kalerkantho


আর্জেন্টিনা দল থেকে মেসির সাময়িক অবসর

১৬ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০



আর্জেন্টিনা দল থেকে মেসির সাময়িক অবসর

আশঙ্কা ছিল জাতীয় দল থেকে অবসর নিয়ে নিতে পারেন লিওনেল মেসি। রাশিয়া বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার দুর্দশার পর হয়তো অভিমানভরেই তিনি দূরে সরিয়ে রাখবেন আকাশি-নীল জার্সিটা। কোচের ভুল পরিকল্পনা, একাদশ বাছাইতে গলদ, সতীর্থদের সহযোগিতা না পাওয়া—একা মেসি আর কতটা করবেন আর্জেন্টিনার জন্য? কোপা আমেরিকার ফাইনালে পেনাল্টি মিসের পর রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের সময় তো অবসরের ঘোষণা দিয়েই দিয়েছিলেন, যদিও পরে ফিরেছেন মাঠে। তবে আপাতত সুখবর এই যে অবসরের ঘোষণা দেননি মেসি, তবে সহসাই তাঁকে আর্জেন্টিনার জার্সিতে দেখার সম্ভাবনাও নেই। আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যমের খবর, জাতীয় দল থেকে সাময়িক বিরতি নিয়েছেন মেসি। ফিরবেন কখন সেটা নির্দিষ্ট করে জানাননি, তবে একেবারে প্রস্থান করছেন না আকাশি-নীলদের তাঁবু থেকে।

আর্জেন্টিনার খ্যাতনামা দৈনিক ক্লারিন জানিয়েছে, ‘মেসি এই বছর আর আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে মাঠে নামবে না, সেই সঙ্গে জাতীয় দলে তার ভবিষ্যত্ নিয়েও আছে দ্বিধা।’ ইনফোবি নামের আরেকটি সংবাদ সংস্থার খবর, ‘মেসি সাময়িক বিশ্রাম নেবেন, তার মানে এই নয় যে তিনি সরে দাঁড়াচ্ছেন।’ আর্জেন্টিনা দলের একজন মুখপাত্র বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, ‘শুধু কোচই বলতে পারবেন, কখন কোন সময়ে কী পরিস্থিতিতে মেসি ফিরতে পারেন।’ হোর্হে সাম্পাওলি দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াবার পর অস্থায়ীভাবে কোচের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে লিওনেল স্ক্যালনি ও তাঁর সহকারী পাবলো আইমারের ওপর। খুব সম্ভবত স্থায়ী কোচ নিয়োগের আগে জাতীয় দলে দেখা যাবে না মেসিকে। ফলে বিপাকে পড়েছে আর্জেন্টাইন ফুটবল ফেডারেশন। এই বছর চারটি প্রীতি ম্যাচ খেলার জন্য চুক্তিবদ্ধ এএফএ, ৭ সেপ্টেম্বর লস অ্যাঞ্জেলসে গুয়াতেমালার বিপক্ষে আর চার দিন বাদে নিউ ইয়র্কে কলম্বিয়ার বিপক্ষে। সেই সঙ্গে এখনো প্রতিপক্ষ চূড়ান্ত না হওয়া আরো দুটি ম্যাচ। মেসি না খেললে সম্প্রচার ও স্পন্সরদের কাছ থেকে পাওয়া অঙ্কটা যে অনেকখানি কমে যাবে, তবু ভবিষ্যতে প্রতিযোগিতামূলক আসরে মেসিকে পাওয়ার সম্ভাবনায় এই বছর চারটি ম্যাচ খেলতে তাঁকে জোর করছেন না ফেডারেশন কর্তারা।

ন্যু ক্যাম্পে হুয়ান গ্যাম্পার ট্রফির ম্যাচ খেলতে গিয়ে মেসির সঙ্গে দেখা হবে এখন বোকা জুনিয়র্সে খেলা কার্লোস তেভেজের। তিনিও বললেন সিদ্ধান্তটা ছেড়ে দেওয়া হোক মেসির ওপরেই, ‘ব্যাপারটা খুবই ব্যক্তিগত। লিওর উচিত এ ব্যাপারে সময় নিয়ে ভাবা। যখনই জাতীয় দল খেলে, ভুল হোক আর শুদ্ধ হোক, আমরা তার সমালোচনা করি। এটা তার জন্য খারাপ, দলের জন্য খারাপ। সে কেন বিরতি নিচ্ছে সেটা বোধগম্য, সে হয়তো ফিরে নাও আসতে পারে। আমি তাকে বুঝতে পারি, কারণ ওর মতো অবস্থায় আমিও পড়েছি।’ ২০১৯ সালে কোপা আমেরিকা হবে ব্রাজিলে। তখন কি ফিরবেন মেসি? এএফপি



মন্তব্য