় ভারতকে দেখলে। আন্তর্জাতিক ফুটবলে হাবুডুবু খাওয়া বাংলাদেশ, পাকিস্তান, নেপাল, ভুটানের গা বাঁচিয়ে চলতে চায় তারা। সাফ নয়, এশিয়ায় তাদের মনোযোগ। এই আসরের আগে সুনীল ছেত্রীরা টুইটারে তাই শুভ কামনা জানান ব্ল টাইগারের তরুণ সদস্যদের। তাঁরাই এখন ঢাকায়, দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের জন্য অনূর্ধ্ব-২৩ দলকেই তারা যথেষ্ট মনে করছে।

কাল মালদ্বীপের কোচ পিটার সিগার্টও বললেন তাঁরাও এসেছেন তরুণ দল নিয়ে, যাদের গড় বয়স ২৩। নেপালি কোচ বালগোপাল মাহার্জনও বলেছেন তাঁদের দলটা তারুণ্যনির্ভর। এমনকি ভুটানের ট্রেভর মরগ্যানও বাংলাদেশকে ২০১৬ সালে হারিয়েছিল যে দলটা তা আমূল বদলে ফেলেছেন, তাঁর নতুন দলেও তরুণদের আধিক্য। বাংলাদেশ তো একরকম এশিয়াডে খেলা অলিম্পিক একাদশটাকেই এই মুহূর্তে নিজেদের সেরা মানছে। ভারতের সঙ্গে এখানেই সবার পার্থক্য। বাংলাদেশ, ভুটান, নেপাল কিংবা মালদ্বীপ যেখানে নতুন প্রজন্মকে নিয়ে নতুন শুরুর কথা ভাবছে। সেখানে ভারত সাফে তাদের তরুণ দলই পাঠিয়েছে, যারা সিনিয়রদের সঙ্গে জায়গার লড়াইয়ের জন্য তৈরি হচ্ছে। এই দলে অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপ খেলা ও অনূর্ধ্ব-১৯ দলের চার ফুটবলার প্রভুশকান সিং, সুরেশ সিং, রহিম আলী ও কেপি রাহুল। আছেন গত আইএসএল সেরা উদীয়মানের স্বীকৃতি জেতা মিডফিল্ডার অনিরুদ্ধ থাপা। সুনীল, জেজেদের অনুপস্থিতিতে দলে গোল করার মূল দায়িত্বটা রাহুল ও সুমিত পাসির। জামশেদপুরের হয়ে খেলা সুমিতই স্কোয়াডের একমাত্র যাঁর বয়স ২৩-এর বেশি।

ভারতের মূল শক্তি না থাকায় অবধারিতভাবেই এই সাফে ফেভারিটের তকমা পাচ্ছিল মালদ্বীপ। ফিফা র‌্যাংকিং এবং সাফ রেকর্ডেও আসরের দ্বিতীয় সেরা দল তারা। কিন্তু কাল পিটার সিগার বিনীতভাবে ফেভারিটের সেই লেবেল ছেঁটে ফেলেছেন, ‘ভারতের জনসংখ্যার কথা একবার ভাবুন। তাহলেও বুঝতে পারবেন দ্বিতীয় সেরা দলটাও কতটা শক্তিশালী হওয়ার কথা। এবার মালদ্বীপের কথা ভাবুন, কতজনই বা ফুটবল খেলেন সেখানে। নতুন একটা দল গড়েছি। তাতে এত প্রতিভা আমি কোথায় পাব!’ ক্রোয়েশিয়ায় জন্ম নেওয়া এই জার্মান এ বছরের মার্চেই দ্বীপদেশটির ফুটবল দলের দায়িত্ব নেওয়ার আগে দুই বছর ছিলেন আফগানিস্তানের কোচ। তাঁর অধীনেই গত কেরালা সাফে ফাইনাল খেলেছে আফগানরা। নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে তিনি মালদ্বীপ দলে। বাংলাদেশের জেমি ডে কিংবা ভুটানের ট্রেভর মরগ্যানের মতো নতুন করে দল গুছিয়েছেন তিনিও। ২০০৮-এর চ্যাম্পিয়ন এবং তিনবারের ফাইনালিস্ট মালদ্বীপে প্রজন্মান্তরের স্পষ্ট উদাহরণ সাফের এবারের দলে আলী আশফাকের না থাকা। গুঞ্জন সাফের ৩৩ বছর বয়সী আশফাকও এবারও ঢাকা আসতে চাইলেও সিগার তাঁকে ছেঁটে ফেলেছেন।

এই সাফ নেপালকে কী দেবে? গত বেশ কয়েক বছর ধরে ভারতসহ মালদ্বীপ ও বাংলাদেশকে তারা টেক্কা দিলেও শিরোপা এমনকি ফাইনালের মঞ্চটাও এখনো অধরা তাদের কাছে। নেপালি কোচ বালগোপাল স্বপ্ন দেখছেন এই আসরেই না নতুন ইতিহাস রচনা করে তাঁর দল। যুক্তি হিসেবে ২০১৬ সালেই নেপালিদের পর পর তিনটি শিরোপা জয়ের রেকর্ড তিনি স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন, ‘এই ঢাকাতেই বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ জিতে এসএ গেমসে ভারতকে হারিয়ে আমরা সোনা জিতি। এরপরই এএফসি সলিডারিটি কাপে হয়েছি চ্যাম্পিয়ন। সাফ শিরোপার অপেক্ষা ঘুচাতেই এবার আমরা ঢাকায়।’ বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ এবং এসএ গেমসেও তাঁর অধীনেই খেলেছে নেপাল, সাফল্যের মন্ত্রটা তাই ভালোই জানা বালগোপালের। এশিয়াডে পাকিস্তানের কাছে হারের ধাক্কা এই সাফের দলটাকে আরো নিখুঁত করেছে বলেই তাঁর মত। এ গ্রুপে বাংলাদেশ, ভুটান ও পাকিস্তানের মধ্যে তাই তীব্র লড়াইয়ের প্রতিশ্রুতি। ‘বি’ গ্রুপে এক শ্রীলঙ্কাকে পেছনে ফেলে মালদ্বীপ, ভারতের সেমির টিকিট কাটা কঠিন হওয়ার কথা নয়। যদিও নীলফামারীর প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশকে হারিয়ে পাকির আলী আশার ভেলা ভাসাচ্ছেন দলকে শেষ চারে তোলার। স্বাগতিকদের মূল দলটা যেহেতু সেই ম্যাচে খেলেনি ভারত, মালদ্বীপের বিপক্ষে লঙ্কান কোচের আত্মবিশ্বাসের ভেলাটা হোঁচট খেতেই পারে।

 



মন্তব্য