kalerkantho



‘মেসি থাক না থাক, ওদের শেষ করে দেব’

১৯ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



‘মেসি থাক না থাক, ওদের শেষ করে দেব’

পল পগবা—১০৫ মিলিয়ন ইউরোতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দেওয়ার পর প্রতিমুহূর্তে টাকার অঙ্কে হিসাব হয়েছে তাঁর পারফরম্যান্স। তাতে সমালোচনাই হয়েছে বেশি। সেই পগবাকে বিশ্বকাপে আবিষ্কার করা হলো নতুনরূপে। দলের জন্য জান বাজি রাখা পারফরম্যান্সে ফ্রান্স দলের আলোচিত চরিত্র হয়ে উঠেছিলেন। অফ দ্য ফিল্ড এই পগবাই আবার ছিলেন নেতার ভূমিকায়।

বিশ্বকাপ জয় উদ্যাপনে তাঁর সেই নেতৃত্ব তো ভালোভাবেই দেখা গেছে। কিন্তু বিশ্বকাপ চলাকালীন? পগবাকে নিয়ে এর মধ্যেই একটি ডকুমেন্টারি প্রকাশ করেছে ফ্রেঞ্চ চ্যানেল টিএফওয়ান। সেখানে এই তারকাকে দেখা গেছে আর্জেন্টিনার ম্যাচের আগে সতীর্থদের ভীষণভাবে উদ্দীপ্ত করতে। ‘মাঠে প্রত্যেককে যোদ্ধার ভূমিকায় দেখতে চাই। আমরা বাড়ি ফিরতে চাই না। যখন ফিরব, আনন্দ নিয়ে ফিরব। আজ রাতেও আমরা উৎসব করতে চাই। মাঠ থেকে কিছু না নিয়ে তাই ফিরব না। আমরা একেকজন সত্যিকারের যোদ্ধা হব। ওদেরকে শেষ করে দেব। মেসি থাক না থাক, কিচ্ছু আসে-যায় না। আমরা এই বিশ্ব্বকাপ জিততে এসেছি’—এমনই স্ফুলিঙ্গ ছিল তাঁর কথায়। দলের সিনিয়র সদস্য উগো লরির হাতে অধিনায়কত্বের আর্মব্যান্ডটা থাকলেও পগবা ছিলেন দলের বিশেষ একজন। বিশ্বকাপ চলাকালীন কিলিয়ান এমবাপ্পেও বলেছিলেন, ‘তাঁর সঙ্গ আমরা খুবই উপভোগ করি।’ তরুণ খেলোয়াড়দের উদ্দীপ্ত করতে দিদিয়ের দেশমের ডানহাতই ছিলেন এই মিডফিল্ডার।

উরুগুয়ের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালে আগেও দলের সামনে দেওয়া তাঁর বক্তব্য উঠে এসেছে সেই ডকুমেন্টারিতে, সেখানেও একই রকম প্রদীপ্ত তাঁর কণ্ঠস্বর, ‘এখনই সময় কিছু করার। আমাদের আর পেছন ফেরার উপায় নেই। শুধু সামনেই যেতে হবে। ১৫ জুলাই আবার আমরা একসঙ্গে হতে চাই।’ কার্ডের কারণে সেই ম্যাচে ব্লেইস মাতুইদিকে না পাওয়া নিয়েও সচেতন পগবা, মাতুইদির জন্যই ম্যাচটা খেলতে হবে—এমনভাবেও সতীর্থদের প্রতিজ্ঞাবদ্ধ করেছেন তিনি, ‘সে যেন আমাদের সঙ্গেই আছে, এমনভাবেই ম্যাচটা খেলতে হবে আমাদের। সবার সেরা পারফরম্যান্সটাই তাই চাই। যা করে এসেছি এ পর্যন্ত, আবারও তাই করতে হবে, বরং এর চেয়ে বেশি। আর্জেন্টিনাকে হারিয়েছি, আরো বড় কিছু চাই। সেরাদের হারিয়ে সেরা হওয়ার লক্ষ্যই আমাদের।’ নক আউট পর্বে ফ্রেঞ্চদের সেই চোয়ালবদ্ধ পারফরম্যান্সই দেখা গেছে। উরুগুয়ের প্রতিরোধ তাদেরকে হতাশ করতে পারেনি। দুর্ধর্ষ বেলজিয়ামকে আটকে দিয়ে উঠে গেছে তারা ফাইনালে। সেখানে বাধা হতে পারেনি নতুন ইতিহাস লেখার পথে থাকা ক্রোয়েশিয়াও। ফোরফোরটু



মন্তব্য