kalerkantho


স্পেনের সামনে ‘চেনা শত্রু’ ইরান

২০ জুন, ২০১৮ ০০:০০



স্পেনের সামনে ‘চেনা শত্রু’ ইরান

স্পেন এবং ইরান—দুটো দেশের ইতিহাসে অদ্ভুত একটা মিল। দুই জায়গাতেই যে লুটেরা দস্যুরা ইতিহাসের মহান নায়ক হিসেবে বিবেচিত! ভারতবর্ষ আক্রমণ করে নাদির শাহ লুটে নিয়ে গিয়েছিলেন ময়ূর সিংহাসন, কোহিনূরসহ মূল্যবান অনেক কিছু; সেই সঙ্গে চালিয়েছেন গণহত্যা। ওদিকে স্প্যানিশ অভিযাত্রী ফ্রান্সিকো পিজ্জারো দলবলসহ আক্রমণ চালিয়ে ধ্বংস করেছেন ইনকা সাম্রাজ্য, দক্ষিণ আমেরিকা থেকে লুট করে এনেছেন টন টন সোনা! বর্তমান সময়ে এসেও দুই দেশে বেশ দহরম-মহরম। দুই দেশের মধ্যে জ্বালানি বাণিজ্যের অঙ্কটা কম নয়। ইরানের অধিনায়ক মাসুদ শুজাই একটা সময় খেলেছেন স্প্যানিশ ক্লাব ওসাসুনায়। কোচ কার্লোস কুইরোজ একটা সময় ছিলেন রিয়াল মাদ্রিদের কোচ। সব মিলিয়ে দুই পক্ষের কেউই কারো খুব একটা অচেনা নয়! বিশ্বকাপে প্রথম জয়ের খোঁজে ‘চেনা শত্রু’ ইরানের বিপক্ষেই আজ মাঠে নামবে স্প্যানিয়ার্ডরা। অন্যদিকে মরোক্কোর বিপক্ষে জিতে আসর শুরু করা ইরান আজ ১ পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারলেই অনেকটা এগিয়ে যেতে পারবে দ্বিতীয় রাউন্ডের পথে।

পর্তুগালের সঙ্গে প্রথম ম্যাচটা দুইবার পিছিয়ে পড়ার পর এগিয়ে গিয়ে শেষ পর্যন্ত ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর হ্যাটট্রিকের কাছে পয়েন্ট খুইয়েছে স্পেন। আর ইরান প্রথম ম্যাচটা মরক্কোর সঙ্গে জিতেছে আত্মঘাতী গোলে। গত বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়নের মুকুট মাথায় নিয়ে এসে প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নেওয়া স্পেনের এবারও শুরুটা ভালো হয়নি। ইরানের সঙ্গে আটকে গেলে হতে পারে সেই দুঃস্বপ্নেরই পুনরাবৃত্তি! কোচ বিতর্কে টালমাটাল স্পেনের জন্য সেটা হতে পারে গোদের ওপর বিষফোড়া। অবশ্য ‘লা ফিউরিয়া রোজা’দের কোচ হিসেবে দ্বিতীয়বার ডাগ আউটে বসার আগে ফার্নান্দো হিয়েরো বলছেন, ‘আমি কি চাই সেটা সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা আছে। নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি, খেলোয়াড়দের এখন দরকার আত্মবিশ্বাস।’ স্পেনের অন্যতম সেরা তারকা ইসকোও নতুন ‘গুরু’র বিবেচনা বোধের প্রশংসা করছেন, ‘আমি ফার্নান্দোকে অনেক দিন ধরেই চিনি। আমাদের মালাগায় দেখা হয়েছিল, এরপর জাতীয় দলে। তিনি জানেন তিনি কী করছেন। ফার্নান্দো (দলের কৌশলে) খুব বেশি বদল আনছেন না। আমরা কিভাবে ভালো খেলি এবং আমাদের শক্তির জায়গা কোনটা, সেটা তাঁর ভালোই জানা আছে। অপ্রত্যাশিতভাবে দায়িত্ব পাওয়ায় তাঁর জন্য কাজটা একটু কঠিন হয়ে গেছে। তবে আমি তাঁকে দেখছি পূর্ণ মনোযোগ দিতে আর আমাদের ওপর আস্থা আছে তাঁর।’ 

ইরানের মেসি হিসেবে পরিচিতি পাওয়া সরদার আজমুন অনেক বছর ধরেই খেলছেন রুশ লিগে। রুবিন কাজানে খেলেন আজমুন, কাজানের মাঠ ‘কাজান অ্যারেনা’তেই আজ স্পেনের বিপক্ষে নামবেন ইরানের হয়ে। এ মাঠেই ক্লাবের হয়ে গোল করার অভিজ্ঞতা আছে আজমুনের, উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে গোল করেছেন বায়ার্ন মিউনিখ ও অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের বিপক্ষেও। আজও কুইরোজের আস্থা থাকবে তাঁর ওপরই।

ইসকো, ডিয়েগো কোস্তা, দাভিদ সিলভাদের শটগুলো আটকাতে হবে ইরানের গোলরক্ষক আলীরেজা বিরানবন্দকে। তিনি জানেন কাজটা হবে কঠিন, ‘স্পেন ফুটবল ইতিহাসেরই একটা অন্যতম সেরা দল। একটা ব্যাপার আমরা নিশ্চিত করে বলতে পারি যে স্প্যানিশ দল মাঠে সহজে জিততে পারবে না। সবাই জানে, আমাদের ছেলেরা হচ্ছে যোদ্ধা। আমরা লড়াই করব এবং শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত ছাড় দেব না।’ এএফপি

 

 



মন্তব্য