kalerkantho



মুখোমুখি প্রতিদিন

আমাদের কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখে পড়তে হবে

এশিয়ান গেমস বাছাইয়ে প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স দেখাতে পারেনি মাহবুব হারুনের দল। মালয়েশিয়ান গোবিনাথন কৃষ্ণমূর্তি এখন জাতীয় দলের দায়িত্বে। যুব অলিম্পিক বাছাইয়ে অনূর্ধ্ব-১৭ দল নিয়ে তাঁর মিশন শুরু হচ্ছে। কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি হয়ে এই দল ও তাঁর ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে কথা বলেছেন এই কোচ

১৯ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



আমাদের কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখে পড়তে হবে

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : গতবারের আসরে রানার্স-আপ হয়েছিল বাংলাদেশ, এবারের টুর্নামেন্ট নিয়ে কতটা আত্মবিশ্বাসী খেলোয়াড়রা?

গোবিনাথন কৃষ্ণমূর্তি : তারা জানে এবারের আসরটা বেশ কঠিন হবে। প্রতিপক্ষ দলগুলোর বেশ কিছু ভিডিও আমি দেখিয়েছি। সর্বশেষ নানজিং অলিম্পিকের ম্যাচগুলো নিয়েও আমি কথা বলেছি। বাছাই পর্বে আমরা ফাইনালে খেললেও নানজিংয়ে আমরা দশম হয়েছিলাম। তাই এবার আমাদের উন্নতি দেখাতে হবে। প্রথম ম্যাচ থেকেই আসলে বোঝা যাবে এবার আমাদের কত দূর যাওয়া সম্ভব।

প্রশ্ন : তবু বাছাই পর্বের আগের আসর তো এবার অনুপ্রেরণা হতে পারে...

গোবিনাথন : খেলোয়াড়রা মানসিকভাবে শক্ত আছে। তবে এ ধরনের আসরে পারফরম করতে হলে অভিজ্ঞতাটাও জরুরি। সেটাতে ঘাটতি আছে আমাদের। আমরা তো বাইরের দলগুলোর বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে পারিনি। এখানে সেনাবাহিনী এবং সিনিয়র দলের বিপক্ষে খেলেই যতটা সম্ভব তৈরি করার চেষ্টা করা হয়েছে ওদের।

প্রশ্ন : তাহলে এবার কি কোয়ালিফাই করার সম্ভাবনা কম আমাদের?

গোবিনাথন : আগেরবার আর এবারে পার্থক্য আছে। সেবার হকি ফাইভটা মাত্র শুরু হয়েছিল। অনেক দলই ওই আসর তত গুরুত্বের সঙ্গে নেয়নি। আমি বাছাই পর্ব আর নানজিংয়ে বাংলাদেশের সবগুলো খেলাই অনুসরণ করেছি। তাতেও অনেক পার্থক্য। এটা ভালো যে গতবার বাংলাদেশ কোয়ালিফাই করেছে, তবে এবার নিশ্চিত থাকুন আমাদের কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখে পড়তে হবে।

প্রশ্ন : আগে জাতীয় দল নিয়েও কাজ করেছেন, এবার মূলত কোন চ্যালেঞ্জ নিয়ে আবার বাংলাদেশে?

গোবিনাথন : এবার আমার জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়াটা সহজ হয়েছে, কারণ এর আগে আমি যাদের নিয়ে কাজ করেছিলাম, তার অনেকেই এখনকার এই দলে আছে। আমার মনে হয়েছে এই খেলোয়াড়দের প্রতিভা আছে। ওদের নিয়ে ভবিষ্যতে ভালো কিছু করা সম্ভব। সেটাই এখন আমার মূল চ্যালেঞ্জ।

প্রশ্ন : গতবারের কোন অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চান?

গোবিনাথন : আমার মনে হয়েছিল খেলোয়াড়দের আরো বেশি বেশি ম্যাচ দরকার। তখন সেই সুযোগটা তারা পায়নি। ওদের জন্য পারফরম্যান্স করাটাও তাই কঠিন ছিল। এবার চেষ্টা করব সে সুযোগ যেন পায়।

প্রশ্ন : তরুণদের নিয়ে এবার শুরু করছেন, এটা কি আপনাকে সাহায্য করবে?

গোবিনাথন : এতে আমি বুঝতে পারব কাদের মূল দলে আসার সামর্থ্য আছে। পাশাপাশি লিগও দেখব, তাদের সিনিয়র খেলোয়াড় বাছাই করাটাও সহজ হবে।



মন্তব্য